০১. দ্বিতীয় মহাযুদ্ধের সময় হইতে

দ্বিতীয় মহাযুদ্ধের সময় হইতে বাংলা দেশে‌, বিশেষত কলিকাতা শহরে‌, মানুষের জীবনের মূল্য খুবই কমিয়া গিয়াছে। পঞ্চাশের মন্বন্তরে আমরা জীবনমৃত্যুকে পায়ের… Read more ০১. দ্বিতীয় মহাযুদ্ধের সময় হইতে

০২. ননীবালার অসংবদ্ধ বাক্যবহুল উপাখ্যান

ব্যোমকেশ চোখ বুজিয়া ননীবালার অসংবদ্ধ বাক্যবহুল উপাখ্যান শুনিতেছিল‌, উপাখ্যান শেষ হইলে চোখ মেলিল। বিরক্তি চাপিয়া যথাসম্ভব শিষ্টভাবে বলিল‌, ‘মিস রায়‌,… Read more ০২. ননীবালার অসংবদ্ধ বাক্যবহুল উপাখ্যান

০৬. কেষ্টবাবু এবং প্রভাত

তিনজনে ওঘরে ফিরিয়া গিয়া দেখিলাম‌, কেষ্টবাবু এবং প্রভাত বেঞ্চির দুই কোণে উপবিষ্ট। কেষ্টবাবু হাই তুলিতেছেন এবং আড়চক্ষে প্রভাতকে নিরীক্ষণ করিতেছেন।… Read more ০৬. কেষ্টবাবু এবং প্রভাত

০৮. বৃদ্ধ ষষ্ঠীবাবু

নীচে নামিয়া আসিয়া দেখিলাম সিঁড়ির ঘরে বৃদ্ধ ষষ্ঠীবাবু থেলো হুঁকা হাতে বিচরণ করিতেছেন‌, আমাদের দেখিয়া বঙ্কিম কটাক্ষপাত করিলেন। প্রথমদিন যে উগ্ৰমূৰ্তি… Read more ০৮. বৃদ্ধ ষষ্ঠীবাবু

১২. হাপ্তাখানেক কাটিয়া গেল

হাপ্তাখানেক কাটিয়া গেল। কোনও দিক হইতে আর কোনও সাড়া শব্দ নাই নিমাই-নিতাইকে ব্যোমকেশ অবিলম্বে আসিয়া দেখা করিতে বলিয়াছিল‌, তাহারাও নিশ্চুপ।… Read more ১২. হাপ্তাখানেক কাটিয়া গেল

১৬. পোহায় আগস্ট নিশি একত্রিশা বাসরে

কবি হেমচন্দ্ৰ লিখিয়াছিলেন‌, পোহায় আগস্ট নিশি একত্রিশা বাসরে। তারপর কতকাল কাটিয়া গিয়াছে‌, প্রথম পৌর স্বয়ংপ্ৰভুতার সেই দিনটিকে স্মরণ করিয়া রাখে।… Read more ১৬. পোহায় আগস্ট নিশি একত্রিশা বাসরে

১৯. আশীর্বাদ

ব্যোমকেশ নড়িয়া চড়িয়া বসিল। পুঁটিরাম! পুঁটিরাম দরজা দিয়া মুণ্ড বাড়াইল। ‘আগুনের আংটা নিয়ে এস।’ আমি বলিলাম‌, অনেকক্ষণ ধরে আংটার কথা… Read more ১৯. আশীর্বাদ