Bangla Jokes - বাংলা জোকস

বাংলা কৌতুক ও হাসির গল্প

সূচীপত্র

পণ্ডিত প্রেস

পণ্ডিত প্রেস দাদাঠাকুর শরৎচন্দ্ৰ পণ্ডিত জঙ্গিপুর সংবাদ ও বিদূষক নামে দুটি সাময়িকপত্ৰ সম্পাদনা করতেন। তার নিজের ছাপাখানা ছিল। তার নাম পণ্ডিত প্রেস। নিজের প্রেস সম্পর্কে দাদাঠাকুর বলতেন, আমার ছাপাখানা হালফ্যাশানি ছাপাখানা নয়। আমার ছাপাখানায় আমিই প্রোপাইটার্‌ আমি...

কন্যাদায়

কন্যাদায় এক সেরেস্তাদারের সঙ্গে দেখা করতে দাদাঠাকুর শরৎচন্দ্ৰ পণ্ডিত একবার আদালতে গেছেন। তাঁকে আদালতে আসতে দেখেই উকিল, মুহুরি, মোক্তাররা এগিয়ে এসে বললেন, ঠাকুরমশাই, আপনার কেস আমি এক্ষুনি করে দিচ্ছি,আসুন। ভিড়ের চাপে দাদাঠাকুর এগোতেই পারেন না। তখন বুদ্ধিখাটিয়ে বলেন,...

কায়েতের কুকুর

কায়েতের কুকুর গোয়াবাগানে সাংবাদিক হেমেন্দ্ৰপ্ৰসাদ ঘোষের বাড়ির দোতলায় লাইব্রেরি ঘর। হেমেন্দ্ৰপ্ৰসাদ সেই ঘরে বসে কাজ করেন। লোকজন এলে সেই ঘরেই কথাবাৰ্ত্তা বলেন। হেমেন্দ্ৰপ্ৰসাদের বাড়িতে কুকুর আছে। কেউ এলেই কুকুরটা ডাকাডাকি করে। দাদাঠাকুর শরৎচন্দ্ৰ পণ্ডিত...

ঠাকুর ও কুকুর

ঠাকুর ও কুকুর প্রখ্যাত সংগীতশিল্পী বিমলভূষণের সঙ্গে দাদাঠাকুর শরৎচন্দ্ৰ পণ্ডিতের দেখা হতে বিমলভূষণ জিগ্যেস করলেন, দাদাঠাকুর, বলুন কেমন আছেন? চলেছেন কোথায়? দাদাঠাকুর রসিকতা করে বলেন, ভায়া, ঠাকুরের একটা কু। আর কুকুরের দুটো কু। মনে রাখবেন দুটোই কিন্তু পথে পথে ঘোরে। এবার...

সার্টিফিকেট প্ৰত্যাখ্যান

সার্টিফিকেট প্ৰত্যাখ্যান সিউড়ির লাটসাহেব রোনােন্ড্রসের সংবর্ধনা সভায় আসার জন্য দাদাঠাকুর শরৎচন্দ্ৰ পণ্ডিতকে নিমন্ত্রণ করলেন ব্ৰতচারীর প্রবর্তক গুরুসদয় দত্ত। লাটসাহেবের পার্সেনাল সেক্রেটারি গুরলে গেটে দাঁড়িয়ে নিমন্ত্রণের কার্ড পরীক্ষা করে অতিথিদের ঢুকতে দিচ্ছেন। পায়ে...

ইংরেজি পোয়েট্রি

ইংরেজি পোয়েট্রি মুর্শিদাবাদের ম্যাজিষ্ট্রেট এডিকের সংবর্ধনা সভায় নিমন্ত্রিত হয়ে এসেছেন দাদাঠাকুর শরৎচন্দ্ৰ পণ্ডিত। তার পরনে চির পরিচিত ধুতি-চাদর। দাদাঠাকুরকে দেখে একজন সাহেবিপনা ধনী ব্যক্তি বলে উঠলেন, এই ডার্টি লোকটা কে? দাদাঠাকুরের কানে গোল কথাটা। মুখে কিছু বললেন না।...

নিউজ

নিউজ দাদাঠাকুর শরৎচন্দ্ৰ পণ্ডিত বেতার পল্লীমঙ্গলের আসরে একবার অনুষ্ঠান করতে গেছেন। তাঁর বলা শেষ হয়েছে। কিন্তু পরের অনুষ্ঠান শুরু হতে দুমিনিট বাকি। কী করা যায়! বেতার ঘোষক ইশারায় তাকে দুটো আঙুল দেখিয়ে জানিয়ে দিলেন আরো দুমিনিট বাকি। বেতার ঘোষকের ইশারা বুঝে দাদাঠাকুর বলতে...

মৃত্যু শয্যায়

মৃত্যু শয্যায় তখন দাদাঠাকুর শরৎচন্দ্ৰ পণ্ডিত মৃত্যুশয্যায়। মৃত্যুশয্যায় শুয়েও তিনি স্বাভাবসুলভ রসিকতা করতে ছাড়েন নি। তার চিকিৎসা করতেন পারিবারিক চিকিৎসক ডাঃ মণি চট্টোপাধ্যায়। ডাক্তারবাবুকে আসতে দেখে একজন বললেন, দাদাঠাকুর, মণি ডাক্তার এসেছেন। উত্তরে দাদাঠাকুর মজা করে...

পদস্থ

পদস্থ একবার দাদাঠাকুর শরৎচন্দ্ৰ পণ্ডিত বেতার কেন্দ্রের এক পাটিতে নিমন্ত্রিত হয়ে যান। তার পরণে ধুতি ও গায়ে চান্দর। চিরপরিচিত পোশাক। তাঁকে এইভাবে আসতে দেখে এক কর্মকতা তাঁর কাছে হস্তদন্ত হয়ে এসে বললেন, দাদাঠাকুর, আপনি আমাদের কাছে যেভাবে খুশি আসুন, তাতে অসুবিধে নেই।...

বিধানসভা ও স্বাধীনতা

বিধানসভা ও স্বাধীনতা এক ব্যক্তি বিধানসভা সম্পর্কে দাদাঠাকুরের মত জানতে চাইলে তিনি মজা করে বলেন, মুখ্যমন্ত্রী বিধানচন্দ্রের খোস মেজাজের সভা বলেই তাকে বিধানসভা বলে। স্বাধীনতা সম্পর্কে তিনি বলেন, আমরা কোথায় স্বাধীনতা পেয়েছি? এটা স্বাধীনতা না স্বাদ-হীনতা? নিজের জন্মদিন...

ট্যাঁকে টাকা

ট্যাঁকে টাকা দাদাঠাকুর শরৎচন্দ্ৰ পণ্ডিত ট্যাকে বা চাদরের খোটে পয়সা রাখতেন। এক ব্যক্তি তাঁকে বলেন, আপনি আয়রণ চেস্টে টাকা পয়সা রাখেন না কেন? উত্তরে দাদাঠাকুর বলেন, বুঝলে না, যাদের চেস্ট আয়রণের মত, তারাই ইয়রণ চেস্টে টাকা রাখে। এ কথা শুনে ব্যক্তিটি হেসে...

শ্রমিক আশ্রমিক

শ্রমিক আশ্রমিক দাদাঠাকুর শরৎচন্দ্ৰ পণ্ডিত একপার্ট এডভার্টাইজিং-এর কানাই। বাবুর ঘরে নিয়মিত আসতেন। দুজনের মধ্যে মাঝে মাঝে কবিতার লড়াই লেগে যেত। দাদাঠাকুরের সঙ্গে কানাই। বাবু পেরে উঠতেন না। দাদাঠাকুর সেকালের বিখ্যাত কবি রামশৰ্মার পুত্র রামেন্দ্রকৃষ্ণ ঘোষকে বিশেষ পছন্দ...

ব্যাঙ্কের কথায়

ব্যাঙ্কের কথায় একপরিচিত ব্যক্তির সঙ্গে ব্যাঙ্ক নিয়ে আলোচনা করতে গিয়ে দাদাঠাকুর বললেন, ব্যাঙ্কে আমার অ্যাকাউন্ট খোলাই তো আছে। পরিচিত ব্যক্তি জানতে চাইলেন, দাদা, কোন ব্যাঙ্কের? উত্তরে দাদাঠাকুর বললেন, রিভার ব্যাঙ্কে। এই ব্যাঙ্কে কারেন্ট অ্যাকাউণ্ট করা সোজা নয়। ফ্লোটিং...

গো শকট

গো শকট তখন মুর্শিদাবাদ ডিস্ট্রিক্ট বোর্ডের চেয়ারম্যান রায়বাহাদুর বৈকুণ্ঠনাথ সেন। এই বোর্ডের সভার আগের দিনে বৈকুণ্ঠ জানতে পারলেন, উদ্যোগীরা দাদাঠাকুর শরৎচন্দ্ৰ পণ্ডিতকে নিমন্ত্রণ করতে ভুলে গেছেন। কী করা যায়! সামনে এত কাজ! এত ব্যস্ততার মধ্যেও বৈকুণ্ঠ স্বয়ং রঘুনাথগঞ্জে...

দেখবার জিনিস

দেখবার জিনিস দাদাঠাকুর শরৎচন্দ্ৰ পণ্ডিতের স্ত্রীর একটি পা বাতে পঙ্গু। একবার দাদাঠাকুর স্ত্রীকে কলকাতায় নিয়ে এলে নলিনীকান্ত তার সঙ্গে দেখা করতে এসে বলেন, বৌদি, কলকাতায় যখন এসেছেন। এখানকার দেখবার জিনিসগুলো আপনাকে একদিন দেখিয়ে আনি চলুন। কত কী আছে-চিড়িয়াখানা, যাদুঘর,...

সংস্কৃত ব্যাকরণ

সংস্কৃত ব্যাকরণ একদিন সকালে দাদাঠাকুর শরৎচন্দ্ৰ পণ্ডিত মনের সুখে তামাক খাচ্ছেন। নলিনীকান্ত সরকার তাকে দেখে বললেন, দাদা, তামাকই যখন খাচ্ছেন তখন একটু আরাম করেই না হয় খান। খুঁকো ছেড়ে দিন। এবার একটা গড়গড়া কিনুন। তামাক খেতে খেতেই দাদাঠাকুর বললেন, না ভাই্‌ ও নল-দময়ন্তী...

খালিপা

একবার এক বড়লোক দাদাঠাকুরকে বলেন, আপনি খালি পায়ে ঘুরে বেড়ান কেন? উত্তরে দাদাঠাকুর বলেন, বাগদাদের রাজাও তো খালিপা (অর্থাৎ খালিফা)। আমি খালিপা হলে দোষ...

প্রি পোজিসন

প্রি পোজিসন দাদাঠাকুর শরৎচন্দ্ৰ পণ্ডিত বড়োলোকদের উপর ছিলেন হাড়ে হাড়ে চটা। নিজে সাদামাটা জীবনযাপন করতেন। লোক দেখানো মেকি হাবভাব তিনি পছন্দ করতেন না। একদিন তার ছাপাখানায় আলোচনা হচ্ছে বড়লোকদের সম্বন্ধে। কথা প্রসঙ্গে মোটরকারবিহারী বড়লোকদের সম্বন্ধে দাদাঠাকুর মন্তব্য...

ড্র রেখেছিলুম

ড্র রেখেছিলুম দাদাঠাকুর শরৎচন্দ্ৰ পণ্ডিত ছিলেন এক জীবন রসিক। তিনি তার প্রখর রসবোধকে চরম শোকের মুহুর্তেও বিসর্জন দেননি। তাঁর প্রিয় পুত্র যখন ৬৪ দিন রোগ ভোগের পর মারা গেল তখনও তিনি অন্যের কাছে কান্নায় ভেঙে পড়েন নি। মনের কষ্ট মনেই রেখে তিনি কথামত গিয়েছিলেন কল্লোল...

খোদা ও দেবতা

খোদা ও দেবতা একবার বিদ্রোহী কবি কাজী নজরুল ইসলামকে রীতিমত খেপিয়ে তুলেছিলেন দাদাঠাকুর শরৎচন্দ্ৰ পণ্ডিত। একটি সাহিত্যসভায় দাদাঠাকুর নজরুলকে বলেন, জানো তো, আমাদের খোদা, তোমাদের খোদার খোদা। নজরুল একথা শুনে বলেন, ধর্ম তুলে কী উল্টেপোল্টা কথা বলছেন আপনি? দাদাঠাকুর বলেন,...

Page 1 of 25412345...102030...Last »

Adsense

সাম্প্রতিক মন্তব্য