সামবেদ ০২।০২

দ্বিতীয় অধ্যায়
দ্বিতীয় খণ্ড : মন্ত্র সংখ্যা ১০॥

দেবতা ইন্দ্র (৯ অগ্নি ও ইন্দ্র)
ছন্দ গায়ত্রী॥
ঋষিঃ
১।২ সুকক্ষ ও শ্রুতকক্ষ আঙ্গিরস,
৩ ভরদ্বাজ (ঋগ্বেদে শংযু বার্হস্পত্য),
৪ শ্রুতকক্ষ (ঋগ্বেদে সুকক্ষ আঙ্গিরস),
৫।৬ মধুছন্দা বৈশ্বামিত্র,
৭।৯।১০ ত্রিশোক কান্ব,
৮ বসিষ্ঠ মৈত্রাবরুণি॥

মন্ত্রঃ (১২৫) ঊদ্ধেদভি শুতামঘং বৃষভং নর্যাপসম্‌।অস্তারমেষি সূর্য॥১॥
অর্থ : (১২৫) হে সূর্য কীর্তিযুক্তধনবিশিষ্ট, অভিলাষপূরণকারী, মানুষের হিতকারী উদার পুরুষের জন্য উদিত হও॥

মন্ত্রঃ (১২৬) যদদ্য কচ্চ বৃত্রহন্নুদগা অভি সূর্য। সর্বং তদিন্দ্র তে বশে॥২॥
অর্থ : (১২৬) হে সূর্য, হে বৃত্রবধকারী, হে ইন্দ্র, আজ এই যেসব পদার্থের সামনে উদিত হয়েছ, এ সকলই তোমার বশে এসেছে॥

মন্ত্রঃ (১২৭) য আনয়ৎ পরাবতঃ সুনীতী তুর্বশং যদুম্‌। ইন্দ্রঃ স নো যুবা সখা॥৩॥
অর্থ : (১২৭) যিনি সুষ্টু নীতির দ্বারা পরিচালিত হয়ে দূরদেশ থেকে তুর্বশ ও যদুকে এনেছিলেন সেই যুবা ইন্দ্র আমাদের সখা॥[তুর্বশ=ধর্ম-অর্থ-কাম-মোক্ষযুক্ত মানুষ॥যদু=আচার্যের উপদেশে বিপথ হতে বিরত মানুষ॥(নিঘন্টু ভাষ্য)]॥

মন্ত্রঃ (১২৮) মা ন ইন্দাভ্যাত দিশঃ সূরো অক্তুম্বা যমৎ।ত্বা যুজা বনেম তৎ॥৪॥
অর্থ : (১২৮) হে ইন্দ্র, প্রবল শত্রু যেন রাত্রির অন্ধকারে চতুর্দিকে আমাদের ঘিরে না ফেলে; তোমার সহায়তায় আমরা তাদের রুখতে পারবো॥

মন্ত্রঃ (১২৯) এন্দ্র সানসিং রয়িং সজিত্বানং সদাসহম্‌।বর্ষিষ্ঠমূতয়ে ভর॥৫॥
অর্থ : (১২৯) হে ইন্দ্র, আমাদের পালনের জন্য, তুল্য প্রতিদ্বন্দ্বীকে জয় করবার জন্য, নিরন্তর সেবনযোগ্য শত্রুপরাভবকারী প্রচুর ধন আন॥

মন্ত্রঃ (১৩০) ইন্দ্রং বয়ং মহাধন ইন্দ্রমর্ভে হবামহে।যুজং বৃত্রেষু বজ্রিণম্‌॥৬॥
অর্থ : (১৩০) আমরা ইন্দ্রকে প্রচুর ধনের জন্য আহ্বাব করি, আমরা ইন্দ্র অল্পধনের প্রয়োজনেও আহ্বান করি। বজ্রধারী ইন্দ্র শত্রুনিবারণে সহায়ক॥

মন্ত্রঃ (১৩১) অপিবৎ কদ্রুবঃ সুতমিন্দ্রঃ সহস্রবাহ্বে।তত্রাদদিষ্ট পৌংস্যম্‌॥৭॥
অর্থ : (১৩১) ইন্দ্রদেব অমিতবলের জন্য কলসপূর্ণ সোম পান করবেন, তার ভলে ইন্দ্রের পৌরুষ অত্যন্ত বৃদ্ধি পেল॥

মন্ত্রঃ (১৩২) বয়মিন্দ্র ত্বায়বোহভি প্র নোনুমো বৃষন্‌।বিদ্ধী ত্বাতস্য নো বসো॥৮॥
অর্থ : (১৩২) হে ইচ্ছাপূরক ইন্দ্র, তোমার কাছে কামনা ক’রে বারবার তোমার স্তব করি। হে আশ্রয়দাতা, আমাদের স্তুতি অন্তরে গ্রহণ কর॥

মন্ত্রঃ (১৩৩) আ ঘা যে অগ্নিমিন্ধতে স্তৃনন্তি বর্হিরানুষক। যেষামিন্দ্রো যুবা সখা॥৯॥
অর্থ : (১৩৩) যাঁরা অগ্নিকে সন্দীপ্ত করেন, যাঁরা মিলিতভাবে প্রসারিত করেন, যুবা ইন্দ্র তাঁদের সখা॥

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *