অনেক বছর পরে

অনেক বছর পরে তোর কাছে এসেছি, মল্লিকা! বহুদিন আপিসের কাজে-কন্মে ডুবুরির মতো বহুদি মেশিনের যন্ত্রপাতি হয়ে বহুদিন বাবুদের গাড়ির টায়ার… Read more অনেক বছর পরে

অলৌকিক

অলৌকিক এইভাবে ঘটে। হঠাৎ একদিন ফাঁক হয়ে যায় সাদাসিধে ঝিনুক, ভিতর থেকে ঠিকরে বেরোয় সাদা জ্যোৎস্না। সেদিন মুক্তোর মতো গড়িয়ে… Read more অলৌকিক

একি অমঙ্গল

তোমার হাতে ছুঁচ-সুতোটি আমার হাতে ফুল দেখতে পেয়েই আকাশ জুড়ে হিংসা হুলুস্থুল। তোমার হাতে রঙের বাটি আমার হাতে তুলি দেখতে… Read more একি অমঙ্গল

চেনা যায়

অন্ধকার ছিলে বুঝি? গাছের আড়ালে ছিলে, গর্তে ছিলে ভিজে খড়ে জড়াজড়ি ছিলে? মাথাভর্তি লণ্ডভণ্ড চুল। সারা গায়ে রক্তের আঁকচারা। যুদ্ধে… Read more চেনা যায়

দীপেন বললেই

দীপেন বললেই একটা প্রকাণ্ড গাছ ঝড়াকে যার থোড়াই কেয়ার। একটা চওড়া বাধ য়ার কাছে নতজানু সমস্ত প্লাবনের জল। কি চমৎকার… Read more দীপেন বললেই

দৈববাণী

বৃক্ষ হবো চারপাশে আলোকিত জলের বাঁক জলের গভীরে নারীর সাজবদলের মতো দৃশ্য দৃশ্যের গভীরে সুগম্ভীর ঘন্টাধ্বনি মাতৃজঠর থেকে আমরা শুনে… Read more দৈববাণী

নিসর্গ

ছিঃ ছিঃ। ছেঁড়া-খোঁড়া এক ফালি সবুজ রুমালের জন্যে আমাদের হা-পিত্যেশ, আর তুই মাছরাঙা রঙের সাত-সাতটা পাহাড় আর মিছিলের মতো লম্বা… Read more নিসর্গ

বজ্র শব্দটাকে

বজ্র শব্দটাকে আমরা ঠিকমতো উচ্চারণ করতে ভুলে গেছি আর বৃক্ষ শব্দটাকেও। টাকা-পয়সা শব্দটার ভিতরে লুকনো আছে একটা ঝুমঝুমি এবং উচ্চারণ… Read more বজ্র শব্দটাকে

মন কেমন করে

ভীষ্মদেবের জন্যে মাঝে মাঝে মন কেমন করে আবার যামিনী রায়ের জন্যেও। সমস্ত বৃহৎ অট্টালিকার ভিতরে ঢুকে পড়েছে আগুনের শিকড় সমস্ত… Read more মন কেমন করে