কায়েতের কুকুর

গোয়াবাগানে সাংবাদিক হেমেন্দ্ৰপ্ৰসাদ ঘোষের বাড়ির দোতলায় লাইব্রেরি ঘর। হেমেন্দ্ৰপ্ৰসাদ সেই ঘরে বসে কাজ করেন। লোকজন এলে সেই ঘরেই কথাবাৰ্ত্তা বলেন। হেমেন্দ্ৰপ্ৰসাদের বাড়িতে কুকুর আছে। কেউ এলেই কুকুরটা ডাকাডাকি করে। দাদাঠাকুর শরৎচন্দ্ৰ পণ্ডিত হেমেন্দ্ৰপ্ৰসাদের বাড়ির নিচে এসে হাঁক পাড়তেই কুকুরটা ঘেউ ঘেউ করে তেড়ে এসে দাদাঠাকুরকে সামান্য কামড়ে দিল।

হেমেন্দ্ৰপ্ৰসাদ তাড়াতাড়ি ওষুধপত্র দিয়ে দাদাঠাকুরের পায়ে ব্যাণ্ডেজ বেঁধে দিলেন। দাদাঠাকুর রসিকতা করে হেমেন্দ্ৰপ্ৰসাদকে বললেন, লোকজন এলে তোমার কুকুর কামড়ে দেবে বলে তুমি কি সর্বদা ওষুধপত্র নিয়ে তৈরী থাকো?

হেমেন্দ্ৰপ্ৰসাদ বললেন, না তা নয়, সকলকে কামড়ায় না। এই তো কয়েকজন একটু আগে এল, ওদের কামড়ায়নি। আমার এই কুকুর ভদ্রলোক চেনে।

দাদাঠাকুর রসিকতা করে বললেন, না না, তা নয়। আসলে কায়েতের কুকুর তো, বামুনের পা পেয়ে লোভ সামলাতে পারেনি। এ কথা শুনে হেমেন্দ্ৰপ্ৰসাদ হেসে উঠলেন।

Share This