সত্যেন্দ্র-প্রয়াণ-গীতি

    চল-চঞ্চল বাণীর দুলাল এসেছিল পথ ভুলে,
   ওগো   এই গঙ্গার কূলে।
দিশাহারা মাতা দিশা পেয়ে তাই নিয়ে গেছে কোলে তুলে
   ওগো    এই গঙ্গার কূলে।।
    চপল চারণ বেণু-বীণে তা’র 
    সুর বেঁধে শুধু দিল ঝঙ্কার,
    শেষ গান গাওয়া হ’ল না ক’ আর,
      উঠিল চিত্ত দুলে,
   তারি ডাক-নাম ধ’রে ডাকিল কে যেন অস্ত-তোরণ-মূলে,
   ওগো   এই গঙ্গার কূলে।।

   ওরে এ ঝোড়ো হাওয়ায় কারে ডেকে যায় এ কোন সর্বনাশী
    বিষাণ কবির গুমরি’ উঠিল, বেসুরো বাজিল বাঁশী।
    আঁখির সলিলে ঝলসানো আঁখি
    কূলে কূলে ভ’রে ওঠে থাকি’ থাকি’,
    মনে পড়ে কবে আহত এ-পাখী
      মৃত্যু-আফিম-ফুলে,
   কোন ঝড়-বাদলের এমনি নিশীথে প’ড়েছিল ঘুমে ঢুলে।
   ওগো   এই গঙ্গার কুলে।।

   তার ঘরের বাঁধন সহিল না সে যে চির বন্ধন-হারা,
   তাই ছন্দ-পাগলে কোলে নিয়ে দোলে জননী মুক্তধারা!
   ও সে আলো দিয়ে গেল আপনারে দহি’,
    অমৃত বিলালো বিষ-জ্বালা সহি’,
   শেষে শান্তি মাগিল ব্যথা-বিদ্রোহী
     চিতার অগ্নি-শূলে!
   পুনঃ নব-বীনা-করে আসিবে বলিয়া এই শ্যাম তরুমূলে
   ওগো  এই গঙ্গার কূলে।।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *