কালোয়াতি কসরত

গাব্বুসের বাপ : আইগ্যা পেন্নাম ওই পতিতুন্ডী ঠাউর ! আইগ্যা, তুমি আপনি যাইবার লাগছে কই? কহা হাহা! ওদিক পানে যাইও না ঠাউর ! ময়লা আছেন – ময়লা আছেন–মানুষের ময়লা!
পতিতুন্ডী : কে ও? গাববুসের বাপ? হল্লারে বিল্লা। নক্কুরে খাইছিল! রামচন্দ্র! বাবা গাব্বুসের বাপ। বাইচ্যা থাহ বাবা বাইচ্যা থাহ বাবা। তুমি না কইলে এহনি আমি ওই ময়লাতে পারা দিচ্ছিলাম। তা হেরে কি কয়, মুই যাইত্যাচি বৈকুণ্টু তলাপাত্রের বাড়িত। তলাপাত্র বুঝলি? বেডপ্যান, বেডপ্যান। কলা বুঝছ? হেই তলাপাত্রের বাড়িতে কালোয়াতি গান হইব – হেরে হুনবার যাইতেছি।
গাব্বুসের বাপ : কালো হাতির গান? আইগ্যা কী যে কন। মুই তো বাপের জন্মেও কালো হাতির গান তো হুনছি না। সার্কাসে কালো হাতির নাচ দেখছি – গান তো হুনছি না। মো গো গরিব গ কি যাইবার দিব?
পতিতুন্ডী : (হাসিয়া) আরে, কালো হাতির গান নয়; কালোয়াতি গান। আইও মোর লগে, যাইবার দিব না কীসের লাইগ্যা।
গাব্বুসের বাপ : আইগ্যা ওই ওইল। আপনারা যারে আতি কন, আমরাও হিরে আতি কই। চলেন আইগ্যা।

[ওস্তাদের গান হচ্ছে – ওস্তাদজি তখন বাঙলা গান ধরেছেন]

গান

(আরে হাঁ)  ভক্ত তব ডাকে মেনকা-নন্দিনী
         সব কুচু হামার হারাইয়া মা গো
     তোমার নাম জপি জগদম্বা গো,
     মহামাইয়্যা আইস্যা সনধ্যা আঁধিয়ারা
             নাইশো আনন্দিনী॥

(গানের মাঝে গাব্বুসের বাপের হাউ হাউ রবে ক্রন্দন।)
পতিতুন্ডী : এরি ও গাব্বুসের বাপ! কাঁদবার লাগছস কীসের লাইগ্যা। চুপ দাও।
গাব্বুসের বাবা : আইগ্যা, ওস্তাদজির দাড়ি দেইখা আমার পাঠাডারে কথা মনে পইর‍্যা গেছে গো। কাল থনে আমার পাঠাডারে বিছরাইয়্যা পাইতেছি না। তেনার মুখে ওস্তাদজির মুখের লাহান দাড়ি আছিল। হেও ওইহুন

%d bloggers like this: