০১. স্বামী-শিষ্য-সংবাদ

০১. স্বামী-শিষ্য-সংবাদ ১-৫

১ স্থান—কলিকাতা, প্রিয়নাথ মুখোপাধ্যায়ের বাটী, বাগবাজার কাল—ফেব্রুআরি(শেষ সপ্তাহ), ১৮৯৭ প্রথমবার বিলাত হইতে ভারতে ফিরিবার পর তিন চারিদিন হইল স্বামীজী কলিকাতায় পদার্পণ করিয়াছেন। আজ মধ্যাহ্নে বাগবাজারের রাজবল্লভপাড়ায় শ্রীরামকৃষ্ণ-ভক্ত শ্রীযুক্ত প্রিয়নাথ মুখোপাধ্যায়ের...

০২. স্বামী-শিষ্য-সংবাদ ৬-১০

৫ স্থান—কলিকাতা, বাগবাজার কাল—মার্চ, ১৮৯৭ স্বামীজী কয়েকদিন যাবৎ কলিকাতাতেই অবস্থান করিতেছেন। বাগবাজারের বলরাম বসু মহাশয়ের বাড়ীতেই রহিয়াছেন। মধ্যে মধ্যে পরিচিত ব্যক্তিদিগের বাটীতেও ঘুরিয়া বেড়াইতেছেন। আজ প্রাতে শিষ্য স্বামীজীর কাছে আসিয়া দেখিল, স্বামীজী ঐরূপে বাহিরে...

০৩. স্বামী-শিষ্য-সংবাদ ১১-১৫

১১ স্থান—শ্রীনবগোপাল ঘোষের বাটী, রামকৃষ্ণপুর, হাওড়া কাল—৬ ফেব্রুআরী, ১৮৯৮-(মাঘীপূর্ণিমা)   শ্রীরামকৃষ্ণদেবের পরম ভক্ত শ্রীযুক্ত নবগোপাল ঘোষ মহাশয় ভাগীরথীর পশ্চিম তীরে হাওড়ার অন্তর্গত রামকৃষ্ণপুরে নূতন বসতবাটী নির্মাণ করিয়াছেন। নবগোপাল বাবু ও তাঁহার গৃহিণীর একান্ত...

০৪. স্বামী-শিষ্য-সংবাদ ১৬-২০

১৬ স্থান—বেলুড়, ভাড়াটিয়া মঠ-বাটী কাল—নভেম্বর, ১৮৯৮   বেলুড়ে নীলাম্বরবাবুর বাগানে এখনও মঠ রহিয়াছে। অগ্রহায়ণ মাসের শেষ ভাগ। স্বামীজী এই সময় সংস্কৃত শাস্ত্রাদির বহুধা আলোচনায় তৎপর। ‘আচণ্ডালাপ্রতিহতরয়ঃ’৪৩ ইত্যাদি শ্লোক-দুইটি তিনি এই সময়েই রচনা করেন। আজ স্বামীজী ‘ওঁ হ্রীং...

০৫. স্বামী-শিষ্য-সংবাদ ২১-২৫

২১ স্থান—বেলুড়, ভাড়াটিয়া মঠ-বাটী কাল—১৮৯৮৮   আজ বেলা প্রায় দুইটার সময় শিষ্য পদব্রজে মঠে আসিয়াছে। নীলাম্বরবাবুর বাগানবাটীতে এখন মঠ উঠাইয়া আনা হইয়াছে এবং বর্তমান মঠের জমিও অল্পদিন হইল খরিদ করা হইয়াছে। স্বামীজী শিষ্যকে সঙ্গে লইয়া বেলা চারিটা আন্দাজ মঠের নূতন জমিতে...

০৬. স্বামী-শিষ্য-সংবাদ ২৬-৩০

২৬ স্থান—বেলুড়মঠ কাল—(ঐ নির্মাণকালে) ১৮৯৮   শিষ্য॥ স্বামীজী, খাদ্যাখাদ্যের সহিত ধর্মাচরণের কিছু সম্বন্ধ আছে কি? স্বামীজী॥ অল্পবিস্তার আছে বৈকি। শিষ্য॥ মাছ-মাংস খাওয়া উচিত এবং আবশ্যক কি? স্বামীজী॥ খুব খাবি বাবা! তাতে যা পাপ হবে, তা আমার.৫৭। তোদের দেশের লোকগুলোর দিকে...

০৭. স্বামী-শিষ্য-সংবাদ ৩১-৩৫

৩১ স্থান—বেলুড়, ভাড়াটিয়া মঠ-বাটী কাল—(৩য় সপ্তাহ) জানুআরী, ১৮৯৯   আলমবাজার হইতে বেলুড়ে নীলাম্বরবাবুর বাগানে যখন মঠ উঠিয়া আসে, তাহার অল্পদিন পরে স্বামীজী তাঁহার গুরুভ্রাতৃগণের নিকট প্রস্তাব করেন যে, ঠাকুরের ভাব জনসাধারণের মধ্যে প্রচারকল্পে বাঙলা ভাষায় একখানি সংবাদ-পত্র...

০৮. স্বামী-শিষ্য-সংবাদ ৩৬-৪০

৩৬ স্থান—বেলুড় মঠ কাল—(জুন?), ১৯০১   স্বামীজীর শরীর অসুস্থ। আজ ৫।৭ দিন যাবৎ স্বামীজী কবিরাজী ঔষধ খাইতেছেন। এই ঔষধে জলপান একেবারে নিষিদ্ধ। দুগ্ধমাত্র পান করিয়া তৃষ্ণা নিবারণ করিতে হইতেছে। শিষ্য প্রাতেই মঠে আসিয়াছে। আসিবার কালে একটা রুই মাছ ঠাকুরের ভোগের জন্য আনিয়াছে।...

০৯. স্বামী-শিষ্য-সংবাদ ৪১-৪৬

৪১ স্থান—বেলুড় মঠ কাল—১৯০২   পূর্ববঙ্গ হইতে ফিরিবার পর স্বামীজী মঠেই থাকিতেন এবং মঠের কাজের তত্ত্বাবধান করিতেন; কখনও কখনও কোন কাজ স্বহস্তে সম্পন্ন করিয়া অনেক সময় অতিবাহিত করিতেন। কখনও নিজ হস্তে মঠের জমি কোপাইতেন, কখনও গাছপালা ফলফুলের বীজ রোপণ করিতেন, আবার কখনও বা...