ঋগ্বেদ ০৮।০৭৫

ঋগ্বেদ ০৮।০৭৫
ঋগ্বেদ সংহিতা ।। ৮ম মণ্ডল সূক্ত ৭৫
অগ্নি দেবতা। অঙ্গিরাপুত্র বিরূপ ঋষি।

১। হে অগ্নি! রথীর ন্যায় তুমি দেবগণের আহ্বানে অত্যন্ত পটু অশ্বগণকে যোজিত কর; তুমি হোতা, তুমি প্রধান হইয়া উপবেশন কর।

২। হে দেব! তুমি দেবগণের নিকট আমাদিগকে বিদ্বান্‌শ্রেষ্ঠ বলিয়া বল, এবং সমস্ত বরণীয় ধন অথবা হব্য সার্থক কর।

৩। হে যুবতম, বলের পুত্র আহুত অগ্নি! তুমি সত্যবান ও যজ্ঞার্হ।

৪। এই অগ্নি শত ও সহস্ৰসংখ্যক অন্নের স্বামী, শিরোবিশিষ্ট, কবি ও ধনপতি।

৫। হে গমনশীল অগ্নি! ঋভূগণ যেরূপ রথনেমি আনমিত করে, সেইরূপ তুমি একত্রে আহূত দেবগণের সহিত অতি নিকটবর্তী যজ্ঞ আনমিত কর ।

৬। হে বিরূপ! তুমি নিত্য বাক্য দ্বারা তৃপ্ত ও অভীষ্টবর্ষী অগ্নির স্তুতি কর।

৭। আমরা গাভীগণের জন্য অনল্প চক্ষুবিশিষ্ট, এই অগ্নির শিখা দ্বারা কোন পণির হিংসা করিব?

৮। আমরা দেবগণের পরিচারক, যেরূপ দুগ্ধপ্রদাত্রী গাভীকে পরিত্যাগ করা হয় না, যেরূপ গাভীগণ কৃশ বৎসকে পরিত্যাগ করে না, সেইরূপ আমাদের পরিত্যাগ করিও না।

৯। সমুদ্র তরঙ্গ যেরূপ নৌকাকে বাধা প্রদান করে, সেইরূপ যেন শত্রু সকলের দুষ্ট বুদ্ধি আমাদের বাধা না দেয়।

১০। হে অগ্নিদেব! মনুষ্যগণ বল লাভের জন্য তোমার উদ্দেশে নমস্কার শব্দ উচ্চারণ করে, তুমি বলদ্বারা শত্রু নাশ কর।

১১। হে অগ্নি! আমরা গাভী লাভ করিতে পারিব বলিয়া তুমি বহুধন দান কর, তুমি সমৃদ্ধকারী, তুমি আমাদিগকে সমৃদ্ধ কর।

১২। তুমি ভারবাহী ব্যক্তির ন্যায় আমাদিগকে এই সংগ্রামে পরিত্যাগ করিও না। তুমি ধন জয় কর, উহা শত্রুগণের সহিত ছিন্ন হইতেছে।

১৩। হে অগ্নি! এই বাধাসমূহ, অন্য লোকের ভয় উৎপাদন করুক, তুমি আমাদের বলোপেত বেগ বর্ধিত কর।

১৪। যে নমস্কারকারীর, অথবা অদৃষ্ট যাগবিশিষ্ট ব্যক্তির কর্ম সেবা করে, তাহারই নিকট অগ্নি বিশেষরূপে গমন করেন।

১৫। শত্রুসেনা হইতে পৃথক সেনাগণকে অভিমুখীন কর; যাহাদের মধ্যে আমি আছি, তাহাদের রক্ষা কর।

১৬। হে অগ্নি! তুমি পিতা, আমরা পূর্বের ন্যায় এক্ষণে তোমার রক্ষা অবগত আছি, অনন্তর তোমার সুখ যাচ্ঞা করি।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *