ঋগ্বেদ ০৮।০৫৩

ঋগ্বেদ ০৮।০৫৩
ঋগ্বেদ সংহিতা ।। ৮ম মণ্ডল সূক্ত ৫৩
ইন্দ্র দেবতা।

১। তুমি ধনীগণের উপমাস্বরূপ, অভীষ্টবর্ষীগণের জ্যেষ্ঠ, সৰ্ব্বাপেক্ষ, শক্রপুরবিদারী, ধনজ্ঞ ও স্বামী। হে মঘবা ইন্দ্র! আমি ধনার্থ তোমার যাচ্ঞা করিতেছি।

২। যিনি প্রত্যহ বৰ্দ্ধমান হইয়া আয়ু, কুৎস এবং অধিতিগ্বকে রক্ষা করিয়াছিলেন, আমরা সেই হরিনামক অশ্বযুক্ত শতক্রতু ইন্দ্রকে অন্নাভিলাষী হইয়া আহ্বান করিতেছি।

৩। যে সোম সকল দূরদেশে লোকসমূহ মধ্যে অভিযুত হয়, যাহারা নিকটে অভিযুত হয়, সেই সমস্ত সোমের রস আমাদের অভিষব প্রস্তর পেষণ করিয়া বাহির করুক।

৪। তুমি যেখানে সোম পান করিয়া তৃপ্ত হও, সেখানে সমস্ত শত্ৰুগণকে বিনাশ কর ও পরাভূত কর, সমস্ত ধন উপভোগ যোগ্য হউক। শিষ্টগণের মধ্যে সোম তোমার মদকর।

৫। হে ইন্দ্র! তুমি কল্যাণতমঃ এবং অত্যন্ত বন্ধু, তুমি মিতমেধা, কল্যাণকর, অভীষ্টপ্রদ, বন্ধুস্বরূপ রক্ষা কাৰ্য্যের সহিত নিকটবৰ্ত্তী স্থানে আগমন কর।

৬। যুদ্ধে ত্বরাবান, সাধুলোকের পালক, সমস্ত লোকের অধীশ্বর, ইন্দ্রকে প্রজাগণের মধ্যে পূজনীয় করা, যাহার কৰ্ম্মসমূহদ্বারা সুফল প্রবৰ্ত্তিত করেন, সেই উকথ উচ্চারণকারীগণ অবিচ্ছিন্নভাবে যজ্ঞ সম্পাদন করুন।

৭। তোমার সর্বাপেক্ষা উৎকৃষ্ট যাহা কিছু আছে তাহা যেন আমরা পাই। আমরা রক্ষার্থ তোমারই হইব, যুদ্ধকালেও তোমারই হইব। আমরা স্তুতি এবং আহ্বানদ্বারা তোমাদের ভজনা করতঃ স্তুতি পাঠ কবিব।

৮। হে হরিনামক অশ্ববিশিষ্ট ইন্দ্র! আমি অন্নাভিলাষী, অশ্বাভিলাষী ও গবাভিলাষী হইয়া তোমার স্তোত্র করি এবং তোমার রক্ষালাভ করিয়া যুদ্ধে গমন করি। ভয়ের সময় তোমাকেই শত্রুগণের সম্মুখে স্থাপন করি।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *