ঋগ্বেদ ০৬। ৬৩
ঋগ্বেদ সংহিতা । ৬ষ্ঠ মণ্ডল । সূক্ত ৬৩
অশ্বিদ্বয় দেবতা। ভরদ্বাজ ঋষি।

১। দূতের ন্যায় প্রেরিত হব্যযুক্ত, স্তোম মনোহর, পুরুহূত অশ্বিদ্বয় যেখানেই অবস্থিতি করুন যেন তাঁহাদিগকে লাভ করে। এই স্তোম নাসত্যদ্বয়কে আমাদের অভিমুখে আবর্ত্তিত  করিয়াছিল। হে অশ্বিদ্বয়! তোমরা স্তোতার স্তোত্রে প্রীত হও।

২। হে অশ্বিন্দ্ৰয়। তোমরা আমাদের আহ্বান অনুসারে। পৰ্য্যাপ্ত প্রকারে গমন কর, তোমরা স্তূয়মান হইয়া সোমপান কর, আমাদিগের গৃহ শক্ৰ হইতে রক্ষা কর, দূরবর্তী অথবা নিকটবৰ্ত্তী শত্রু যেন উহাকে হিংসা করিতে না পারে।

৩। তোমাদের জন্য সোমের বিস্তীর্ণ অভিষব প্রস্তুত করা হইয়াছে। মৃদুতম বৰ্হি বিস্তীর্ণ করা হইয়াছে, তোমাদিগকে অভিলাষ করিয়া কৃতাঞ্জলি হইয়া লোকে বন্দনা করিতেছে। প্রস্তর সকল তোমাদিগকে ব্যাপ্ত করতঃ সোমরস ব্যক্ত করিয়াছে।

৪। অগ্নি তোমাদিগের যজ্ঞের জন্য ঊৰ্দ্ধে উখিত হন এবং যজ্ঞে গমন করেন এবং হব্যপ্রদত্ত ও ঘৃতযুক্ত হন। যিনি নাসত্যদ্বয়কে স্তোত্রযুক্ত করেন, সেই হোতা বহুকর্ম্মা ও অত্যন্ত উদযুক্ত মনস্ক হন।

৫। হে অনেকের রক্ষক অশ্বিদ্বীয়! সূৰ্য্যদুহিতা, তোমাদিগের বহুরক্ষক রথ শোভিত করিবার জন্য অধিষ্ঠান করিয়াছিলেন। তোমরা দেবগণের এই জন্মে প্ৰজ্ঞাবলে প্ৰাজ্ঞ, নেতা এবং নৃত্যশালী হও।

৬। তোমরা এই দর্শনীয় কান্তিদ্বারা সুৰ্য্যের শোভার জন্য পুষ্টিপ্ৰাপ্ত হও। তোমাদিগের অশ্বগণ শোভার জন্য প্রকর্ষরূপে অনুগমন করে। হে স্তুতিযোগ্য অশ্বিদ্বয়! সুন্দরীরূপে স্তুত স্তুতিসমূহ তোমাদিগকে ব্যাপ্ত করে।

৭। হে নাসত্যদ্বয়! গমনশীল, অত্যন্ত বহনপটু অশ্বগণ তোমাদিগকে অন্ন অভিমুখে বহন করুক। তোমাদিগের মনের ন্যায় বেগশালী রথ সম্পর্কযোগ্য এবং অভিলষণীয় প্ৰভূত অল্পের জন্য বিসৃষ্ট হইয়াছে।

৮। হে অনেকের রক্ষক অশ্বিদ্বয়! তোমাদিগের অনেক ধন আছে অতএব তোমরা আমাদিগকে প্রীত কর এবং অন্য সংক্রমণরহিত অন্ন দান কর। হে মাদয়িতা অশ্বিদ্বয়! তোমাদিগের স্তোতা আছে, সুন্দর স্তুতি আছে এবং যাহা তোমাদিগের দানের উদ্দেশে গমন করে, এরূপ সোমরসও আছে।

৯। আর পুরয়ের ঋজুগামী এবং শীঘ্রগামী বড়বাদ্বয় আমার হইয়াছে। সুমীঢ়ের শত গাভী আমার হইয়াছে, পেরুকের পক্ক অন্ন আমার হইয়াছে। শান্ত রাজা অশ্বিদ্বয়ের স্তোতাকে হরণ্যযুক্ত, সুদর্শন দশ রথ দিয়াছেন এবং তদনুরূপ শত্রুনাশক দর্শনীয় পুরুষও দিয়াছেন।

১০। হে নাসত্যদ্বয়! পুরুপম্বা তোমাদিগের স্তোতাকে শত ও সহস্ৰ অশ্ব দান করে। হে বীর অশ্বিদ্বয়! তিনি স্তুতিকারী ভরদ্বাজকে শীঘ্র দান করুন। হে বহু কৰ্ম্মবিশিষ্ট আশ্বিদ্বয়! রাক্ষসসমূহ হত হউক।

১১। হে অশ্বিদ্বয়! আমি যেন বিদ্বান ব্যক্তিগণের সহিত তোমাদিগের সুখাবহ ধনে পরিবেষ্টিত হই।

Share This