সুনীল গঙ্গোপাধ্যায় । Sunil Gangopadhyay

সুনীল গঙ্গোপাধ্যায় রচনাবলী, সুনীল গঙ্গোপাধ্যায়ের রচনাসমগ্র

সুনীল গঙ্গোপাধ্যায় – সাম্প্রতিক আপডেট

মধ্যরাত্রির নিরালায়

মধ্যরাত্রির নিরালায় মধ্যরাত্রির নিরালায় সন্ন্যাসী তাঁর মুখোশটি খুলে দেয়ালে ঝুলিয়ে রাখলেন তারপর শুতে গেলেন পাথুরে মেঝেতে তাঁর বিনা সাধনায় ঘুম এলো ক্রমশ তাঁর ওষ্ঠে ফুটে ওঠে স্নান, ছাইমাখা হাসি হাত দুটি বুকের ওপরে আড়াআড়ি রাখা এখন তিনি ঈশ্বরহীন প্রকৃত নিঃসঙ্গ। আকাশ-ছড়ানো...

একটি প্রার্থনা-সংগীত

একটি প্রার্থনা-সংগীত গরুদের জন্য দাও ঘাস জমি, খোলামেলা ঘাস জমি, চিকন সবুজ ওরা তো চেনে না কোনো রানাঘর, ওরা বড় ন্যাখ্যাপা অবোধ অবুঝ কুকুরের জন্য দাও কাঁচা মাংস, লাল মাংস, রক্তমাখা হাড় ওরা তো খায় না ঘাস, সবুজকে ঘেন্ন করে, ওরা চায় হাড়ের পাহাড় বাঘেরা বেচারি বড়, দিন দিন কমে...

মাত্র এই এক জীবনে

মাত্র এই এক জীবনে অনেক গোপন কথা আছে মাত্র এই এক জীবনে কিছুই হবে না বলা নদীর এক ধারে শুধু সারিবদ্ধ গাছ রুদ্ধবাক আমাদের দিনগুলি জলের ভেতরে জল তারও নিচে জল নোঙ্গুরের পাশাপাশি ছায়ার নির্মাণ, তারা ক্রমশই গাঢ় অনেক গোপন কথা আছে মাত্র এই এক জীবনে কিছুই হবে না বলা যেকথা তোমার...

মুহূর্তের অস্থিরতা

মুহূর্তের অস্থিরতা বারুদ রঙের এক বাড়ি, তার বারান্দায় শীতের রোদ্দুরে আমারই মনুষ্যদেহ। বাগানে অনেক ডালপালা, তার এক ডালে কুসুম ফোটেনি সেখানে আমার আত্মা। কখনো আমার হিম আত্মা এই নরদেহ চেয়ে চেয়ে দেখে। দেখার মতন দেখা। কখনো লৌকিক চোখ সুড়ঙ্গ দেখার মতো সরু চোখে আত্মার দর্শন...

কে?

কে? বাগানে কার পায়ের ছাপ? ফুল-ঘাতক কে? নদীর ধারে পথ হারানো একলা-মুখো কে? দৌড়ে হঠাৎ ভিড়ের মধ্যে লুকিয়ে গেল কে? বাঁ হাত ভরা প্রতিশ্রুতি, ডান হাতে ভয় কে? রিক্সাওয়ালার মাথার ওপর দাঁড়িয়ে নাচে কে? ফিরে আসবো বলেও আর ফিরে এলো না কে? সারাবছর স্বপ্ন দ্যাখে ছুটি চুরির কে? তোমার...

অন্য ভাষ্য

অন্য ভাষ্য প্রতিটি ব্যর্থ প্রেমই আমাকে নতুন অহংকার দেয় আমি মানুষ হিসেবে একটু উঁচু হয়ে উঠি দুঃখ আমার মাথার চুল থেকে পায়ের নোখ পর্যন্ত ছড়িয়ে যায় যেন ভোরের আলোয় নদীতে স্নানের মতন স্নিগ্ধ সমস্ত মানুষের চেয়ে আমি অন্য দিকে আমার আলাদা পথ আমার হাতে পৃথিবীর প্রথম ব্যর্থ...

সুনীল গঙ্গোপাধ্যায় - সূচীপত্র