কাকাবাবু আর বাঘের গল্প (২০০৯)

কাকাবাবু আর বাঘের গল্প (২০০৯) – কাকাবাবু ও সন্তু সমগ্র - সুনীল গঙ্গোপাধ্যায়

০১. বিকেলবেলা কাকাবাবু বাথরুমে

বিকেলবেলা কাকাবাবু বাথরুমে দাড়ি কামাচ্ছেন, সিঁড়ি দিয়ে লাফাতে লাফাতে হন্তদন্তভাবে উঠে এসে সন্তু ডাকল, কাকাবাবু, কাকাবাবু… আজকাল কাকাবাবু রোজ দাড়ি কামান না। আগে প্রত্যেকদিন সকালে দাড়ি কামিয়ে নিতেন দাঁত মাজার সঙ্গে সঙ্গে। এখন যেদিন বাড়ি থেকে বেরোবার দরকার না থাকে,...

০২. কর্নেল সরকার এসে পৌঁছোলেন

কর্নেল সরকার এসে পৌঁছোলেন ঠিক আধঘণ্টা পরে। তাঁর একটা জিপগাড়ি তিনি নিজেই চালান। বিয়ে করেননি, তাই তাঁর বউ-ছেলেমেয়ে কেউ নেই। একাই থাকেন, গান-বাজনার খুব শখ, তাতেই সময় কাটে। জোজো আর সন্তু এর মধ্যেই তৈরি হয়ে নিয়েছে। ওদের নিয়ে কাকাবাবু উঠলেন জিপে। তিনি বসলেন কর্নেলের পাশে,...

০৩. পুলিশের বড়কর্তার নাম সুলতান আলম

এই অঞ্চলের পুলিশের বড়কর্তার নাম সুলতান আলম। তাঁর চেহারাটা দেখার মতো। ছফুটের বেশি লম্বা, তেমনই স্বাস্থ্যবান, বেশ ফরসা গায়ের রং। তাঁর গোঁফটা কাকাবাবুর চেয়েও অনেক বেশি মোটা আর দুদিকে সূচলো, মাথার চুল থাক থাক করা। তাঁকে দেখলে ইতিহাস বইয়ের কোনও ছবির কথা মনে পড়ে। তিনি...

০৪. এখনও ভাল করে আলো ফোটেনি

এখনও ভাল করে আলো ফোটেনি। ঠিক যেন একটা পাতলা চাঁদরের মতো অন্ধকার গুটিয়ে যাচ্ছে আস্তে আস্তে। জেগে উঠছে পাখিরা। কতরকম ডাক তাদের। ছোট্ট ছোট্ট পাখিগুলো কী জোর শিস দিতে পারে। একটু একটু করে স্পষ্ট হচ্ছে গাছপালা। কাল সারাদিন বৃষ্টিতে ভিজে গাছগুলো আজ একেবারে পরিষ্কার,...

০৫. বাঘিনিটা সত্যিই বাঘিনি

বাঘিনিটা সত্যিই বাঘিনি। তার একটা পা খোঁড়া। বয়সও হয়েছে যথেষ্ট। দৌড়ে জঙ্গলের প্রাণী ধরার ক্ষমতা আর নেই বলেই সে মানুষের বসতিতে হানা দিতে শুরু করেছিল। ঘুমন্ত অবস্থায় তাকে জালে বেঁধে বনবিভাগের লোকেরা নিয়ে চলে গেল। কোনও চিড়িয়াখানায় চালান করে দেওয়া হবে। কিন্তু মানুষের...

০৬. এরপর তিনদিন কেটে গিয়েছে

এরপর তিনদিন কেটে গিয়েছে। কাকাবাবুদের এবার কলকাতায় ফিরতে হবে। এর মধ্যে ছেলেটার অনেকটা পরিবর্তন হয়েছে। আরও দু-তিনবার পালাবার চেষ্টা করেছে বটে। কিন্তু বেশি দূর যেতে পারেনি। এখন ওর একটা হাত দড়ি দিয়ে শক্ত করে বাঁধা, সেই দড়ির আর-একটা দিক বাঁধা সন্তুর বাঁ হাতে। সেই দড়ির গিঁট...

০৭. খানিক পরে এসে পৌঁছোলেন কর্নেল

খানিক পরে এসে পৌঁছোলেন কর্নেল। তাঁর হাতে একটা টিফিন ক্যারিয়ার। বারান্দায় উঠে টেবিলের উপর রাখলেন সেটা। কাকাবাবু আবার বই নিয়ে বসেছেন, মুখ তুলে বললেন, আসুন, কর্নেল। কর্নেল বললেন, বাড়ি থেকে মান দোপিঁয়াজা বানিয়ে এনেছি। একটুও ঝাল নেই। দেখতে হবে, ছেলেটা খেতে পারে কি না। সে...

০৮. কাকাবাবুর ঘরে দুজন ফরসা বিদেশি

কলেজ থেকে ফিরে সন্তু দেখল, কাকাবাবুর ঘরে দুজন ফরসা বিদেশি বসে আছেন, বেশ লম্বা-চওড়া চেহারা। নিশ্চয়ই কোনও দেশ থেকে কাকাবাবুকে আমন্ত্রণ জানাতে এসেছেন। এরকম আজকাল আসছে অনেকেই। কাকাবাবু সহজে যেতে চান না। বিদেশে তাঁর থাকতে ইচ্ছে করে না বেশি দিন। সন্তুর আজ ব্যাডমিন্টন...