মৃত্যুখনি

মৃত্যুখনি - তিন গোয়েন্দা - রকিব হাসান

০১. দুই সুড়ঙ্গের ঢাকনা তুলে

এই যে, কিশোর, দুই সুড়ঙ্গের ঢাকনা তুলে উঁকি দিয়েই বলল মুসা আমান, জানন, কার সঙ্গে দেখা হয়েছে? মুসার পেছনে হেডকোয়ার্টারে ঢুকল রবিন মিলফোর্ড। হেডকোয়ার্টার মানে পুরানো বাতিল একটা ট্রেলার-মোবাইল হোম, পাশা স্যালভিজ ইয়ার্ডের পাহাড় প্রমাণ লোহালকড়ের জঞ্জালের তলায় চাপা পড়েছে...

০২. টুইন লেকস

ওই যে, টুইন লেকস, ঘোষণা করলেন মিস্টার উইলসন। বড় একটা এয়ার-কণ্ডিশনড স্টেশন ওয়াগনে করে অ্যারিজোনা মরুভূমি পাড়ি দিচ্ছে ওরা। দক্ষিণ-পশ্চিমে মাথা চাড়া দিচ্ছে নিউ মেকসিকোর পাহাড়শ্রেণী। পেছনের সীটে বসে উৎসুক হয়ে জানালা দিয়ে দেখছে ছেলেরা। পাকা, চওড়া সড়কের শেষ মাথায় রুক্ষ...

০৩. শান্তির রাজ্যে স্বাগতম

শান্তির রাজ্যে স্বাগতম। বেদম হাসিতে দুলছে জিনা। বিকেলের শান্ত নীরবতা ধীরে ধীরে নেমে এল আবার র‍্যাঞ্চ হাউসে। উঠে দাঁড়িয়ে চোখ মিটমিট করল মুসা। খাইছিল! কি ওটা? কিছু না, টিটকারির ভঙ্গিতে বলল জিনা, বিশিষ্ট ভদ্রলোক জনাব হ্যারি ম্যাকআরবারের শিকারী কুকুর, মুরগী চুরির তালে...

০৪. আরও কয়েকটা কেক

আরে আরও কয়েকটা কেক নাও না, রান্নাঘরে লম্বা টেবিলের কিনার থেকে বলে মৃত্যু খনি উঠল ডিকি। খুব ভাল জিনিস, জ্যাম মেশানো। মাথা নাড়ল কিশোর, না আর পারব না। অনেক খেয়েছি। ভুরু কোঁচকাল ভিকি। অনেক খেয়েছ মানে? দিয়েছিই তো এই কটা। এজন্যেই এমন পাকাটির মত শুকনো, হাড় জিরজিরে। ওই...

০৫. পরদিন সকালে বেলা করে ঘুম ভাঙল

পরদিন সকালে বেলা করে ঘুম ভাঙল কিশোরের। জানালা দিয়ে বাইরের উজ্জ্বল রোদের দিকে চেয়ে গত রাতের কথা মনে পড়ল, সব কিছু এখন হাস্যকর মনে হলো। কাপড় পরে নেমে পড়ল, এল নিচে রান্নাঘরে। মুসা আর রবিন খাচ্ছে। টেবিলের এক মাথায় বসে আছেন উইলসন। ভিকি গরম কেক নামিয়ে বেড়ে দিচ্ছে টেবিলে।...

০৬. জবাবে শুধুই চিৎকার

জিনা? কি হয়েছে, জিনা? ডেকে জিজ্ঞেস করল কিশোর। জবাবে শুধুই চিৎকার। মাথা খারাপ হয়ে গেছে যেন জিনার। মরছে নাকি! আলো হাতে পাশ দিয়ে ছুটে চলে গেল ম্যাকআরখার, করিডরে গিয়ে ঢুকল। পেছনে গেল ছেলেরা। মস্ত এক কালো খাদের পাড়ে দাঁড়িয়ে চেঁচাচ্ছে জিনা। আরেক পা এগোলেই যেত পড়ে গর্তের...

০৭. কিন্তু যেতে দিলেন না

কিন্তু যেতে দিলেন না উইলসন, স্রেফ মানা করে দিলেন। উপরন্তু তিন গোয়েন্দাকে নিয়ে গিয়ে লাগিয়ে দিলেন গাছ ছাঁটার কাজে, কড়া নির্দেশ দিয়ে রাখলেন, ডিনারের আগে কতখানি জায়গার গাছ ছাঁটতে হবে। বাড়িতে একা একা বসে আঙুল চোষা ছাড়া আর কিছু করার থাকল না জিনার। পর দিন সকালে মেজাজ ভাল হয়ে...

০৮. শেষ বিকেলে বাড়ি ফিরল ওরা

শেষ বিকেলে বাড়ি ফিরল ওরা। বারান্দায় অস্থির ভাবে পায়চারি করছেন উইলসন। গাড়ি বারান্দায় তিনটে গাড়ি। জটলা করছে কয়েকজন লোক, কিছু বোঝানোর চেষ্টা করছে। কারও সঙ্গে কথা বলবে না আমার ভাস্তি, রাগ করে বললেন উইলসন। এমনিতেই ও বদমেজাজী, তার ওপর এই ঘটনায় মেজাজ আরও খারাপ হয়ে...

০৯. সঙ্গে করে এক যুবক সহকারী

সঙ্গে করে এক যুবক সহকারীকে নিয়ে এসেছেন শেরিফ, নাম ডিক। সব কথা মন দিয়ে শুনল ওরা, তার পর জোরাল একটা টর্চ নিয়ে চোর খুঁজতে বেরোল। ক্রিস্টমাস খেতে পায়ের ছাপ পাওয়া গেল, মুসা যেখানে দাঁড়িয়েছিল তার কাছেই। ম্যাকআরবারের সীমানার ভেতরে অন্য অনেকগুলো ছাপের সঙ্গে গিয়ে মিশেছে। চোরের...

১০. লর্ডসবুর্গে পোস্ট অফিসের সামনে

লর্ডসবুর্গে পোস্ট অফিসের সামনে গাড়ি পার্ক করলেন উইলসন। স্যান জোসেতে চারার অর্ডার দিয়েছিলাম, বললেন তিনি। ওগুলো ডেলিভারি নিয়ে বিল্ডারস সাপ্লাই কোম্পানিতে যাব, কাজ আছে। ঠিক একটায় এখানে থাকব, তোমরাও থেকো। লাঞ্চ সেরে তারপর বাড়ি রওনা হব। চাচা, ওদের সঙ্গে আমি যাই? জিনা...

১১. বিকেল নাগাদ র‍্যাঞ্চে ফিরে

বিকেল নাগাদ র‍্যাঞ্চে ফিরে এল ওরা। গাড়ি থেকে মালপত্র নামাতে উইলসনকে সাহায্য করল ছেলেরা। চারাগুলোকে গোলাঘরের কাছে রেখে পানি দিয়ে ভিজিয়ে রাখল। বাড়ির ভেতরে চলে গেছেন উইলসন। মিসেস ফিলটারের বাড়ির দিকে তাকাল কিশোর। ডেথ ট্র্যাপ মাইনের কথা আর সবার চেয়ে ওই মহিলাই বেশি বলতে...

১২. র‍্যাঞ্চ হাউসে ফিরে এল ওরা

র‍্যাঞ্চ হাউসে ফিরে এল ওরা। দু-হাতে পাজাকোলা করে খবরের কাগজের গাদা নিয়ে এসেছে রবিন। কেন এনেছ এগুলো? মুসা জিজ্ঞেস করল। ইতিহাসে ডক্টরেট নেবে নাকি? থিসিস লিখবে? আর আমাকেই বা চুপ করিয়ে দিয়েছিলে কেন তখন? জিনা অনুযোগ করল। কারও কথারই জবাব না দিয়ে রবিন বলল, বেশির ভাগ কাগজই দা...

১৩. পরদিন সকালে রান্নাঘরে নাস্তা

পরদিন সকালে রান্নাঘরে নাস্তা সারল ছেলেরা। তাদের সঙ্গে রয়েছে কেবল জিনা। গভীরভাবে কি যেন ভাবছে কিশোর, তার আনমনা ভাব দেখেই বোঝা যায়। নিজের প্লেটের দিকে চেয়ে জিনাকে বলল, ফিনিক্সে মিসেস ফিলটার যে দোকানে কাজ করতেন, দোকানটার নাম জানো? সেটা জেনে তোমার কোন লাভ নেই, কড়া গলায়...

১৪. খাবার গুছিয়ে দিতে কার্পণ্য করল না

খাবার গুছিয়ে দিতে কার্পণ্য করল না ভিকি। স্যাডল ব্যাগে সেগুলো ঠেসে ভরে নিতে হলো অভিযাত্রীদের। খাবার গরম করার সময় খুব সাবধান, হুঁশিয়ার করে দিল ভিকি। পুরো পূর্বতটা জ্বালিয়ে এসো না আবার, বারান্দায় দাঁড়িয়ে হাত নেড়ে বিদায় জানাল সে। জিনা চড়েছে তার প্রিয় অ্যাপলুসায়। কিশোরেরটা...

১৫. খাবার গরম করে খেয়ে

খাবার গরম করে খেয়ে আবার ঘোড়ায় চড়ল ওরা। গতি ধীর। রাস্তা খুব খারাপ, পিছলে পড়ে হাড়গোড় ভাঙার ইচ্ছে নেই কারও। কাছাকাছি রয়েছে ওরা। প্রাণের ভয় সবারই আছে, জানোয়ারগুলোও তাই খুব সর্তক, কিশোরের হোতকাটাও আর ঘাসের লোভ করছে না এখন। বিশ্বাস হচ্ছে না, এক সময় বলল কিশোর। মিসেস ফিলটারের...

১৬. একের পর এক বোমা ফাটতে লাগল

একের পর এক বোমা ফাটতে লাগল, বাজ পড়ার মত প্রচণ্ড শব্দে কানে তালা লেগে যাবার জোগাড়। এক সময় থামল সেটা। পাহাড়ে পাহাড়ে প্রতিধ্বনির রেশ মিলাতে আরও কয়েক সেকেন্ড লাগল। হুমড়ি খেয়ে পড়তে পড়তে কোনমতে খনি থেকে বেরিয়ে এল ছেলেরা। খনিমুখের চারপাশে পোড়া কাঠ আর জ্বলন্ত অন্যান্য জিনিস।...

১৭. সঙ্গে নেয়ার অনুরোধ

সঙ্গে নেয়ার অনুরোধ জানাল কিশোর আর রবিন। হেসে মাথা ঝাঁকাল হেলিকপ্টারের পাইলট জ্যাক বোরম্যান। তোমাদের যাওয়া ঠিক হচ্ছে না, বললেন শেরিফ। গোলাগুলি চলতে পারে। বললেন বটে, কিন্তু সরে দাঁড়িয়ে ছেলেদেরকে ওঠার জন্যে জায়গাও ছেড়ে দিলেন। পাইলট আর প্যাসেঞ্জার সিটের মাঝের ছোট্ট পরিসরে...

১৮. জিনা আর মুসা যেখানে রয়েছে

জিনা আর মুসা যেখানে রয়েছে, তার থেকে অনেক ওপরে বসে কিশোর আর রবিন দেখল, পর্বতের চূড়া লাল হয়ে উঠছে ভোরের কাঁচা রোদে। সুইচ টিপে সার্চ লাইট নিভিয়ে দিয়ে বড় করে হাই তুললেন শেরিফ। সারা রাত জেগে থেকে চোখ লাল। নড়েচড়ে বসল বোরম্যান। সারারাত পাহাড়ের ওপরে আকাশে চক্কর দিয়েছে,...

১৯. ঠিকই অনুমান করেছে জিনা

ঠিকই অনুমান করেছে জিনা। বেশি দূর যেতে পারেনি হ্যারি আর বিংগো। এক ঘণ্টা পরই ওদেরকে হাতকড়া পরা অবস্থায় নামানো হলো ম্যাকআরবারের কেবিনের সামনে উঠানে। দুপাশে পাহারায় রইল পাইলট বোরম্যান আর শেরিফের সহকারী। করুণ অবস্থা হয়েছে দুই ডাকাতের। রোদে পোড়া, চামড়া, জায়গায় জায়গায় ফোঁসকা...

২০. উজ্জ্বল হলো মিসেস ফিলটারের চোখ

উজ্জ্বল হলো মিসেস ফিলটারের চোখ। তাড়াতাড়ি ফিরে গিয়ে একটা মই এনে গর্তে নামলেন শেরিফ। ইস্, খুব কষ্ট পেয়েছি, মুখ থেকে রুমাল সরাতেই বললেন মিসেস ফিলটার। আমি তো ভাবছিলাম আর বুঝি কেউ আসবেই না। হাত-পায়ের বাঁধন খুলে দিতেই স্বচ্ছন্দে উঠে দাঁড়ালেন তিনি। বাঁধা জায়গাগুলো বার কয়েক...