বাক্সটা প্রয়োজন

বাক্সটা প্রয়োজন – তিন গোয়েন্দা – প্রথম প্রকাশ: মে, ১৯৯০

০১. মালয়ী কিরিচ

বাবারে! বলে উঠল রবিন মিলফোর্ড। একেবারে আসল মালয়ী কিরিচ! কিশোর পাশা আর মুসা আমানকে জিনিসটা দেখাল সে। চোখ চকচক করছে। বাড়ি থেকে মাইল কয়েক দূরের এক রোড সাইড মিউজিয়মে রয়েছে ওরা। আঙুল দিয়ে কিরিচের ধার পরখ করল মুসা। বিজ্ঞের ভঙ্গিতে মাথা ঝাঁকাল কিশোর। প্রাচীন আমলে ঈস্ট...

০২. দীর্ঘ একটা মুহূর্ত পাথর হয়ে রইল

দীর্ঘ একটা মুহূর্ত পাথর হয়ে রইল যেন সবাই। দেয়ালে থিরথির করে কাঁপছে। ছুরির হাতল। কিশোরের কাছে ছুটে গেলেন মেরিচাচী। উদ্বিগ্ন কণ্ঠে প্রায় ককিয়ে উঠলেন, এই, লাগেনি তো কোথাও! কিশোর? মাথা নাড়ল কিশোর। দাঁড়িয়ে থাকতে পারছে না যেন, ধপ করে গিয়ে বসে পড়ল একটা পুরানো বেঞ্চে। বড়...

০৩. মাল নামাতে নামাতে দুপুর

মাল নামাতে নামাতে দুপুর। তদারকি রেখে যেতে পারছিলেন না মেরিচাচী, নামানো শেষ হলে রান্নাঘরে চললেন খাবার তৈরি করতে। এই সুযোগে ছেলেরা ফিরে এল পুরানো বাক্সের কাছে। হেডকোয়ার্টারে নিয়ে পরীক্ষা করতে হবে, কিশোর বলল। তোমরা দুজনে আন। আমি যাই, কাজ আছে। কাউকে প্রতিবাদ করার সুযোগ না...

০৪. লাফিয়ে উঠল কিশোর

লাফিয়ে উঠল কিশোর। পিছিয়ে গেল জঞ্জালের কাছে। বরফের মত জমে গেছে যেন মুসা আর রবিন। পায়ে পায়ে কিশোরের দিকে এগোল টিক। বইটা শক্ত করে বুকের ওপর চেপে ধরেছে কিশোর। মুসা! চেঁচিয়ে উঠল সে। পরিকল্পনা এক! পাই করে অন্য দুজনের দিকে ঘুরল টিক। খবরদার! কোন চালাকি নয়! দাড়িওয়ালা নাবিকের...

০৫. সুন্দর দিন

সুন্দর দিন। আবহাওয়া ঠাণ্ডা। কিন্তু সাইকেল চালিয়ে পর্বতের পাশের রাস্তায় যখন পৌঁছল তিন গোয়েন্দা। তেতে উঠেছে সূর্য। ওই যে,। কপালের ঘাম মুছল মুসা। ফ্যান্টম লেক রোড। দেখ, সোজা পর্বতের ভেতরে ঢুকে গেছে। আর কি খাড়া, গুঙিয়ে উঠল কিশোর চালাতে তো পারবই না, ঠেলে নিতে হবে সাইকেল।...

০৬. আরেকটা জার্নাল

আরেকটা জার্নাল? চেঁচিয়ে উঠল এড। এসব কি? চালাকি হচ্ছে, না? ধমক দিল ডিনো। কিশোরের হাত থেকে জার্নালটা নিলেন মিসেস ডাই। ধীরে ধীরে কয়েক পাতা ওল্টালেন। না, ডিনো, চালাকি করছে না। বাওরাড ডাইয়ের হাতের লেখা, কোন সন্দেহ নেই। সইও এক। ছেলেদের দিকে তাকালেন। কোথায় পেয়েছ? কোথায়,...

০৭. লাঞ্চের পর পরই বেরিয়ে গেল ডিনো

লাঞ্চের পর পরই বেরিয়ে গেল ডিনো। বলে গেল, পথের ধারে পাইন গাছের কিছু ডাল ছাঁটতে যাচ্ছে। ছেলেরা আর মিসেস ডাই ফিরে এলেন লিভিংরুমে। দ্বিতীয় জার্নাল থেকে সূত্র বের করায় মনোযোগ দিল। একটা কথা মনে রাখতে হবে, বক্তৃতার ঢঙে শুরু করল কিশোর। জার্নাল ঠিক ডায়েরী নয়, কিছুটা আলাদা।...

০৮. প্রচণ্ড শব্দ

প্রচণ্ড শব্দ। আবার গুলি করল লোকটা। ছাই হয়ে গেছে মুসার চেহারা। আতঙ্কে চোখ বন্ধ করে ফেলেছে। ককিয়ে উঠল, আমি…আমি কি..গুলি খেয়েছি? চোখ মেলল সে। অন্যদের অবস্থাও কমবেশি তারই মত। মিস করেছে! রবিন বলল। আসলে…আসলে আমাদের ভয় দেখাতে চেয়েছে, বলল এড। আবার বুনো হাসি হেসে...

০৯. শেষ বিকেল

শেষ বিকেল। আগে আগে চলেছেন প্রফেসর, পেছনে ছেলেরা। উপত্যকার প্রতিটি ফুট পরীক্ষা করে দেখে এসেছে ওরা, ছোট পাহাড়টারও অর্ধেকটা। সম্ভাব্য সমস্ত দিক থেকে খুঁটিয়ে দেখা হয়েছে পুকুরটাকে, ফ্যান্টম লেক। উত্তেজিত প্রফেসরের সঙ্গে প্রায় দৌড়ে দৌড়ে তিনবার চক্কর দিয়েছে ওরা পুরো বাড়িটা।...

১০. রকি বীচ বন্দরের ওপর কুয়াশা

রকি বীচ বন্দরের ওপর কুয়াশা যেন ঝুলে রয়েছে। সাইকেল চালিয়ে এসে দেখল তিন গোয়েন্দা, হাজির রয়েছে এড, ওদেরই অপেক্ষা করছে। সাইকেল তুলে নিয়েছে প্রফেসরের বোটে। আঠাল ঠাণ্ডা গায়ে কাঁপুনি তুলে দিয়েছে তার। তিন গোয়েন্দাকে দেখে হাসল এড। সারারাত ধরে ভেবেছি, বুঝেছ। আমি শিওর, নৌকা...

১১. দৌড়ে এল সবাই

দৌড়ে এল সবাই। চোখ বন্ধ করে চিৎকার করছে এড। ইতিমধ্যে পাতলা হয়ে গেছে কুয়াশা। রবিন বলল, ভূত দেখলে কোথায়? ওটা তো গাছ। চোখ মেলল এড। সত্যিই। কুঁজো ভূতটা একটা বাঁকা সাইপ্রেস। ডালগুলো কাণ্ডের দুপাশে এমনভাবে বেঁকে আছে, যেন হাত। তার ওপরে অনেকখানি গায়েব, ছিঁড়ে নিয়ে গেছে ঝড়।...

১২. যার যার বাড়িতে লাঞ্চ সারল ওরা

যার যার বাড়িতে লাঞ্চ সারল ওরা। তারপর স্যালভিজ ইয়ার্ডে মিলিত হল তিন গোয়েন্দা। ট্রাক বের করে অপেক্ষা করছিল কিশোর আর বোরিস, মুসা আর রবিন এলে রওনা হল। ডাই লজ-এর সিঁড়িতে ওদের অপেক্ষায়ই দাঁড়িয়েছিল এড, ট্রাকটা দেখে দৌড়ে এল। তার মা কোথায় জিজ্ঞেস করল কিশোর। বাড়ির পেছনে কাঠ...

১৩. পাথরের ছাউনি

পাথরের ছাউনি, পুড়বে না, শুধু কাঠগুলো ছাড়া। ভেতরে ঘন ধোঁয়া। ফায়ার এক্সটিংগুইশারের জন্যে দৌড় দিল এড। জ্যাকেট খুলে তৈরি রইল রবিন আর মুসা। এড ফিরতেই তার সঙ্গে সাবধানে ঢুকল ভেতরে। আলগা কাঠ রাখা ছিল, বলল এড। ওগুলোতে লেগেছে। বাইরে দাঁড়িয়ে কিশোর, প্রফেসর আর মিসেস ডাই শুনছেন...

১৪. তাগাদা দিল কিশোর

আরও তাড়াতাড়ি, বোরিসভাই, তাগাদা দিল কিশোর। ভেব না, তাড়াতাড়িই পৌঁছুব। আরও বেশি তাড়াতাড়ি করতে গেলে হয়ত পৌঁছুঁতেই পারব না কোনদিন, অ্যাক্সিডেন্ট করে মরব। নিচের ঠোঁট কামড়ে ধরে আবার সিটে হেলান দিল কিশোর। বাওরাড ডাইয়ের দ্বিতীয় জার্নালটা পড়তে পড়তে মুখ তুলল এড। কিশোর, বাওরাড...

১৫. কিশোররা যখন সান্তা বারবারায় পৌঁছেছে

কিশোররা যখন সান্তা বারবারায় পৌঁছেছে, প্রায় একই সময় মুসা আর রবিনও পৌঁছুল ড্যানিয়েল ব্রাদার্সদের অফিসের সামনে। একটা ট্রাকে ইট তুলছে বাদামী চামড়ার এক লোক। ছেলেরা জানাল, কি জন্যে এসেছে। হাতের উল্টো পিঠ দিয়ে কপালের ঘাম মুছল সে। হাসল। বিখ্যাত ড্যানিয়েল ব্রাদার্স? একজন ছিল...

১৬. ফোকর দিয়ে তেরছা হয়ে রোদ

ফোকর দিয়ে তেরছা হয়ে রোদ এসে পড়েছে খোলে। বেশ কয়েকবার জোরে জোরে চিৎকার করে ক্ষান্ত দিয়েছে কিশোর আর এড, লাভ হয়নি। ভেজা দেয়ালে হেলান দিয়ে বসেছে এখন গলুইয়ের দিকটায়। মাঝে মাঝে শঙ্কিত চোখে তাকাচ্ছে বাড়ন্ত জোয়ারেরঞ্জলের দিকে। একটু একটু করে উঠে আসছে ওদের কাছে। আর কতক্ষণ লাগবে,...

১৭. আড়তে কোথাও বাতি দেখা গেল না

আড়তে কোথাও বাতি দেখা গেল না। শুধু তারার আলোয় আবছা মত চকচক করছে পাথরগুলো। গর্তের নিচে কালো অন্ধকার। সাইকেল দুটো ডিনো আগে দেখল। এখানেই রেখে গিয়েছিলাম ওদের। ওরা এখানেই কোথাও আছে। নইলে সাইকেল থাকত না। টর্চের আলোয় পাহাড়ের কাটা ধাপগুলোকে মনে হল যেন কোন দানবের সিঁড়ি। গর্তের...

১৮. খাওয়ার পর কথা বলার জন্যে

খাওয়ার পর কথা বলার জন্যে সবাই এসে বসল লিভিংরুমে। টিক আর নোবল একসঙ্গে কাজ করছে, প্রফেসর বললেন। এখন ব্যাপারটা পরিষ্কার। প্রমাণ করতে পারব না, স্যার চিন্তিত ভঙ্গিতে নিচের ঠোঁটে চিমটি কাটল কিশোর। যাক, সেটা পরে দেখা যাবে। আগে, ধাধা রহস্যের সমাধান হয় কিনা দেখি। বোঝাই যাচ্ছে,...

১৯. ফোন করল কিশোর

কাপড় পরে মুসা আর রবিনকে ফোন করল কিশোর। পনের মিনিটের মধ্যে ইয়ার্ডে পৌঁছতে বলল। আমি একটা গাধা! বিড়বিড় করল সে। আস্ত গর্দভ! অনেক আগেই বোঝা উচিত ছিল। এডকে ফোন করল। সে ধরতেই বলল, এড? গুপ্তধন কোথায়, জানি। গাইতি, বেলচা আর রেনকোট নিয়ে তৈরি থাক। আমরা আসছি। নিচে নেমে তাড়াতাড়ি...

২০. বৃষ্টির মধ্যেই পুকুরটার দিকে

বৃষ্টির মধ্যেই ওদেরকে পুকুরটার দিকে যেতে দেখলেন মিসেস ডাই। প্রফেসরের কাঁধে গাঁইতি, বেলচা। ডেকে বললেন, এড, সাবধানে থাকিস, বেশি ভিজিস না। মাথা ঝাঁকিয়ে সায় জানাল ছেলেরা। দ্রুত ঝোপঝাড়ের ভেতর দিয়ে এসে দাঁড়াল পুকুরের পাড়ে। পানিতে পড়ে থাকা মসৃণ পাথরগুলো মৃদু চকচক করছে, এগুলো...