গোলাপী মুক্তো

গোলাপী মুক্তো - তিন গোয়েন্দা সিরিজ - সেবা প্রকাশনী। প্রথম প্রকাশ : জানুয়ারি, ১৯৯১

০১. ভাল্লাগছে না কিছু

এই জিনা, মা বললেন, কি হয়েছে তোর? এরকম করছিস কেন? জিনিসপত্র গোছাতে দিবি না নাকি? ভাল্লাগছে না কিছু! কিছু একটা করার চেষ্টা কর গিয়ে, তাহলেই ভাল লাগবে। কি করব? আকাশের যা অবস্থা, বাইরে বেরোতে পারলে তো। বৃষ্টি আর বৃষ্টি, জানালা দিয়ে বাইরে তাকাল সে। ওই দেখ, আবার নেমেছে।...

০২. ছেলেমেয়েদেরকে নিয়ে বেরোলেন

ছেলেমেয়েদেরকে নিয়ে বেরোলেন মিসেস পারকার। ঘুরে ঘুরে শহর দেখলেন, কেনাকাটা করলেন বড়দিনের জন্যে, উপহার কিনলেন। পরের দিনও একইভাবে কাট। তার পরের দিন সকালে উঠে জিনার মা বললেন, রাস্তার মোড়ে একটা সিনেমা হল আছে না? তাতে ডিজনির একটা ছবি চলছে। বিকেলে যাবি নাকি দেখতে? আমি অবশ্য...

০৩. হাতের তালুতে হারটা রেখে

হাতের তালুতে হারটা রেখে আঙুল বুলিয়ে দেখছেন মিসেস পারকার। খুব অবাক হয়েছেন। হালকা গোলাপী রঙ মুক্তাগুলোর। আসলই মনে হয়, বললেন তিনি। এক্সপার্টকে দেখাতে হবে। আসল হলে অনেক দাম, তাই না, মা? হ্যাঁ। ওটার মালিক এখন কে? নিশ্চয় তুমি? তাই তো হওয়ার কথা, জবাবটা দিল কিশোর। চেয়ারটা...

০৪. বাড়িতে ঢোকার মুখে

বাড়িতে ঢোকার মুখে একটা হলঘর। ঝাট দিচ্ছে একজন লোক। ছেলেমেয়েদের পথ আটকাল। কর্কশ গলায় জিজ্ঞেস করল, কি চাই? এখানকার কেয়ারটেকার কে? জানতে চাইল কিশোর। আমি। বল। লোকটা মোটেই আন্তরিক নয়। আচ্ছা, মিসেস ব্যানার কোন ফ্ল্যাটে থাকেন, বলতে পারবেন? মিসেস ব্যানার? তিনি তো নেই। কয়েক...

০৫. রাফিয়ানকে শব্দ না করার ইঙ্গিত

মাথায় হাত রেখে রাফিয়ানকে শব্দ না করার ইঙ্গিত করল জিনা। তারপর পা টিপে টিপে এগোল সিটিং রুমের দিকে। ও জানে, ফ্ল্যাটে কোথাও না কোথাও বার্গলার অ্যালার্ম রয়েছেই, থাকে এসব বাড়িতে। তাহলে বেজে উঠছে না কেন? হয়ত অফ করা রয়েছে। আস্তে দরজা ফাঁক করে উঁকি দিল জিনা। টর্চের আলো চোখে...

০৬. আবার কল্পনা করছ তুমি

আবার কল্পনা করছ তুমি, মুসা বলল। ও কিভাবে জানবে…? ঘন্টার শব্দে থেমে গেল সে। দরজা খুলে দিতে ঘরে ঢুকল এরিনা আর মলি। গিয়ে ওদেরকে এগিয়ে আনলেন কেরিআন্টি। কুশল বিনিময় করলেন। তারপর ওদেরকে বসতে দিয়ে চলে গেলেন শোবার ঘরে। নীল বাক্সটা বের করে এনে তুলে দিলেন এরিনার হাতে।...

০৭. পাওয়া গেল টনিকে

পাওয়া গেল টনিকে। কিশোরকে ঘিরে এল সবাই। টনি, কিলোর বলল, আমি কিশোর পাশা, তোমার দাদার বাসায় দেখা হয়েছিল, মনে আছে? শোনো, তোমার সাহায্য দরকার। গাড়িটা নিয়ে আসতে পারবে? দশ মিনিটের মধ্যে?…গুড। খুব জরুরি।…এলে সব বলব। ঠিকানা বলে রিসিভার নামিয়ে রাখল সে। বন্ধুদেরকে...

০৮. দোকান বন্ধ হওয়ার সামান্য আগে

দোকান বন্ধ হওয়ার সামান্য আগে এগিয়ে গেল মুসা। সাবধানে উঁকি মেরে দেখে নিল, দোকানে কোন খদ্দের আছে কিনা। তারপর ঢুকে পড়ল ভেতরে। কয়েক গজ দূরে একটা বিজ্ঞাপনের বোর্ডের ওপাশে লুকিয়ে বসে রইল জিনা, রবিন আর রাফিয়ান। কিশোর মুসার পেছন পেছন এসেছে। জানালা দিয়ে উঁকি মেরে দেখতে লাগল...

০৯. আমার বোনের জন্যে

আমার বোনের জন্যে, বুঝেছেন, বলল আমেরিকান কিশোরের ছদ্মবেশধারী কিশোর। ছোট বোনের জন্যে কিনতে চাই। ভাল কি আছে আপনার দোকানে? জানালার দিকে তাকাল সে। আর মাত্র দুটো বাক্স অবশিষ্ট রয়েছে। অনেক কিছুই আছে, ইয়াং ম্যান, হেসে বলল ম্যাকি। কিশোরের লা লালচে চুলের দিকে তাকাল। এই যে দেখ,...