ইসলাম পরিচিতি

অধ্যায় ০১ : ইসলাম শব্দটির অর্থ ও কুফরের অনিষ্টকারিতা

ইসলাম ইসলাম নামকরন কেন দুনিয়ায় যত রকম ধর্ম রয়েছে তার প্রত্যেকটির নামকরণ হয়েছে কোন বিশেষ ব্যক্তির নামে। অথবা যে জাতির মধ্যে তার জন্ম হয়েছে তার নামে। যেমন, ঈসায়ী ধর্মের নাম রাখা হয়েছে তার প্রচারক হযরত ঈসা (আ)- এর নামে। বৌদ্ধ ধর্ম মতের নাম রাখা হয়েছে তার প্রতিষ্ঠাতা...

অধ্যায় ০২ : ঈমান ও আনুগত্য

ঈমান ও আনুগত্য আনুগত্যের জন্য জ্ঞান ও প্রত্যয়ের প্রয়োজন আগের অধ্যায়ের আলোচনা থেকে জানা গেছে যে, আল্লাহর আনুগত্যের নামই হচ্ছে ইসলাম। এখন আমি বলব যে মানুষ ততোক্ষন পর্যন্ত আল্লাহ তা’য়ালার আনুগত্য করতে পারে না, যতোক্ষণ না সে কতগুলো বিশেষ জ্ঞান লাভ করে এবং সে জ্ঞান...

অধ্যায় ০৩ : পয়গম্বরীর সংক্ষিপ্ত ইতিহাস

নবুয়াত আগের অধ্যায় তিনটি বিষয় আলোচিত হয়েছেঃ প্রথমত , আল্লাহ তা’য়ালার আনুগত্যের জন্য প্রয়োজন হচ্ছে আল্লাহর সত্তা ও গুণরাজি , তাঁর মনোনীত জীবন পদ্ধতি এবং আখেরাতের সুকৃতির প্রতিদান ও দুষ্কৃতির প্রতিফল সম্পর্কে নির্ভুল জ্ঞান এবং সে জ্ঞানকে এমন পর্যায় পর্যন্ত এগিয়ে নিতে...

অধ্যায় ০৪ : হযরত মুহাম্মাদ (সা) -এর নবুয়াত (প্রমান ও অন্যান্য…)

হযরত মুহাম্মাদ (সা) -এর নবুয়াত এমন এক সময় এলো , যখন সারা দুনিয়ার ও মানব জাতির সকল কওমের জন্য এক পয়গাম্বর অর্থাৎ হযরত মুহাম্মাদ (সা) -কে আল্লাহ তা’য়ালা আরব দেশে পয়দা করলেন এবং তাঁকে ইসলামের পূর্ণ শিক্ষা ও পূর্ণাঙ্গ বিধান দান করে তা সারেজাহানে প্রচার করার মহাকর্তব্যে...

অধ্যায় ০৫ : ঈমানের বিবরণ

ঈমানের বিবরণ আগের অধ্যায়সমূহে যা বলা হয়েছে আরো সম্মুখে অগ্রসর হবার আগে একবার খতিয়ে দেখা প্রয়োজনঃ একঃ ইসলাম বলতে যদিও বুঝায় আল্লাহর আনুগত্য ও তার আদেশের অনুবর্তিতা , তথাপি আল্লাহর সত্তা ও গুণাবলী তার ইচ্ছা ও মর্জি অনুযায়ী জীবন যাপনের পদ্ধতি এবং আখেরাতের পুরস্কার ও...

অধ্যায় ০৬ : লা-ইলাহা ইল্লাল্লাহ ’-র প্রকৃত তাৎপর্য ও মানব জীবনে এর প্রভাব

আল্লাহর প্রতি ঈমান হযরত মুহাম্মাদ (সা)- এর সর্বপ্রথম ও সর্বাধিক গুরুত্বপূর্ণ শিক্ষা হচ্ছেঃ “ আল্লাহ ব্যতীত আর কোন ইলাহ নেই ।” এ কালেমা -ই হচ্ছে ইসলামের বুনিয়াদ — যা দিয়ে এক কাফের এক মুশরিক ও এক নাস্তিক থেকে মুসলিমের পার্থক্য নির্ধারিত হয়। এ কালেমার স্বীকৃতি ও...

অধ্যায় ০৭ : ফেরেশতা , আসমানী কিতাব ও রাসুলগণের প্রতি বিশ্বাস

আল্লাহর ফেরেশতাদের প্রতি ঈমান আল্লাহর প্রতি ঈমানের পর নবী করীম (সা) আমাদেরকে ফেরেশতাদের অস্তিত্বের প্রতি ঈমান পোষণের নির্দেশ দিয়েছে। তাঁর এ শিক্ষার সর্বাধিক গুরুত্বপূর্ণ কল্যাণ হচ্ছে এই যে, এর ফলে তাওহীদের বিশ্বাস শিরকের যাবতীয় বিপদ সম্ভাবনা থেকে মুক্ত থাকে। উপরে বলা...

অধ্যায় ০৮ : আখেরাতের বিশ্বাসের প্রয়োজনীয়তা ও যুক্তিসমূহ

আখেরাতের উপর ঈমান পঞ্চম যে জিনিসটির উপর হযরত মুহাম্মাদ (সা) আমাদেরকে ঈমান পোষণের নির্দেশ দিয়েছেন তা হচ্ছে আখেরাত । আখেরাত সংক্রান্ত যে জিনিসের উপর ঈমান পোষণ করা জরুরী তা হচ্ছেঃ একঃ একদিন আল্লাহ তা’য়ালা সমগ্র বিশ্বজগত ও তার ভিতরকার সৃষ্টিকে নিশ্চিহ্ন করে দেবেন । এ...

অধ্যায় ০৯ : মৌলিক ইবাদতসমূহের তাৎপর্য

কালেমা তাইয়েবা ইসলামের বুনিয়াদ প্রতিষ্ঠিত হয়েছে পূর্ব বর্ণিত এ পাঁচটি বিশ্বাসের উপর। এ পাঁচটি বিশ্বাসের সারবস্তু রয়েছে কেবলমাত্র এক কালেমারই মধ্যেঃ (…………………) একজন মানুষ যখন ‘লা- ইলাহা ইল্লাল্লাহ ’ বলে তখন সে সকল মিথ্যা...

অধ্যায় ১০ : ইসলামের সহায়তা

ইসলামের সহায়তা সর্বশেষ যে ফরয আমাদের জন্য আল্লাহ তরফ থেকে নির্ধারিত হয়েছে , তা হচ্ছে ইসলামের সহায়তা (হেমায়তে ইসলাম) এ ফরযটি যদিও ইসলামের স্তম্ভসমূহের অর্ন্তগত নয়, তথাপি ইসলামী ফরযসমূহে মধ্যে এটি অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ । কুরআন মজীদ ও হাদীস শরীফে এর উপর বিশেষ গুরুত্ব আরোপ...

অধ্যায় ১১ : দ্বীন ও শরীয়ত

দ্বীন ও শরীয়াত এ যাবত আমি যা কিছু বলেছি , তা হচ্ছে দ্বীন সম্পর্কে কথা । এখন আমি হযরত মুহাম্মাদ (সা) এর শরীয়াত সম্পর্কে কথা বলব। তবে সবার আগে জেনে নিতে হবেঃ শরীয়াত কাকে বলে , আর শরীয়াত ও দ্বীনের মধ্যে পার্থক্য বা কি ? দ্বীন ও শরীয়াতের পার্থক্য পূর্ববর্তী অধ্যায়সমূহে...

অধ্যায় ১২ : চার ধরনের অধিকার

চতুর্বিদ অধিকার ইসলামী শরীয়াতে মানুষের চার রকমের অধিকার নির্ধারিত রয়েছে। একঃ আল্লাহর অধিকার ; দুইঃ মানুষের নিজস্ব দেহ ও মনের অধিকার ; তিনঃআল্লাহর অন্যান্য বান্দার অধিকার ,এবং চারঃ যেসব জিনিসকে কাজে লাগাবার ও তা থেকে কল্যাণ লাভ করার জন্য আল্লাহ মানুষের ইখতিয়ার ভুক্ত...

অধ্যায় ১৩ : বিশ্বজনীন ও স্থায়ী বিধান

এ হচ্ছে তামাম দুনিয়ার জন্য ও সর্বকালের জন্য হযরত মুহাম্মাদ (সা) এর মাধ্যমে আল্লাহ প্রেরিত শরীয়াতের সংক্ষিপ্ত বিবরণ। এ শরীয়াতে ধর্মীয় আকীদা ও কর্মসূচী সংক্রান্ত কতিপয় বিষয় ব্যতীত বিভিন্ন মানুষের মধ্যে কোন পার্থক্য নেই। যেসব মাযহাব ও শরীয়াতে বংশ, দেশ ও বর্ণ বিবেচনায়...