শরত্‍‌

আজি কি তোমার মধুর মূরতি      হেরিনু শারদ প্রভাতে! হে মাত বঙ্গ, শ্যামল অঙ্গ      ঝলিছে অমল শোভাতে। পারে না… Read more শরত্‍‌

শা-জাহান

 এ কথা জানিতে তুমি ভারত-ঈশ্বর শা-জাহান,  কালস্রোতে ভেসে যায় জীবন যৌবন ধনমান।       শুধু তব অন্তরবেদনা   চিরন্তন হয়ে থাক্, সম্রাটের ছিল এ সাধনা       রাজশক্তি বজ্রসুকঠিন  সন্ধ্যারক্তরাগসম তন্দ্রাতলে হয় হোক লীন       কেবল একটি দীর্ঘশ্বাস   নিত্য-উচ্ছ্বসিত হয়ে সকরুণ করুক আকাশ,       এই তব মনে ছিল আশ।     হীরামুক্তামানিক্যের ঘটা   যেন শুন্য দিগন্তের ইন্দ্রজাল ইন্দ্রধনুচ্ছটা      যায় যদি লুপ্ত হয়ে যাক,              শুধু থাক্     একবিন্দু নয়নের জল  কালের কপোলতলে শুভ্র সমুজ্জ্বল     এ তাজমহল॥            হায় ওরে মানবহৃদয়,             বার বার     কারো পানে ফিরে চাহিবার          নাই যে সময়,… Read more শা-জাহান

শাস্তি

প্রথম পরিচ্ছেদ দুখিরাম রুই এবং ছিদাম রুই দুই ভাই সকালে যখন দা হাতে লইয়া জন খাটিতে বাহির হইল তখন তাহাদের… Read more শাস্তি

শুধু তোমার বাণী নয় গো

শুধু তোমার বাণী নয় গো, হে বন্ধু, হে প্রিয়, মাঝে মাঝে প্রাণে তোমার পরশখানি দিয়ো॥ সারা পথের ক্লান্তি আমার সারা দিনের তৃষা কেমন করে মেটাব যে খুঁজে না পাই দিশা— এ আঁধার যে পূর্ণ তোমায় সেই কথা বলিয়ো॥ হৃদয় আমার চায় যে দিতে, কেবল নিতে নয়, বয়ে বয়ে বেড়ায় সে তার যা-কিছু সঞ্চয়। হাতখানি ওই বাড়িয়ে আনো, দাও গো আমার হাতে— ধরব তারে, ভরব তারে, রাখব তারে সাথে, একলা পথের চলা আমার করব রমণীয়॥

শুন লো শুন লো বালিকা

শুন লো শুন লো বালিকা,              রাখ কুসুমমালিকা,        কুঞ্জ কুঞ্জ ফেরনু সখি, শ্যামচন্দ্র নাহি রে॥ দুলৈ কুসুমমুঞ্জরি,                     ভমর ফিরই গুঞ্জরি,… Read more শুন লো শুন লো বালিকা

শুন, সখি, বাজই বাঁশি

        শুন, সখি, বাজই বাঁশি। শশিকরবিহ্বল নিখিল শূন্যতল   এক হরষরসরাশি। দক্ষিণপবনবিচঞ্চল তরুগণ,   চঞ্চল যমুনাবারি। কুসুমসুবাস উদাস ভৈল সখি   উদাস হৃদয়… Read more শুন, সখি, বাজই বাঁশি

শুভ কর্মপথে ধর’ নির্ভয় গান

শুভ     কর্মপথে ধর’ নির্ভয় গান। সব      দুর্বল সংশয় হোক অবসান। চির-    শক্তির নির্ঝর নিত্য ঝরে লহ’          সে অভিষেক ললাট’পরে। তব     জাগ্রত নির্মল নূতন প্রাণ ত্যাগব্রতে নিক দীক্ষা, বিঘ্ন হতে নিক শিক্ষা— নিষ্ঠুর সঙ্কট দিক সম্মান। দুঃখই হোক তব বিত্ত মহান। চল’ যাত্রী, চল’ দিনরাত্রি— কর’ অমৃতলোকপথ অনুসন্ধান। জড়তাতামস হও উত্তীর্ণ, ক্লান্তিজাল কর’ দীর্ণ বিদীর্ণ— দিন-অন্তে অপরাজিত চিত্তে মৃত্যুতরণ তীর্থে কর’ স্নান॥ ভারততীর্থ। স্বরবিতান ৪৭

শেষ কথা

রাগ কর নাই কর, শেষ কথা এসেছি বলিতে     তোমার প্রদীপ আছে, নাইকো সলিতে।         শিল্প তার মূল্যবান, দেয় না সে আলো,… Read more শেষ কথা

শেষ খেয়া

দিনের শেষে ঘুমের দেশে ঘোমটা-পরা ওই ছায়া       ভুলালো রে ভুলালো মোর প্রাণ। ও পারেতে সোনার কূলে আঁধারমূলে কোন্ মায়া       গেয়ে গেল কাজ-ভাঙানো গান।  নামিয়ে মুখ চুকিয়ে সুখ যাবার মুখে যায় যারা       ফেরার পথে ফিরেও নাহি চায়,  তাদের পানে ভাঁটার টানে যাব রে আজ ঘরছাড়া—      সন্ধ্যা আসে দিন যে চলে যায়।           ওরে আয়      আমায় নিয়ে যাবি কে রে            দিনশেষের শেষ খেয়ায়। সাঁজের বেলা ভাঁটার স্রোতে ও পার হতে একটানা      একটি-দুটি যায় যে তরী ভেসে। কেমন করে চিনব ওরে ওদের মাঝে কোন্‌খানা       আমার ঘাটে ছিল আমার দেশে। অস্তাচলে তীরের তলে ঘন গাছের কোল ঘেঁষে      ছায়ায় যেন ছায়ার মতো যায়, ডাকলে আমি ক্ষণেক থামি হেথায় পাড়ি ধরবে সে      এমন নেয়ে আছে রে কোন্ নায়।            ওরে আয়… Read more শেষ খেয়া