পট

যে শহরে অভিরাম দেবদেবীর পট আঁকে, সেখানে কারো কাছে তার পূর্বপরিচয় নেই। সবাই জানে, সে বিদেশী, পট আঁকা তার চিরদিনের… Read more পট

পত্র

তোমাকে পাঠালুম আমার লেখা,         এক‐বই‐ভরা কবিতা। তারা সবাই ঘেঁষাঘেঁষি দেখা দিল            একই সঙ্গে এক খাঁচায়।         কাজেই আর… Read more পত্র

পত্রলেখা

  দিলে তুমি সোনা‐মোড়া ফাউণ্টেন পেন,        কতমতো লেখার আসবাব।              ছোটো ডেস্‌‍কোখানি।                   আখরোট কাঠ দিয়ে গড়া।   ছাপ‐মারা… Read more পত্রলেখা

পরিণাম

ভৈরবী। ঝাঁপতাল জানি হে, যবে প্রভাত হবে, তোমার কৃপা‐তরণী       লইবে মোরে ভবসাগরকিনারে। করি না ভয়, তোমারি জয় গাহিয়া যাব… Read more পরিণাম

পরীর পরিচয়

রাজপুত্রের বয়স কুড়ি পার হয়ে যায়, দেশবিদেশ থেকে বিবাহের সম্বন্ধ আসে। ঘটক বললে, ‘বাহ্লীকরাজের মেয়ে রূপসী বটে, যেন সাদা গোলাপের… Read more পরীর পরিচয়

পসারিনী

  ওগো পসারিনি, দেখি আয়          কী রয়েছে তব পসরায়। এত ভার মরি মরি             কেমনে রয়েছ ধরি,          কোমল করুণ… Read more পসারিনী

পিয়াসী

   আমি তো চাহি নি কিছু। বনের আড়ালে দাঁড়ায়ে ছিলাম    নয়ন করিয়া নিচু। তখনো ভোরের আলস‐অরুণ    আঁখিতে রয়েছে… Read more পিয়াসী

পুকুর-ধারে

       দোতলার জানলা থেকে চোখে পড়ে                পুকুরের একটি কোণা।             ভাদ্রমাসে কানায় কানায় জল।        জলে গাছের গভীর ছায়া… Read more পুকুর-ধারে

পুত্রযজ্ঞ

বৈদ্যনাথ গ্রামের মধ্যে বিজ্ঞ ছিলেন সেইজন্য তিনি ভবিষ্যতের দিকে দৃষ্টি রাখিয়া বর্তমানের সমস্ত কাজ করিতেন। যখন বিবাহ করিলেন তখন তিনি… Read more পুত্রযজ্ঞ

পুনরাবৃত্তি

সেদিন যুদ্ধের খবর ভালো ছিল না। রাজা বিমর্ষ হয়ে বাগানে বেড়াতে গেলেন। দেখতে পেলেন, প্রাচীরের কাছে গাছতলায় বসে খেলা করছে… Read more পুনরাবৃত্তি

পুরস্কার

সেদিন বরষা ঝরঝর ঝরে    কহিল কবির স্ত্রী `রাশি রাশি মিল করিয়াছ জড়ো, রচিতেছ বসি পুঁথি বড়ো বড়ো, মাথার উপরে বাড়ি পড়ো-পড়ো,    তার খোঁজ রাখ কি! গাঁথিছ ছন্দ দীর্ঘ হ্রস্ব— মাথা ও মুণ্ড, ছাই ও ভস্ম, মিলিবে কি তাহে হস্তী অশ্ব,    না মিলে শস্যকণা। অন্ন জোটে না, কথা জোটে মেলা, নিশিদিন ধ’রে এ কি ছেলেখেলা! ভারতীরে ছাড়ি ধরো এইবেলা    লক্ষ্মীর উপাসনা। ওগো, ফেলে দাও পুঁথি ও লেখনী, যা করিতে হয় করহ এখনি। এত শিখিয়াছ এটুকু শেখ নি    কিসে কড়ি আসে দুটো!’ দেখি সে মুরতি সর্বনাশিয়া কবির পরান উঠিল ত্রাসিয়া,… Read more পুরস্কার

পুরাতন ভৃত্য

ভূতের মতন চেহারা যেমন,   নির্বোধ অতি ঘোর— যা‐কিছু হারায়, গিন্নি বলেন,   “কেষ্টা বেটাই চোর।” উঠিতে বসিতে করি বাপান্ত,   শুনেও শোনে… Read more পুরাতন ভৃত্য

পূর্ণকাম

কীর্তন সংসারে মন দিয়েছিনু, তুমি           আপনি সে মন নিয়েছ! সুখ ব’লে দুখ চেয়েছিনু, তুমি           দুখ ব’লে সুখ দিয়েছ!… Read more পূর্ণকাম

পূর্ণা

     তুমি গো পঞ্চদশী শুক্লা নিশার অভিসারপথে      চরম তিথির শশী। স্মিত স্বপ্নের আভাস লেগেছে      বিহ্বল তব রাতে। ক্বচিৎ… Read more পূর্ণা

প্রকাশ

হাজার হাজার বছর কেটেছে, কেহ তো কহে নি কথা, ভ্রমর ফিরেছে মাধবীকুঞ্জ, তরুরে ঘিরেছে লতা; চাঁদেরে চাহিয়া চকোরী উড়েছে, তড়িৎ… Read more প্রকাশ

প্রতিদিন তব গাথা গাব আমি সুমধুর

প্রতিদিন তব গাথা গাব আমি সুমধুর— তুমি দেহো মোরে কথা, তুমি দেহো মোরে সুর— তুমি যদি থাক মনে   বিকচ কমলাসনে, তুমি যদি কর প্রাণ তব প্রেমে পরিপূর, প্রতিদিন তব গাথা গাব আমি সুমধুর॥ তুমি শোন যদি গান আমার সমুখে থাকি, সুধা যদি করে দান তোমার উদার আঁখি, তুমি যদি দুখ’পরে   রাখ কর স্নেহভরে, তুমি যদি সুখ হতে দম্ভ করহ দূর, প্রতিদিন তব গাথা গাব আমি সুমধুর॥