অপটু

            যতবার আজ গাঁথনু মালা 
                  পড়ল খসে খসে 
                  কী জানি কার দোষে ! 
            তুমি হোথায় চোখের কোণে 
                  দেখছ বসে বসে । 
                         চোখ - দুটিরে প্রিয়ে , 
                         শুধাও শপথ নিয়ে 
                  আঙুল আমার আকুল হল 
                         কাহার দৃষ্টিদোষে ! 
  
            আজ যে বসে গান শোনাব 
                  কথাই নাহি জোটে , 
                  কণ্ঠ নাহি ফোটে । 
            মধুর হাসি খেলে তোমার 
                  চতুর রাঙা ঠোঁটে । 
                         কেন এমন ত্রুটি 
                         বলুক আঁখি - দুটি—   
                  কেন আমার রুদ্ধ কণ্ঠে 
                          কথাই নাহি ফোটে ! 
  
            রেখে দিলাম মাল্য বীণা , 
                   সন্ধ্যা হয়ে আসে । 
                    ছুটি দাও এ দাসে— 
            সকল কথা বন্ধ করে 
                   বসি পায়ের পাশে । 
                         নীরব ওষ্ঠ দিয়ে 
                         পারব যে কাজ প্রিয়ে 
                   এমন কোনো কর্ম দেহো           
                         অকর্মণ্য দাসে । 

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *