ওরে শুভ্রবসনা রজনীগন্ধা
বনের বিধবা মেয়ে,
হারানো কাহারে খুঁজিস নিশীথ–
আকাশের পানে চেয়ে॥

ক্ষীণ তনু-লতা বেদনা-মলিন
উদাস মূরতি ভূষণ-বিহীন,
তোরে হেরি’ ঝরে কুসুম অশ্রু
বনের কপোল বেয়ে॥

তুই লুকায়ে কাঁদিস্ রজনী জাগিস্
সবাই ঘুমায় যবে,
বিধাতারে যেন বলিস, “দেবতা,
আমারে লইবে কবে”।

করুণ-শুভ্র-ভালোবাসা তোর
সুরভি ছড়ায় সারা নিশি ভোর,
প্রভাত বেলায় লুটাস্ ধুলায়
যেন কারে নাহি পেয়ে॥

Share This