০২৫. শ্রীমদ্‌ভগবতগীতা প্রথম অধ্যায় – সৈন্যদর্শন, অর্জুনবিষাদ

শ্রীমদ্‌ভগবতগীতা – প্রথম অধ্যায় – সৈন্যদর্শন ধৃতরাষ্ট্র কহিলেন, “হে সঞ্জয়! কৌরব ও পাণ্ডবগণ সংগ্রামভিলাষে ধর্মভূমি কুরুক্ষেত্রে সমবেত হইয়া কি করিয়াছিল?”… Read more ০২৫. শ্রীমদ্‌ভগবতগীতা প্রথম অধ্যায় – সৈন্যদর্শন, অর্জুনবিষাদ

০২৬. দ্বিতীয় অধ্যায় – বিষাদনাশক সাংখ্যযোগ, কর্মযোগ প্রশংসা

দ্বিতীয় অধ্যায় – বিষাদনাশক সাংখ্যযোগ সঞ্জয় কহিলেন, “ভগবান্‌, বাসুদেব কৃপাবশংবদ, অশ্রুপূর্ণলোচন, বিষন্নবদন অর্জুনকে কহিলেন, ‘অর্জুন! ঈদৃশ বিষম সময়ে কি নিমিত্ত… Read more ০২৬. দ্বিতীয় অধ্যায় – বিষাদনাশক সাংখ্যযোগ, কর্মযোগ প্রশংসা

০২৮. চতুর্থ অধ্যায় – জ্ঞানযোগ

“ভগবান বলিলেন, ‘আমি পূর্বে আদিত্যকে এই অব্যয়যোগ কহিয়াছিলাম; তৎপরে আদিত্য মনুকে ও মনু ঈক্ষ্বাকুকে কহিয়াছিলেন এবং নিমিপ্রভৃতি রাজর্ষিগণ পরম্পরাগত (পূর্বাপর… Read more ০২৮. চতুর্থ অধ্যায় – জ্ঞানযোগ

০২৯. পঞ্চম অধ্যায় – সন্ন্যাসযোগ

“অর্জুন কহিলেন, ‘হে কৃষ্ণ! তুমি কর্মসন্ন্যাস (কর্মত্যাগ) ও কর্মযোগ (ফলত্যাগপূর্বক কর্মাচরণ) উভয়ের কথাই কহিতেছ, এক্ষণে উভয়ের মধ্যে যাহা শ্রেয়স্কর, তাহা… Read more ০২৯. পঞ্চম অধ্যায় – সন্ন্যাসযোগ

০৩০. ষষ্ঠ অধ্যায় – ধ্যানযোগ

“‘হে অর্জুন! যিনি ফলে বিতৃষ্ণ (আকাঙ্খারহিত) হইয়া কর্তব্যকর্ম অনুষ্ঠান করেন, তিনিই সন্ন্যাসী এবং তিনিই যোগী; কিন্তু যিনি অগ্নিসাধ্য ইষ্ট (যজ্ঞ)… Read more ০৩০. ষষ্ঠ অধ্যায় – ধ্যানযোগ

০৩১. সপ্তম অধ্যায় – জ্ঞানবিজ্ঞানযোগ

“ভগবান্‌ কহিলেন, ‘হে অর্জুন! তুমি আমার প্রতি অনুরক্ত ও আমার আশ্রিত হইয়া যোগাভ্যাসপূর্বক যে প্রকারে আমাকে সম্পূর্ণরূপে অবগত হইতে পারিবে,… Read more ০৩১. সপ্তম অধ্যায় – জ্ঞানবিজ্ঞানযোগ

০৩২. অষ্টম অধ্যায় – অক্ষরব্রহ্মযোগ

“অর্জুন কহিলেন, ‘হে বাসুদেব! ব্রহ্ম, অধ্যাত্ম ও কর্ম কাহাকে বলে? অধিভূত ও অধিদৈবই বা কি? মনুষ্যদেহে অধিযজ্ঞ কিরূপে অবস্থান করিতেছে?… Read more ০৩২. অষ্টম অধ্যায় – অক্ষরব্রহ্মযোগ

০৩৩. নবম অধ্যায় – রাজবিদ্যা-রাজগুহ্যযোগ

“ভগবান্‌ কহিলেন, ‘হে অর্জুন! তুমি অসূয়াশূন্য; অতএব যাহা অবগত হইলে সংসারবন্ধন হইতে মুক্ত হইবে, আমি সেই গোপনীয় উপাসনাসহকৃত ঈশ্বরজ্ঞান কীর্তন… Read more ০৩৩. নবম অধ্যায় – রাজবিদ্যা-রাজগুহ্যযোগ

০৩৪. দশম অধ্যায় – বিভূতিযোগ

“ভগবান্‌ কহিলেন, ‘হে অর্জুন! তুমি আমার বাক্যশ্রবণে নিতান্ত প্রীত হইতেছে; এক্ষণে আমি তোমার হিতবাসনায় পুনরায় যে সমস্ত উৎকৃষ্ট বাক্য কীর্তন… Read more ০৩৪. দশম অধ্যায় – বিভূতিযোগ

০৩৫. একাদশ অধ্যায় – বিশ্বরূপদর্শন

“অর্জুন কহিলেন, ‘হে বাসুদেব! তুমি আমার প্রতি অনুগ্রহ প্রদর্শন করিয়া যে পরম গুহ্য আত্মা ও দেহ প্রভৃতির বিষয় কীর্তন করিলে,… Read more ০৩৫. একাদশ অধ্যায় – বিশ্বরূপদর্শন

০৩৬. দ্বাদশ অধ্যায় – ভক্তিযোগ

“অর্জুন কহিলেন, ‘হে বাসুদেব! যাহারা ত্বদ্‌গতচিত্তে (অনন্যমনে–একমাত্র ভগবানে মন রাখিয়া) তোমার উপাসনা করে এবং যাহারা কেবল অক্ষয় ও অব্যক্ত ব্রহ্মের… Read more ০৩৬. দ্বাদশ অধ্যায় – ভক্তিযোগ

০৩৭. ত্রয়োদশ অধ্যায় – ক্ষেত্র-ক্ষেত্রজ্ঞযোগ

“অর্জুন কহিলেন, ‘হে বাসুদেব! আমি প্রকৃতি, পুরুষ, ক্ষেত্র, ক্ষেত্রজ্ঞ, জ্ঞান ও জ্ঞেয়, এই কয়েকটি বিষয় শ্রবণ করিতে অভিলাষ করি।’ “কৃষ্ণ… Read more ০৩৭. ত্রয়োদশ অধ্যায় – ক্ষেত্র-ক্ষেত্রজ্ঞযোগ

০৩৮. চতুর্দশ অধ্যায় – গুণত্রয়বিভাগযোগ

“ভগবান বলিলেন, ‘হে অর্জুন! আমি পুনরায় উৎকৃষ্ট জ্ঞান কীর্তন করিতেছি, শ্রবণ কর। মহর্ষিগণ ইহা অবগত হইয়া দেহান্তে মোক্ষলাভ করিয়া থাকেন… Read more ০৩৮. চতুর্দশ অধ্যায় – গুণত্রয়বিভাগযোগ

০৩৯. পঞ্চদশ অধ্যায় – পুরুষোত্তমযোগ

“ভগবান্‌ বলিলেন, ‘হে অর্জুন! সংসাররূপ এক অব্যয় অশ্বত্থ (সংসারকে অশ্বত্থবৃক্ষে রূপক করা হইয়াছে। ‘শ্ব’ শব্দের অর্থ পরবর্তী প্রভাতকাল। ইহার সহিত… Read more ০৩৯. পঞ্চদশ অধ্যায় – পুরুষোত্তমযোগ

০৪০. ষোড়শ অধ্যায় – দৈবাসুরসম্পদবিভাগযোগ

“ভগবান বলিলেন, ‘হে অর্জুন! যাহারা দৈবসম্পদ্‌ লক্ষ্য করিয়া জন্মগ্রহণ করে, তাহারা অভয়, চিত্তশুদ্ধি, আত্মজ্ঞানোপায়ে (আত্মজ্ঞানসাধনে) পরনিষ্ঠা (ঐকান্তিকভাব), দান, দম, যজ্ঞ,… Read more ০৪০. ষোড়শ অধ্যায় – দৈবাসুরসম্পদবিভাগযোগ

০৪১. সপ্তদশ অধ্যায় – শ্রদ্ধাত্রয়বিভাগযোগ

“অর্জুন কহিলেন, ‘হে কৃষ্ণ! যাহারা শাস্ত্রবিধি পরিত্যাগ করিয়া শ্রদ্ধাসহকারে যজ্ঞ অনুষ্ঠান করে, তাহাদের শ্রদ্ধা সাত্ত্বিক কি রাজসিক অথবা তামসিক?’ “কৃষ্ণ… Read more ০৪১. সপ্তদশ অধ্যায় – শ্রদ্ধাত্রয়বিভাগযোগ

০৪২. অষ্টাদশ অধ্যায় – মোক্ষযোগ

শ্রীমদভগবদগীতা – অষ্টাদশ অধ্যায় – মোক্ষযোগ “অর্জুন কহিলেন, ‘মহাবাহো! আমি সন্ন্যাস ও ত্যাগের প্রকৃত তত্ত্ব পৃথকরূপে শ্রবণ করিতে অভিলাষ করি,… Read more ০৪২. অষ্টাদশ অধ্যায় – মোক্ষযোগ