১৪.শান্তিপর্ব্ব

০১. যুধিষ্ঠিরের প্রতি ব্যাসের উপদেশ

জিজ্ঞাসেন জন্মেজয়, কহ তপোধন। অতঃপর কি করিলা পিতামহগণ।। কিরূপে বৈভব ভোগ কৈল পঞ্চজন। কিবা ধর্ম্ম উপার্জ্জিল পালি প্রজাগণ।। শরশয্যাগত ভীষ্ম গঙ্গার নন্দন। কি হেতু উত্তরায়ণে ত্যজেন জীবন।। কিবা যোগধর্ম্ম কহিলেন যুধিষ্ঠিরে। বিস্তার করিয়া মুনি বলহ আমারে।। মুনি বলে, অবধান করহ...

০২. ব্যাস কর্ত্তৃক মার্কণ্ডেয় উপাখ্যান কথন

এরূপ কহিয়া পুনঃ কহে ব্যাসমুনি। ধৈর্য্য হও নরপতি ইতিহাস শুনি।। যথায় সংযোগ হয় রিপুজ্ঞান কর। মরিয়া সকলে তারা গেল স্বর্গপুর।। জন্মিলে অবশ্য রাজা আছয়ে মরণ। অহঙ্কারে অবশ্য ত আছয়ে পতন।। অহঙ্কার করি সবে অল্পায়ু হইল। অধর্ম্ম করিয়া তারা আপনি মরিল।। তার সাক্ষী দেখ তুমি আপন...

০৩. লোমশ মুনির উপাখ্যান

তবে জন্মেজয় বলে, শুন তপোধন। তদন্তরে কি হইল কহত এখন।। ব্যাস বলে, শুন এবে ধর্ম্মের নন্দন। মৃত্যু হইতে তরিবারে নহে কোন জন।। আর কথা কহি শুন রাজা যুধিষ্ঠির। আমার বচনে তুমি চিত্ত কর স্থির।। পূর্ব্বে দেব যে কালে আমরা নির্ম্মাইল। বিশ্বকর্মা যত খাটে মনে না লইল।। প্রতিদিন গড়ে...

০৪. সংসারে জন্ম-মৃত্যু বিষয়ে নরক-রাজার উপাখ্যান

তবে জন্মেজয় কহে, শুন মুনিবর। তদন্তরে কি হইল কহ অতঃপর।। মুনি বলে, শুন তবে রাজা জন্মেজয়। তদন্তরে যে হইল শুনহ নিশ্চয়।। সংসার প্রসঙ্গ এই বনে যে আছয়। কহিব অপূর্ব্ব কথা শুন মহাশয়।। ব্রাহ্মণে কহেন কথা নরকেতে শুনে। হইবে নরকক্ষয় বেদের বচনে।। দেহ ধরি জন্ম হয় সংসার ভিতরে। জরা...

০৫. ধ্রুব উপাখ্যান

শোক ত্যজ ধৈর্য্য কর ধর্ম্ম নরপতি। নানা সুখ ভোগ কর ভুঞ্জ বসুমতী।। আর কিছু কহি রাজা মন দিয়া শুন। করিয়া ত শান্ত মন শুনহ রাজন।। উত্তানপাদ নামে রাজা পূর্ব্বেতে আছিল। সুভগা দুর্ভগা তার দুই নারী ছিল।। উত্তমাদি সাত পুত্র রাজার গোচরে। সাত পুত্র লৈয়া সিংহাসনের উপরে।। পুত্র...

০৬. জড়ভরত উপাখ্যান

তবে জন্মেজয় কহে, শুন তপোধন। তার পরে কি হইল, কহত এখন।। মুনি বলে শুন পরীক্ষিতের নন্দন। তার পর যা হইল, কহি বিবরণ।। ব্যাস বলে, শুন এবে ধর্ম্মের নন্দন। চিত্ত শান্ত করি শুন, ত্যজ শোক-মন।। উত্তানপাদ রাজা সেই পূর্ব্বেতে আছিল। ধ্রুবে রাজ্য দিয়া রাজা তপস্যায় গেল।। সরয়ূর তীরে...

০৭. হরিণের মৃত্যু-বিবরণ

ব্যাসের বচন শুনি ধর্ম্ম নরপতি। নিঃশব্দে রহিল যুধিষ্ঠির মহামতি।। কৃষ্ণকে কহিল তবে বীর ধনঞ্জয়। যত দুঃখ পাইল তাহা কহনে না যায়।। জ্ঞাতিশোকে সন্তপ্ত নৃপতি যুধিষ্ঠির। বিশেষে পুত্রের শোকে দহিছে শরীর।। কোনমতে শান্ত হবে কহ ভগবান। রাজার সন্তাপ শোক কর সমাধান।। অর্জ্জুনের বাক্য...

০৮. মহীরাবণের উপাখ্যান

তবে বীর মহাকায়,                     লঙ্কা প্রবেশিতে চায়, ভল্লুক বানর গড়-দ্বারে। মন্ত্রেতে মৃত্তিকা কাটে,                     যেন কাদম্বিনী উঠে, তাহাতে সুড়ঙ্গ হৈল দ্বারে।। তবেত রাক্ষস মহী,                     মহাক্রোধ-মূর্ত্তি হই, ছাড়ে বীর মহা হুহুঙ্কার। চতুর্দ্দিকে...

০৯. মহীরাবণ বধ

জন্মেজয় বলে, মুনি করি নিবেদন। তার পর কিবা হৈল কহ তপোধন।। মুনি বলে, শুন পরীক্ষিতের নন্দন। তদন্তরে যেই হৈল শুনহ কারণ।। মহীরাবণ বীর তবে করিল গমন। দেখিলা রামের সৈন্য বহু বীরগণ।। বড় বড় বীর দেখে পর্ব্বত আকার। দেখিয়া ত মহীরাবণের চমৎকার।। কিরূপে করিব রণ না দেখি উপায়। কোনরূপে...

১০. ব্যাসদেশে পাণ্ডবগণের ভীষ্মসমীপে গমন

তবে জন্মেজয় বলে, শুন তপোধন। তদন্তরে কোন্ কর্ম্ম কৈলা মহাজন।। মুনি বলে, জন্মেজয় কহিয়ে তোমারে। যেইমতে সান্ত্বনা হইল যুধিষ্ঠিরে।। ব্যাসবাক্য শুনি রাজা মন কৈল স্থির। ব্যাস বৈলা শোকচিত্ত নহ যুধিষ্ঠির।। নানামত প্রসঙ্গ বুঝান ব্যাসদেব। অনেক প্রকার করি বুঝাইল তবে।। শুনিলা অনেক...

১১. ভীষ্মের নীতি কথন

হেনমতে কহে তবে ভীষ্ম মহাশয়। তব অগ্রে সেই মৈল কি তার সংশয়।। এত শুনি যুধিষ্ঠির করয়ে রোদন। সান্ত্বাইয়া বলে তারে শান্তনু নন্দন।। বিষাদ না কর রাজা স্থির কর মতি। ভ্রাতৃগণ সংহতি ভুঞ্জহ বসুমতী।। নীতিবাক্য কথা কিছু শুনহ রাজন। কদাচিত নিন্দা না করিহ ব্রাহ্মণ।। পিতা মাতা পালিবে,...

১২. মৃত্যুর উৎপত্তি ও বর্ণন

তদন্তর পিতামহে ধর্ম্মের তনয়। করাযোড়ে জিজ্ঞাসেন, কহ মহাশয়।। মৃত্যু হেন বস্তু কেবা করিল সৃজন। পূর্ব্বাপর আছে কিবা ব্যাপিত ভুবন।। মৃত্যু বলি কোন্ জন এ তিন ভুবন। ছোট বড় সর্ব্ব জীবে করয়ে নিধন।। কে সৃষ্টি করিল মৃত্যু, হৈল কি কারণে। মৃত্যুতে সংসারে হরে বড় বড় জনে।। যম বলে...

১৩. ধর্ম্মাধর্ম্ম প্রস্তাবে হরিনামের মহাত্ম্য কথন

জিজ্ঞাসেন যুধিষ্ঠির করিয়া বিনয়। ধর্ম্মাধর্ম্ম কথা কহ শুনি মহাশয়।। কিরূপে অধর্ম্ম ভোগ করে পাপিগণ। ধর্ম্মিলোক ধর্ম্মভোগ করয়ে কেমন।। শুনিয়া কহেন হাসি গঙ্গার তনয়। কহিব সকল কথা শুনহ নিশ্চয়।। যমরাজপুরী নাম বিখ্যাত ভুবনে। অদ্ভূত তাঁহার পুরী না যায় বর্ণনে।। ষোলশত যোজন তাহার...

১৪. ভদ্রশীল ও ধনুধ্বজের উপাখ্যান

ভীষ্মদেব বলিলেন শুন কুন্তীসুত। যমের দক্ষিণ দ্বার বড়ই অদ্ভূত।। পূর্ব্বে যাহা শুনিলাম দেবলের মুখে। অবহিত হ’য়ে আমি বলিব তোমাকে।। ভদ্রশীল নামে ঋষি অযোধ্যায় স্থিতি। সর্ব্বশাস্ত্রে বিশারদ গুণে মহামতি।। যজন যাজন বেদ করি অধ্যয়ন। নানামতে অর্জ্জিত নানারূপ ধন।। ধনুধ্বজ রক্ষণ...

১৫. পাপ বিশেষে নরক বিশেষ গমন

যুধিষ্ঠির বলিলেন কর অবধান। সংক্ষেপে যমের পুর করিলা বাখান।। কি পাপ করিলে জীব পায় কিবা ফল। বিস্তার করিয়া কহ শুনি সে সকল।। ভীষ্ম বলিলেন তাহা শুনহ রাজন। ব্রাহ্মণেরে বৃত্তি দিয়া হরে যেই জন।। অন্তে তারে লয়ে যায় যমের কিঙ্কর। ঊর্দ্ববাহু করি বান্ধে স্তম্ভের উপর।। তলেতে তুষের...

১৬. ধর্ম্মফল কথন

বৃত্তিদান দিয়া যেই স্থাপয়ে ব্রাহ্মণে। তার পুণ্যফল কত কহিব বদনে।। বরঞ্চ ভূমির রেণু গণিবারে পারি। সমুদ্রের জল বরং কলসিতে ভরি।। তথাপি তাহার পুণ্য না হয় বর্ণন। ইতিহাস বলি এক শুন দিয়া মন।। সুবোধ নামেতে এক বিপ্রের নন্দন। কুণ্ডীন নগরবাসী মহাতপোধন।। অষ্টভার্য্যা শতপুত্র কন্যা...

১৭. নারায়ণ ও একাদশীর মাহাত্ম্য

ভীষ্ম বলিলেন রাজা করহ শ্রবণ। পৃথিবীতে জন্মি পুণ্য করে যেই জন।। সর্ব্ব পাপে মুক্ত সেই নিষ্পাপ শরীর। অন্তে মোক্ষগতি লভে শুন যুধিষ্ঠির।। অষ্টমীর উপবাস করে যেই জন। শুদ্ধচিত্তে শিবদুর্গা করে আরাধন।। ভূমিদান রত্নদান করিয়া ব্রাহ্মণে। অতিথি অথর্ব্ব পূজা করে অন্নাদানে।। দিব্য...

১৮. বীরবাহু রাজার উপাখ্যান

আর এক কথা কহি শুনহ রাজন। একাদশী ব্রতের শুনহ বিবরণ।। বীরবাহু রাজা ছিল বড় পুণ্যবান। জনম অবধি রাজা করে নানা দান।। বসন ভূষণ দান দেয় ত ব্রাহ্মণে। যত দান করে তার নাহি পরিমাণে।। প্রবাল মুকুতা মণি করিয়া ভূষিত। স্বর্ণশৃঙ্গ রৌপ্যখুর যেই শাস্ত্রনীত।। নব নব বৎস সহ গাভী দুগ্ধবতী।...

১৯. একাদশী ব্রতোপলক্ষে যজ্ঞমালীর উপাখ্যান

কহেন গঙ্গার পুত্র কুম্ভীর পুত্রেরে। আর কিছু ব্রতকথা কহিব তোমারে।। একাদশী ব্রতকথা সর্ব্বব্রত সার। অবধান কর শুন ধর্ম্মের কুমার।। পূর্ব্বে কহিয়াছি একাদশী অনুষ্ঠানে । পারণাদি অতঃপর শুন একমনে।। শুদ্ধচিত্তে এই ব্রত কর আচরণ। সর্ব্বদুঃখে তরে সেই পাপ বিমোচন।। প্রাতঃকালে স্নান...

২০. হরিমন্দির মার্জ্জনের ফল

ভীষ্ম বলিলেন শুন রাজা ধর্ম্মরায়। আর কিছু ধর্ম্মকথা কহিব তোমায়।। গোবিন্দেরে করয়ে যে স্তুতি আচরণ। নানা উপহার দিয়া করয়ে পূজন।। সোমবার দ্বাদশী দিবস শুভক্ষণে। ক্ষীর জলে স্নান যে করায় নারায়ণে।। বংশের সহিত যায় বৈকুণ্ঠ ভুবন। কদাচ না পায় সেই যমের তাড়ন।। ভাদ্রমাসে কৃষ্ণাষ্টমী...