০৮.কর্ণপর্ব্ব

০১. কর্ণকে সেনাপতিত্বে বরণ

বীর যোদ্ধা ক্রমে সবে পড়িল সমরে। দৈবের বিপাকে যেন বিধাতা সংহারে।। ভীষ্ম দ্রোণ হত হৈল চিন্তে দুর্য্যোধন। কারে সেনাপতি করি, কে করিবে রণ। এতেক ভাবিয়া রাজা আকুল পরাণ। মন্ত্রিগণে আনি তবে করয়ে বিধান।। শকুনি কহিল কর্ণ আছে মহামতি। সেনাপতি পদে তারে বর শীঘ্রগতি।। সমর করুক কর্ণ,...

০২. কর্ণের সহিত যুদ্ধে নকুলের পরাভব

দুঃশাসনে জিনি তবে নকুল প্রবীর। কর্ণের নিকটে গেল নির্ভয় শরীর।। তীক্ষ্ণ বাণ এড়ি বীর কর্ণের উপরি। সদর্পে নকুল কর্ণে বলে আগুসরি।। যাহা ছিল কর্ণ তুই করিলি প্রকাশ। তোমা হতে ক্ষত্রকুল হইল বিনাশ।। আজি রণমধ্যে তোরে করিব সংহার। কৃতকৃত্য হইবেন ধর্ম্ম-অবতার।। হাসিয়া বলিল কর্ণ,...

০৩. কর্ণ-দুর্য্যোধন সংবাদ

শিবিরেতে গেল দুর্য্যোধন মহারাজ। অর্জ্জুনের সহ রণে পেয়ে বড় লাজ।। কাহার বাহন নাহি, কার নাহি ধনু। অর্জ্জুনের বাণে সবে ছিন্নভিন্ন তনু।। মুখে গদ গদ বাণী, বদন বিবর্ণ। অপমানে বসিলেন ভূমিতলে কর্ণ।। দশন ভাঙ্গিয়া যেন বারণ পলাল। মহা ভূজঙ্গমে যেন বারণ পিষিল।। সে মত কৌরবগণ...

০৪. শল্যের সারথ্য স্বীকার ও কর্ণের আত্মশ্লাঘা

দুর্য্যোধন নৃপতির শুনিয়া বচন। সারথি হইতে শল্য করিল মনন।। নানা অস্ত্র পরিপূর্ণ, পতাকা নিচয়। চড়িল কর্ণের রথে শল্য মহাশয়।। হাতেতে পাঁচনি লয়ে চলিল সারথি। যুদ্ধ করিবারে যায় কর্ণ মহামতি।। শল্যের অগ্রেতে কর্ণ আপনা বাখানে। চিত্ররথ আসে যদি বিনাশিব বাণে।। যদি যম আদি সঙ্গে আসে...

০৫. কর্ণের সহিত যুদ্ধে যুধিষ্ঠিরের পরাভব

কর্ণের বচন শুনি শল্য বলে দাপে। বিস্তর কহিলে তুমি অতুল প্রতাপে।। এই দেখ রথে আইল সর্ব্ব সৈন্যগণ। কাহার সামর্থ্য করে ‍পার্থে নিবারণ।। হের দেখ ভীমসেন পবনকুমার। সহদেব বীর দেখ ভুবনের সার।। মহারাজা যুধিষ্ঠির দেখ বিদ্যমান। ধৃষ্টদ্যুন্ন সেনাপতি অগ্নির সমান।। দ্রৌপদীর পঞ্চপুত্র...

০৬. যুধিষ্ঠিরের নিকট অর্জ্জুনের কর্ণবধে প্রতিজ্ঞা

শয়ন করিয়া আছে রাজা যুধিষ্ঠির। চরণ বন্দেন গিয়া ধনঞ্জয় বীর।। উল্লাসেতে উঠি বসিলেন যুধিষ্ঠির। প্রত্যয় জন্মিল পড়িয়াছে কর্ণবীর।। মহারাজ যুধিষ্ঠির চিন্তিলেন মনে। কর্ণ মোরে মহাদুঃখ দিল মহারণে।। হরষিতে হেথায় আইল দুইজন। বিনা কর্ণে মারি সখে হেথা আগমন।। এত চিন্তি যুধিষ্ঠির...

০৭. ভীম কর্ত্তৃক দুঃশাসনের রক্তপান

কৃষ্ণের সহিত পার্থ মহাধনুর্দ্ধর। হেনমতে চলিলেন সংগ্রাম ভিতর।। মাদ্রী-পুত্রদ্বয় সহ বীর বৃকোদর। নিরখিয়া কুরুবল বরিষরে শর।। সারথি বিশোক নামে তারে ভীম পুছে। আমার রথেতে দেখ কত অস্ত্র আছে।। আজি রণে পড়িবে সকল কুরুগণ। নতুবা আমারে মারিবেক দুর্য্যোধন।। ভীমের বচনে তবে বিশোক...

০৮. অর্জ্জুনের হস্তে কর্ণপুত্র বৃষসেন বধ

জিজ্ঞাসেন জন্মেজয় যুদ্ধ বিবরণ। ব্যক্ত করি যুদ্ধ কথা কহ তপোধন।। কর্ণেরে বলিল দুর্য্যোধন মহাশয়। গাণ্ডীব লইয়া আসে বীর ধনঞ্জয়।। রক্তপান করি তবে বীর বৃকোদর। দুঃশাসন রক্তেতে লেপিল কলেবর।। দুর্য্যোধন যথা আছে ভ্রাতৃগণ সঙ্গে। অস্ত্র লয়ে তথা ভীম যান মনোরঙ্গে।। দেশবাণ মারিয়া...

০৯. কর্ণ বধ

হিতে খান্ডব বন, মম মায়ে বিনাশন, করিলেন পাণ্ডুর নন্দন। বাজি বৈরী উদ্ধারিব, অর্জ্জুনের সংহারিব, কর্ণ সনে করিব মিলন।। এতেক ভাবিয়া নাগ, মনেতে করিয়া রাগ, আকাশে উঠিল সেইক্ষণ। জননীর বৈরি শোধি, কিরূপে অর্জ্জুন বধি, এই যুক্তি ভাবে মনে মন।। আপনি সুবুদ্ধি বীর, সঙ্কুচিয়া...