০৫.উদ্যোগপর্ব্ব

০১. দুর্য্যোধনের প্রতি ভীষ্মাদির হিতোপদেশ

জিজ্ঞাসেন জন্মেজয় কহ তপোধন। সত্য হতে মুক্ত যদি হৈল পঞ্চজন।। আপন বিভাগ রাজ্য লাভের কারণ। কহকিবা করিলেন পিতামহগণ।। ধৃতরাষ্ট্র আর দুর্য্যোধনে বুঝবারে। কোন্ দূত পাঠালেন হস্তিনানগরে।। উত্তর গোগ্রহ যুদ্ধ কৌরব প্রধান। পাইলেন অর্জ্জুনের স্থানে অপমান।। শিবিরে আসিয়া কিবা করিল...

০২. ইন্দ্রের জন্ম, তৎকর্ত্তৃক গুরুপত্নী হরণ ও গৌতমের শাপ

দক্ষকন্যা অদিতি যে কশ্যপ গৃহিনী। পুত্রবাঞ্ছা করিয়া ভজিল শূলপাণি।। প্রত্যক্ষ হইয়া বর যাচেন শঙ্কর। মাগিল অদিতি বর করি যোড়কর।। মম গর্ভে হবে যেই সন্তান উৎপত্তি। ত্রিভুবন মধ্যে যেন হয় মহামতি।। নাগ নর সুর আদি প্রজাপতিগণ। সবে পূজা করিবেন তাহার চরণ।। স্বস্তি বলি বর তারে দেন...

০৩. রাজ্যলাভার্থ পাণ্ডবগণের পরামর্শ ও ধৌম্য-দ্বিজকে হস্তিনায় প্রেরণ

বৈশম্পায়ন বলেন, শুন জন্মেজয়। বিরাট-নগরে পঞ্চ পাণ্ডুর তনয়।। অজ্ঞাতে হইয়া মুক্ত মনে আনন্দিত। সুহৃদ বান্ধব সহ হইল মিলিত।। অভিমন্যু-বিবাহ-উৎসব দিনান্তরে। রজনী বঞ্চিয়া সুখে মহাসমাদরে। প্রাতঃকালে বসিলেন বিরাট-সভায়।। শত সূর্য্য, শত চন্দ্র, যেন শোভা পায়।। দিব্য সিংহাসনে...

০৪. কুরুসভাতে ধৌম্যের প্রবেশ ও কুরুদের প্রতি কথন

মুনি বলিলেন শুন তবে জন্মেজয়। কুরুসভা মধ্যে গেলা ধৌম্য মহাশয়।। সভায় বসিয়া আছে কৌরবের পতি। সুহৃদ অমাত্য বন্ধুগণের সংহতি।। শত ভাই কুরুবংশ রাধাপুত্র আর। ভীষ্ম দ্রোণ আর গুরুর কুমার।। ধৃতরাষ্ট্র বিদুর অমাত্য যত জন। সভা করি বসিয়াছে কৌরব নন্দন।। হেনকালে কহে গিয়া ধৌম্য তপোধন।...

০৫. বৃক রাজার উপাখ্যান

সূর্য্যবংশে বৃক নামে ছিল নরপতি। মহাধর্ম্মশীল রাজা জগতে সুখ্যাতি।। সুমতি কুমতি তার যুগল বনিতা। কোশলনন্দিনী দোঁহে মাতা পতিব্রতা।। যুবাকাল গেল তবু পুত্র না হইল। পুত্রবাঞ্ছা করি দোঁহে স্বামীরে কহিল।। কত দিনান্তরে বিভাণ্ডক তপোধন। অয্যোধ্যায় করিলেন শুভ আগমন।। ভার্য্যা সহ...

০৬. ধৃতরাষ্ট্রের প্রতি বিদুরের নীতি উপদেশ

কহেন বৈশম্পায়ন, শুনহ রাজন। সভা হৈতে উঠি যদি গেল দুর্য্যোধন।। কারো বাক্য না শুনিল কুরু কুলাঙ্গার। অধোমুখ হৈয়া তথা রহে দণ্ড চার।। ভীষ্ম দ্রোণ কৃপ আদি যত সভাজন। সভা হৈতে উঠি সবে চলিল তখন।। অদৃষ্ট মানিয়া সবে গেল নিজ স্থান। বিদুর বলেন, ধৃতরাষ্ট্র বিদ্যমান।। কুলক্ষয় হেতু...

০৭. বলি বামনোপাখ্যান

তবে ধৌম্য কহে, শুন অন্বিকা-নন্দন। কহিব অপূর্ব্ব কথা, করহ শ্রবণ।। আদি দৈত্য হিরণ্যকশিপু হিরণ্যাক্ষ। মহাবলী প্রতাপে পাবক-সমকক্ষ।। দিতির গর্ভেতে জাত কশ্যপ-ঔরসে। জগতের মধ্যে দুষ্ট হইল বিশেষে।। হিরণ্যকশিপু পুত্র বিখ্যাত জগতে। সর্ব্ব শাস্ত্র বিচক্ষণ প্রহ্লাদ নামেতে।। তার...

০৮. অদিতির তপস্যা ও বিষ্ণুর স্তব

হৃদে বিচারিল তবে দেবের জননী। উপায় না দেখি আর বিনা চক্রপাণি।। সংসারের হর্ত্তা কর্ত্তা দেব নারায়ণ। বিশ্বস্রষ্টা পোষ্টা তিনি সংহার কারণ।। তাঁহা বিনা এ বিপদে কে করিবে ত্রাণ। তিনি ভক্তজনে কৃপা করেন প্রদান।। বিনা তপে তুষ্ট নহিবেন ভগবান। ভাবিয়া ক্ষীরোদকূলে করিল প্রস্থান।।...

০৯. ধৃতরাষ্ট্র কৃর্ত্তৃক পাণ্ডবগণের নিকটে সঞ্জয়কে প্রেরণ

জন্মেজয় জিজ্ঞাসিল কহ মুনিরাজ। অতঃপর কি করিল অন্ধ-মহারাজ।। মুনি বলে, নরপতি শুন একমনে। কারো বাক্য দুর্য্যোধন না শুনিল কাণে।। তাহাতে বিরক্ত হয়ে অন্ধ নৃপবর। সঞ্জয়ের প্রতি তবে কহেন সত্বর।। দেখিলে সঞ্জয় দুর্য্যোধনের দুষ্টতা। না শুনিল না মানিল মহতের কথা।। সে কারণে যাহ তুমি...

১০. বাতাপি পক্ষীর ইতিহাস

অর্জ্জুন কহেন, শুন পূর্ব্বের কাহিনী। তপস্যা করিতে যবে গেল খগমণি।। করিয়া কঠোর তপ বিষ্ণু আরাধিল। মনোনীত বর পেয়ে নিবর্ত্তি আসিল।। ঋষ্যমূক পর্ব্বতেতে আসে খগেশ্বর। ঋষ্য নামে রাজা সেই গিরির ঈশ্বর।। তার ভার্য্যা রূপবতী পরমা সুন্দরী। সদা স্বামীসেবা করে পুত্র বাঞ্ছা করি।।...

১১. দুর্য্যোধনের নিমন্ত্রণে ‍রাজগণের আগমন ও যুদ্ধসজ্জা

রাজা জন্মজয় মুনিবরে জিজ্ঞাসিল। পরে কহ মুনি আর কি প্রসঙ্গ হৈল।। পাণ্ডবের রণে আসে কত বীরগণ। কত সৈন্য সহ সাজে নিজে দুর্য্যোধন।। মহা মহা বীরগণ কৌরব সহায়। অল্প সৈন্য বলহীন পাণ্ডুর তনয়।। কেবল সহায় মাত্র দেব নারায়ণ। ব্রহ্মার সহায় যথা অদিতি নন্দন।। পাণ্ডবের পক্ষমাত্র...

১২. কুরুক্ষেত্রে যুদ্ধসজ্জা করিতে যুধিষ্ঠিরের অনুমতি দান ও কুরুক্ষেত্রের উৎপত্তির কথা

জন্মেজয় কহে, কহ শুনি তপোধন। অতঃপর কি করিল ভাই পঞ্চ জন।। হেথা দুর্য্যোধন রাজা করিল সাজন। তবে কিবা করিলেন পাণ্ডুর নন্দন।। কোন্ কোন্ রাজা হৈল সহায় তাঁহার। কহ শুনি মুনিবর করিয়া বিস্তার।। মুনি বলে, শুন নৃপবর জন্মেজয়। হৃদয়ে চিন্তিলা তবে ধর্ম্মের তনয়।। নিশ্চয় হইবে যুদ্ধ, না...

১৩. শ্রীকৃষ্ণের নিকট দুর্য্যোধন কর্ত্তৃক উলূককে দূতরূপে প্রেরণের মন্ত্রণা

মুনি বলে, শুন শুন রাজা জন্মেজয়। তবে দুর্য্যোধন রাজা চিন্তিল হৃদয়।। দ্বারকা গেলেন কৃষ্ণ, পেয়ে সমাচার। বরিবারে দূত পাঠাইল আগুসার।। গোবিন্দেরে লিখিলেন সব বিবরণ। কৌরব পাণ্ডবে হবে ঘোরতর রণ।। উভয় কুলের হিত কুটুম্ব আপনি। সে কারণে অগ্রে তোমা বরিলাম আমি।। মহারণে হবে তুমি আমার...

১৪. দ্বারকায় শ্রীকৃষ্ণের নিকট উলূকের গমন

জন্মেজয় জিজ্ঞাসিল, কহ তপোধন। অতঃপর কি করিল কুরুর নন্দন।। তবে দ্বারকায় দূত গেল কোন্ জন। দূত মুখে শুনি কিবা নহে নারায়ণ।। বিবরিয়া আমারে বলহ মুনিবর। শুনিয়া তোমার মুখে জুড়াক অন্তর।। মুনি বলে, শুন শুন নৃপ জন্মেজয়। উলূকেরে পাঠাইল কুরু মহাশয়।। দুর্য্যোধন আদেশেতে যায় অনুচর।...

১৫. উলূকের পত্যাবর্ত্তন ও দুয্যোধনের দ্বারকা গমন

দূত গিয়া দুর্য্যোধনে কহিল বারতা। আপনি বরিতে কৃষ্ণে যাহ তুমি তথা।। আপনি অর্জ্জুন আসি বরিবে কৃষ্ণেরে। সে কারণে নারায়ণ কহিলা আমারে।। প্রথমে আমারে আসি যে জন বরিবে। তার পক্ষ অবশ্যই মোরে হতে হবে।। সমান সম্বন্ধ মম কুরু পাণ্ডুগণ। দুই কুল হিত আমি চিন্তি অনুক্ষণ।। আর যে কহিল,...

১৬. নারায়ণী সেনা লইয়া দুর্য্যোধনের হস্তিনায় প্রত্যাগমন

নারায়ণী সেনা লয়ে গেল দুর্য্যোধন। নানাবাদ্য কোলাহলে মহা হৃষ্টমন।। পথে শল্যরাজা সহ হৈল দরশন। তাঁহার সহিত গিয়া করিল মিলন।। শল্যেরে সম্ভাষ করি কহে দুর্য্যোধন। যুদ্ধ হেতু তোমা আমি করিনু বরণ।। শল্য বলে, যেই আজ্ঞা তব মহাশয়। তোমার স্বপক্ষ আমি হইব নিশ্চয়।। কিন্তু পাণ্ডুপুত্রগণ...

১৭. অর্জ্জুনের মনোদুঃখ শ্রীকৃষ্ণের প্রবোধবাক্য

নারায়ণী সেনা কৃষ্ণ দিল দুর্য্যোধনে। দেখিয়া হইল দুঃখ অর্জ্জুনের মনে।। অর্জ্জুনের মন বুঝি কহেন শ্রীপতি। কি হেতু হইলে সখা তুমি দুঃখমতি।। নারায়ণী সেনা যত দিলাম উহারে। সবে হত হইবেক তোমার প্রহারে।। পূর্ব্বের কাহিনী কহি শুন দিয়া মন। এক দিন মোর পাশে কহে পিতৃগণ।। বংশের তিলক...

১৮. শ্রীকৃষ্ণ ও যুধিষ্ঠিরের যুক্তি ও নমুচি দানবের উপাখ্যান

তবে জন্মেজয় রাজা জিজ্ঞাসে মুনিরে। কহ শুনি, কি প্রসঙ্গ হৈল তদন্তরে।। পাণ্ডবের দূত হয়ে দেব জগৎপতি। কিরূপে বুঝাইলেন কৌরবের প্রতি।। কৃষ্ণের বচন নাহি শুনে দুর্য্যোধন। কিরূপে ভারতযুদ্ধ হৈল আরম্ভণ।। কহিবে সে সব কথা করিয়া বিস্তার। মুনি বলে, শুন পরীক্ষিতের কুমার।। পাণ্ডব-সভায়...

১৯. শ্রীকৃষ্ণের হস্তিনায় আগমণ সংবাদে কৌরবগণের পরামর্শ

মুনি বলে, শুন কুরুবংশ চূড়ামণি। বিদুর আসিয়া অন্ধে কহেন কাহিনী।। হস্তিনায় আসিবেন আপনি শ্রীপতি। দুর্য্যোধনে বুঝাইতে ধর্মশাস্ত্র নীতি।। সকল মঙ্গল রাজা হইবে তোমার। সে কারণে শ্রীগোবিন্দ করে আগুসার।। তোমার পূর্ব্বের ধর্ম্ম হইল উদয়। সম্প্রীতি করিল কৃষ্ণ, হেন মনে লয়।। সাবধানে...

২০. হস্তিনা যাইতে পথে প্রজাগণ কর্ত্তৃক শ্রীকৃষ্ণের স্তব

সুসজ্জ হইয়া হরি,           রথে আরোহণ করি, হস্তিনায় করেন গমন। নানাবিধ বাদ্য বাজে,           কেহ অশ্বে কেহ গজে, সঙ্গ চতুরঙ্গ সৈন্যগণ।। বিরাট নগর হরি,           তরিলা সে কান্তিপুরী, বামে করি মগধের দেশ। কাঞ্চন নগর দিয়া,           কাশীরাজ্য এড়াইয়া, বৃকদেশে আসে হৃষীকেশ।।...