২১. অর্জ্জুনের দশ নামের কারণ ও গান্ধারী সহ কুন্তীর শিব পূজা লইয়া বিরোধ

অর্জ্জুন বলেন, শুন বিরাট-নন্দন। দশ নাম-হেতু তোমা বলিব এখন।। হস্তিনা নগরে পূর্ব্বে ছিলাম যখন। আমার জননী পূজা করে পঞ্চানন।। স্বয়ম্ভূ… Read more ২১. অর্জ্জুনের দশ নামের কারণ ও গান্ধারী সহ কুন্তীর শিব পূজা লইয়া বিরোধ

২২. অর্জ্জুনের বীভৎসু ও অন্যান্য নামের বিবরণ

পার্থ বলিলেন, শুন বিরাট-নন্দন। কহি এবে আর নাম যাহার কারণ।। বিজয় বলিয়া ডাকে সকলে আমারে। বিজয় করিয়া আসি, যাই যথাকারে।।… Read more ২২. অর্জ্জুনের বীভৎসু ও অন্যান্য নামের বিবরণ

২৩. অর্জ্জুনের অবশিষ্ট নামের ও ক্লীবত্বের বিবরণ

পার্থ বলিলেন, শুন বিরাট কুমার। যেই হেতু যেই নাম, হইল আমার।। দুই ভুজে ধনু আমি ধরি সমান। সমান প্রয়োগ অস্ত্র,… Read more ২৩. অর্জ্জুনের অবশিষ্ট নামের ও ক্লীবত্বের বিবরণ

২৪. অর্জ্জুনের রণসজ্জা

তবে পার্থ মায়ারথ করেন স্মরণ। অগ্নিদত্ত কপিধ্বজ, শ্বেত অশ্বগণ।। পার্থ চিন্তা করামাত্র আসে সেইক্ষণ। কনক রচিত বিশ্বকর্ম্মার গঠন।। উত্তরের রথ… Read more ২৪. অর্জ্জুনের রণসজ্জা

২৫. দ্রোণের প্রতি দুর্য্যোধনের শ্লেষোক্তি

দ্রোণের এতেক বাক্য শুনি দুর্য্যোধন। ক্রুদ্ধ হয়ে ভীষ্মে চাহি বলিছে বচন।। পুনঃ পুনঃ মোর প্রতি কহেন এ কথা। পাণ্ডবের পক্ষ… Read more ২৫. দ্রোণের প্রতি দুর্য্যোধনের শ্লেষোক্তি

২৮. অশ্বত্থামা কর্ত্তৃক কর্ণকে র্ভৎসনা

মাতুলের বচনান্তে অশ্বত্থামা বলে। শরীর জ্বলিছে সূর্য্যপুত্র-বাক্যজালে।। গবী নাহি লই, নাহি করি কোন কার্য্য। সীমান্ত না হই, নাহি যাই নিজ… Read more ২৮. অশ্বত্থামা কর্ত্তৃক কর্ণকে র্ভৎসনা

২৯. দ্রোণের সহিত কর্ণের বাগবিতণ্ডা ও ভীষ্ম কর্ত্তৃক সান্ত্বনা

এইরূপে দুই মুখে শুনি কটূত্তর। ক্রোধমুখে কহে তবে কর্ণ ধনুর্দ্ধর।। জানিয়াছি আমি তোমা সবাকার মতি। ভয়েতে পাণ্ডবগণে করহ ভকতি।। উদর… Read more ২৯. দ্রোণের সহিত কর্ণের বাগবিতণ্ডা ও ভীষ্ম কর্ত্তৃক সান্ত্বনা

৩১. অর্জ্জুনের যুদ্ধে আগমন ও গোধন মোচন

হেনকালে উপনীত ইন্দ্রের নন্দন। গর্জ্জয়ে বানরধ্বজ শ্বেত অশ্বগণ।। এক ক্রোশ দূরে দৃষ্টি করিয়া তখন। বৈরাটীর প্রতি পার্থ বলেন বচন।। চারিভিতে… Read more ৩১. অর্জ্জুনের যুদ্ধে আগমন ও গোধন মোচন

৩২. অর্জ্জুন কর্ত্তৃক উত্তরকে কুরুসৈন্যের পরিচয় প্রদান

উত্তর বলিল, দেব কহিবে আমারে। কোন্ কোন্ যোদ্ধা এই আসিল সমরে।। পার্থ কহিলেন, দেখ বিরাট-কুমার। সুবর্ণের বেদী শোভে রথধ্বজে যাঁর।।… Read more ৩২. অর্জ্জুন কর্ত্তৃক উত্তরকে কুরুসৈন্যের পরিচয় প্রদান

৩৩. অর্জ্জুনের সহিত কর্ণের সংগ্রাম ও পলায়ন

হেনমতে যত রথ রথী মহাবীরে। একে একে দেখালেন অর্জ্জুন উত্তরে।। পুনরপি উত্তরেরে কহে মহামতি। কর্ণের সম্মুখে রথ লহ শীঘ্রগতি।। আকাশ… Read more ৩৩. অর্জ্জুনের সহিত কর্ণের সংগ্রাম ও পলায়ন

৩৪. সংগ্রামস্থলে দেবগণের আগমন

একা পার্থ মহা আর্ত্ত করিল কৌরবে। দেখিবারে সুরাপুর আসিলেন সবে।। হংস-পৃষ্ঠে অষ্ট দৃষ্টে চাহে প্রজাপতি। বৃষারূঢ় শশীচূড় ভূষণ বিভূতি।। গজস্কন্ধে… Read more ৩৪. সংগ্রামস্থলে দেবগণের আগমন

৩৫. অর্জ্জুনের সহিত কৃপাচার্য্যের যুদ্ধ ও পলায়ন

অর্জ্জুনের বাক্য শুনি বিরাট নন্দন। বায়ু বেগে নিল রথ কৃপের সদন।। প্রদক্ষিণ করি ক্রমে সব সৈন্যগণ। মৎস্য যেন জালমধ্যে করিল… Read more ৩৫. অর্জ্জুনের সহিত কৃপাচার্য্যের যুদ্ধ ও পলায়ন

৩৮. কর্ণের পুনর্ব্বার যুদ্ধ ও পলায়ন

রণমধ্যে অশ্বত্থামা নিরস্ত্র হইল। দেখিয়া সূর্য্যের পুত্র ক্রোধেতে ধাইল।। বিজয় নামেতে ধনু ভৃগুপতি দত্ত। আকর্ণ পূরিয়া ধায় যেন গজ মত্ত।।… Read more ৩৮. কর্ণের পুনর্ব্বার যুদ্ধ ও পলায়ন