১২১. ভীম, অর্জ্জুন, নকুল ও সহদেবের অন্বেষেণে দ্রৌপদীর গমন

অনেক বিলম্ব দেখি ধর্ম্ম নরপতি। চিন্তাযুক্ত কহিলেন দ্রৌপদীর প্রতি।। শুনহ আমার বাক্য দ্রৌপদী সুন্দরী। শ্রীহরি স্মরণ করি আন গিয়া বারি।।… Read more ১২১. ভীম, অর্জ্জুন, নকুল ও সহদেবের অন্বেষেণে দ্রৌপদীর গমন

১২২. ভ্রাতৃগণ ও দ্রৌপদীর অন্বেষণে রাজা যুধিষ্ঠিরের গমন

এখানে আশ্রমে বসি রাজা যুধিষ্ঠির। সবার বিলম্ব দেখি হলেন অস্থির।। কোথা ভীম ধনঞ্জয় মাদ্রীর তনয়। তোমা সবা না দেখিয়া প্রাণ… Read more ১২২. ভ্রাতৃগণ ও দ্রৌপদীর অন্বেষণে রাজা যুধিষ্ঠিরের গমন

১২৪. যুধিষ্ঠিরের প্রতি ধর্ম্মের ছলনা

প্রশ্নের উত্তর শুনি ধর্ম্ম মহাশয়। পুত্র প্রতি কন হৈয়া অন্তরে সদয়।। ছদ্মরূপী দেবতা আমি জেন পরিচয়। বুঝিনু তুমি যে হও… Read more ১২৪. যুধিষ্ঠিরের প্রতি ধর্ম্মের ছলনা

১২৫. ধর্ম্মের নিকট যুধিষ্ঠিরের বরলাভ ও কৃষ্ণাসহ চারি ভ্রাতার পুনর্জ্জীবন প্রাপ্তি

শুনিয়া রাজার বাণী ধর্ম্ম মহাশয়। আমি তব পিতা, বলি দেন পরিচয়।। তব ধর্ম্ম জানিবারে করিয়া মনন। এই সরোবর আমি করেছি… Read more ১২৫. ধর্ম্মের নিকট যুধিষ্ঠিরের বরলাভ ও কৃষ্ণাসহ চারি ভ্রাতার পুনর্জ্জীবন প্রাপ্তি

১২৬. ব্যাসদেবের আগমন এবং পাণ্ডবগণের অজ্ঞাতবাসের পরামর্শ

পরদিন প্রাতঃকালে উঠি ছয় জন। কৃষ্ণ কৃষ্ণ বলি সবে ডাকে ঘনে ঘন।। হেনকালে আসিলেন ব্যাস তপোধন। প্রণমিয়া নরপতি করে নিবেদন।।… Read more ১২৬. ব্যাসদেবের আগমন এবং পাণ্ডবগণের অজ্ঞাতবাসের পরামর্শ