ওগো জ্যান্তে মরা, তা কি পারবি তোরা
                                        সে প্রেম-সাধনে।
প্রেমে কিশোর কিশোরী মজেছে দুজনে।।
                    কামের কামী নিষ্কামী হয়
                    কামরূপে কামশক্তির আশ্রয়
                    তার সন্ধি জানা বড়ই সে নয়
                                        জীবের মানে।।
                    পাইলে রে অরুণ-কিরণ
                    কমলিনী প্রফুল্ল বদন
                    অমনি গতি সে দলে
                                        চলে আকর্ষণে।।
                    সমর্থা আর সাম্বু রসের মান
                    উভয় জানে সমানে সমান
                    লালন ফকির ফাঁকে ফেরে
                                        কঠিন দেখে শুনে।।

————-
লালন-গীতিকা, পৃ. ১২৮
গানটির অন্তমিলে ত্রুটি আছে। আমরা ধুয়ার ১ম সঞ্চারীর ৪র্থ ছন্দের খাতিরে পুনর্বিন্যাস করেছি। গ্রন্থে চরণদুটি এভাবে আছে – “ওগো জ্যান্তে মরা, সে প্রেম-সাধনে/ তা কি পারবি তোরা?”
এবং “অমনি গতি সে দলে/ আকর্ষণে চলে।”