০৯.সাম্প্রয়োগিক

৬.০১ প্রমাণ, কাল ও ভাবানুসারে রতের ব্যবস্থাপন

ষষ্ঠ ভাগ – প্রথম অধ্যায়  ‘স্ত্রীসাধন করিবে—বলা হইয়াছে; কিন্তু স্ত্রীসাধন-ব্যাপার শত্রুরাজ্যবিজয়-ব্যাপার অপেক্ষা কোন অংশে ন্যুন নহে; সুতরাং শাস্ত্রজ্ঞানহীন ব্যক্তির পক্ষে স্ত্রীসাধন নিতান্ত অসম্ভব ব্যাপার বলিয়া বোধ হয়। অতএব তাহার তত্ত্বনির্ধারণোপায় পূর্বে বলিয়া সাম্প্রয়োগিক তন্ত্রের কীর্তন করাই যুক্তিসঙ্গত। সাম্প্রয়োগিক তন্ত্র-পাঠে সুরত-ব্যাপারের প্রকৃত তথ্যজ্ঞান জন্মিলে যথাযথভাবে আলিঙ্গন প্রভৃতির প্রয়োগ অনুরাগার্থই হইবে। এই জন্য এই অধ্যায়ে প্রমাণ, কাল […]

৬.০২ আলিঙ্গনবিচার

ষষ্ঠ ভাগ – দ্বিতীয় অধ্যায় পূর্বাধ্যায়ে রতব্যাপারের ব্যবস্থাপন করা হইয়াছে। সম্প্রতি উপচারনির্ণয়ার্থ তাহার অঙ্গভূত চতুঃষষ্টিপ্রকার উপাঙ্গ নির্দেশ করিতেছেন— ‘পূর্বাচার্যগণ সম্প্রয়োগের অঙ্গ চতুঃষষ্টিপ্রকার বলিয়া থাকেন; কারণ, সম্প্রয়োগেই চতুঃষষ্টিপ্রকারময়।।’১।। আচার্যগণ বলিয়া থাকেন, ঐপ্রকার চতুঃষষ্টি প্রকরণ অবলম্বন করিয়া এই কামশাস্ত্রের প্রবৃত্তি বলিয়া কামশাস্ত্রও চতুঃষষ্টিপ্রকার। এই শাস্ত্রের সহিত চতুঃষষ্টির সম্বন্ধ থাকায়, শাস্ত্রের চতুঃষষ্টিপ্রকরণাত্মকতা নিতান্ত অনুপপন্ন নহে। ‘কলাও চতুঃষষ্টিপ্রকার। সেগুলিও […]

৬.০৩ চুম্বন-বিকল্প

ষষ্ঠ ভাগ – তৃতীয় অধ্যায়  পূর্বোক্তপ্রকারে আলিঙ্গন করিয়া চুম্বনাদির প্রয়োগ করিবে। তাহার মধ্যে প্রথমেই চুম্বন, কি নখচ্ছেদ্য, কিংবা দশনচ্ছেদ্য; অথবা পরেই চুম্বন প্রযোজ্য? এইরূপ সন্দেহ হইতে পারে। সেই সন্দেহনিরাকরণার্থ বলিতেছেন যে, উহার মধ্যে অগ্রপশ্চাৎকর্তব্যতা নাই। ‘চুম্বন ও নখ-দশনচ্ছেদ্যের অগ্রপশ্চাৎকর্তব্যতা কিছুই নাই; কারণ, তাহা অনুরাগবশেই প্রযোজ্য হইয়া থাকে। তবে যন্ত্রযোগের পূর্বেই এগুলির প্রধানতঃ প্রয়োগ করা আবশ্যক। […]

৬.০৪ নখরদনজাতি

ষষ্ঠ ভাগ – চতুর্থ অধ্যায় পুর্বকথিতানুরূপ চুম্বনদ্বারা নায়িকা নায়কের রাগদীপন হইবে। সেই বর্ধিত অনুরাগকে আরও দ্বিগুণ বর্ধিত করিবার জন্য নখরদনচ্ছেদ্য প্রয়োগ করা উচিত। সেই জন্য নখরদনচ্ছেদ্যজাতি নামক চতুর্থ অধ্যায় আরম্ভ করা যাইতেছে।–নখরদনচ্ছেদ্যজাতি শব্দের অর্থ নখবিলেখনপ্রকার। অর্থাৎ কি প্রকারে কোথায় নখবিলেখন করিলে রাগের বৃদ্ধি হইবে তাহাই এই অধ্যায়ে বলা যাইতেছে— নখবিলেখন কি? ‘রাগের বৃদ্ধি হইলে, নখদ্বারা […]

৬.০৫ দশনচ্ছেদ্যবিধি ও দৈশিক উপচার নির্ণয়

ষষ্ঠ ভাগ – পঞ্চম অধ্যায় পূর্ব্ব অধ্যায়ে নখচ্ছেদ্যনিরূপণার্থ উপক্রম করিয়া তদধিক দশনচ্ছেদ্যও নির্ণয় করিবার জন্য প্রকরাণানুসারে যথাসম্ভব কথিত হইয়াছে, কিন্তু সেগুলি কাল ও দেশের প্রবৃত্তির অনুরূপ না হইলে রাগবর্দ্ধনের কারণ হয় না; সুতরাং এ অধ্যায়ে দেশপ্রবৃত্তির অনুরূপ উপচার নির্ণয়ার্থ উপক্রম করিতেছেন। এ অধ্যায়ে প্রকরণদ্বয় কথিত হইবে। তন্মধ্যে পূর্বে  চ্ছেদ্যের স্বরূপ, বিষয় ও কাল নির্দিষ্ট হইয়া […]

৬.০৬ সম্বেশন-প্রকার ও চিত্ররত (স্ত্রী-পুরুষের দৈহিক মিলন)

ষষ্ঠ ভাগ – ষষ্ঠ অধ্যায় পূর্বাধ্যায়ে দেশপ্রকৃতি-সাত্ম্যানুসারে আলিঙ্গনাদি-উপচার-সকল কথিত হইয়াছে; সুতরাং তদ্দ্বারা অনুরাগ বৃদ্ধি হইলে নায়ক-নায়িকা সম্বেশনের যোগ্য হইবে। তাহার প্রারম্ভে কদাচিৎ বিশেষভাবেও সম্বেশনে প্রবৃত্তি হইয়া থাকে। অতএব চিত্ররতও এই অধ্যায়ে কথিত হইবে। এই অধ্যায়ে সম্বেশনপ্রকার এবং চিত্ররত, এই দুইটি প্রকরণ থাকিবে। ‘রাগকালে মৃগী, উচ্চরত হইলে জঘন বিশালভাবে ফেলিয়া রাখিয়া সম্বিষ্ট হইবে।।’১।। –সাধনের উচ্ছ্রায়তা যৎকালে […]

৬.০৭ প্রহণনপ্রয়োগ ও তদ্‌যুক্ত সীৎকৃতক্রম

ষষ্ঠ ভাগ – সপ্তম অধ্যায় এইরূপে সম্বিষ্টা নায়িকার যন্ত্রযোগ হইলে, প্রধানত প্রহণনপ্রয়োগ করা বিধেয় এবং প্রহণনের প্রয়োগ করিলে, তৎপ্রভাব সীৎকৃতও হওয়া উচিত। সুতরাং প্রহণনযোগ ও সীৎকৃত অবলম্বন করিয়া দুইটি প্রকরণ আরম্ভ করা যাইতেছে। প্রহণন ত দ্বেষজনিত; তাহা কিরূপে সুরোতপযোগী হইতে পারে, তাহার বিষয় কথিত হইতেছে— ‘প্রথমত সুরতব্যাপারটি কলহসদৃশ; কারণ, স্ত্রী ও পুরুষ উভয়েই স্ব স্ব […]

৬.০৮ পুরুষায়িত (নারীর পুরুষোচিত আচরণ)

ষষ্ঠ ভাগ – অষ্টম অধ্যায় এইরূপে প্রহণনাদি ব্যাপারে আনয়ক পরিশ্রান্ত হইলে, নায়িকা পুরুষের ন্যায় আচরণ করিবে, এই কথায় পুরুষায়িত এবং তদুপযোগী বলিয়া, তদন্তর্গত পুরুষোপসৃপ্তনামক প্রকরণ বলায়, প্রকরণদ্বয়াত্মক এই অধ্যায় আরদ্ধ হইতেছে- তাহার কারণ দেখান হইতেছে- ‘নায়ক নিরন্তর কটিচালনাদির অনুষ্ঠানবশত পরিশ্রম প্রাপ্ত হইয়াছে; কিন্তু রাগের উপশম হয় নাই, নায়িকা ইহা বুঝিয়া, নায়কের অনুমতি অনুসারে নায়ককে নিচে […]

৬.০৯ ঔপরিষ্টক (মৌখিক যৌনাচার)

ষষ্ঠ ভাগ – নবম অধ্যায় পূর্বে চারিপ্রকার নায়িকার কথা বলিয়া, তদ্বিষয়ে আলিঙ্গনাদি-পুরুষায়িতান্ত সমস্ত ব্যাপার কথিত হইল। সেই স্থলেই কথিত হইয়াছে—তৃতীয়া প্রকৃতি পঞ্চমী নায়িকা, ইহা কেহ কেহ বলেন; সুতরাং তদ্বিষয়ে এখন ঔপরিষ্টক-নামক প্রকরণ আরম্ভ করা যাইতেছে। ‘তৃতীয়া প্রকৃতি দ্বিবিধ—স্ত্রীরূপিণী এবং পুরুষরূপিণী।।’১।। স্ত্রীসংস্থান—স্তনাদির উদ্গম হয় বলিয়া, সেই ক্লীবকে স্ত্রীরূপিণা এবং পুরুষসংস্থান—শ্মশ্রুলোমাদি জন্মে বলিয়া, সেই ক্লীবকে পুরুষরূপিণী তৃতীয়া […]

৬.১০ রতারম্ভ, রতাবসানিক ও প্রণয়কলহ

ষষ্ঠ ভাগ – দশম অধ্যায় এইরূপে রতব্যাপার ঔপরিষ্টকান্ত কথিত হইল। তাহার আরম্ভ ও অবসানকালে কি করিতে হইবে, তাহা বলা হয় নাই। এখন অবসর মত রতজনিত রতারম্ভাবসানিক ব্যাপার বলা হইতেছে। যদ্যপি প্রীতিবিশেষের পর রতারম্ভিক ব্যাপারের কীর্তন করা এবং এইখানে রতাবসানিক ব্যাপারের উপদেশ করা উচিত ছিল; কারণ অনুষ্ঠানক্রম সেইরূপেই ত প্রতীত হয়; তথাপি আলিঙ্গনাদিব্যাপার প্রীতিসম্বন্ধ বলিয়া, প্রীতিবিশেষের […]