২৩. দুর্দান্ত ব্যবসাদার প্রতুল বন্দ্যোপাধ্যায়

খুব দ্রুত থানার পাশ দিয়ে হাঁটছিলেন অমরনাথ। চোখের সামনে এখনও প্রতুলবাবু। কিংবা বলা যেতে পারে একটি মৃত নগ্ন শরীর, বিছানায়… Read more ২৩. দুর্দান্ত ব্যবসাদার প্রতুল বন্দ্যোপাধ্যায়

২৪. সত্যসাধন মাস্টার এসে পড়বেন

মনোরমা একটা মোড়ায় বসেছিলেন। অঞ্জলি ভেতরের দরজায় দাঁড়িয়ে। সমস্যায় পড়লেই তার হাত আঁচল তুলে ঠোঁটে চাপা দেয়। অমরনাথ তাঁর চেয়ারে।… Read more ২৪. সত্যসাধন মাস্টার এসে পড়বেন

২৮. কলকাতা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে

অমরনাথকে কলকাতা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করে নেওয়া হল। সুভাষচন্দ্ৰ যে বড় ডাক্তারের সঙ্গে অ্যাপয়েন্টমেন্ট করে রেখেছিলেন তিনিই হাসপাতালের ওই… Read more ২৮. কলকাতা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে

৩৪. দীপা অঞ্জলির দিকে তাকাল

দীপা অঞ্জলির দিকে তাকাল। কথাগুলো শেষ করে অঞ্জলি আবার রান্নাঘরে ঢুকে যাচ্ছিল। মেয়ের সঙ্গে চোখাচৌখি করার বিন্দুমাত্র বাসনা তার ছিল… Read more ৩৪. দীপা অঞ্জলির দিকে তাকাল

৩৬. ভবিষ্যৎ সম্পর্কে প্ৰচণ্ড অসহায়তাবোধ

অমরনাথের মৃত্যুর আশঙ্কায় এবং মৃত্যুর ঠিক পরে অঞ্জলি যেরকম আচরণ করছিল তা কাজ মিটে যাওয়ার পর পাল্টে গেল। ভবিষ্যৎ সম্পর্কে… Read more ৩৬. ভবিষ্যৎ সম্পর্কে প্ৰচণ্ড অসহায়তাবোধ

৩৯. সুভাষচন্দ্র এগিয়ে এলেন

সুভাষচন্দ্র এগিয়ে এলেন। তাঁর ভাবভঙ্গীতে বেশ ব্যস্ততা ফুটে উঠেছে, দীপা মা, আমরা অনেকক্ষণ তোমার জন্যে অপেক্ষা করছি। দ্যাখো, কে এসেছেন?… Read more ৩৯. সুভাষচন্দ্র এগিয়ে এলেন