অনুবাদ

তোমার ঘুমানো, জেগে-থাকা, হঠাৎ বেরিয়ে যাওয়া ঘর ছেড়ে কিংবা শীর্ণ ভিখারীর ক্ষয়া হলদে দাঁতে চোখ রাখা, কাজান্তজাকিস পড়া, স্তব্ধ মধ্যরাতে… Read more অনুবাদ

অসিত উত্থানে

চতুষ্পার্শ্বে যাচ্ছে শোনা মুহুর্মুহু পিশাচের হল্লা, ওদের শরীরে পচা মাংসের উৎকট গন্ধ, বুনো অন্ধকারে পদশব্দ এলোমেলো, ক্ষুধার্ত শকুনও পালায় সে… Read more অসিত উত্থানে

আততায়ী

বহুদিন থেকে তাকে আমি খুব চোখে চোখে রাখি, এবং সে আমাকেও। কতদিন তাকে স্তব্ধ রাতে দেখেছি নিঃশব্দে হেঁটে যেতে কী… Read more আততায়ী

আশ্চর্য

আমার সত্তায় উদ্ভাসিত রৌদ্রী একটি সকাল, অস্তিত্বের তটরেখা গুঞ্জরিত সানাইয়ের সুর ক্ষণে ক্ষণে; দাঁত মাজি, চেয়ে দেখি এইতো অদূরে উঠোনে… Read more আশ্চর্য

একজন মৃতদেহ

একজন মৃতদেহ পানপাত্রে তিনটি হীরক হেলায় দিলেন ছেড়ে। পানপাত্র থেকে আস্ত পরী তিনজন অকস্মাৎ উপচে পড়লো, কালো তরী হলো সাড়া… Read more একজন মৃতদেহ

একটি বাগান

নিশ্চয় তোমার মনে আছে একটি বাগান তুমি আর আমি খুব গোপনীয়তায় সাজিয়েছিলাম রঙ বেরঙের ফুলে। ইচ্ছে করে বাগানের নাম রাখিনি… Read more একটি বাগান

ক এখন

ক এখন একা-একা প্রতিদিন ঘুরছে শহরে। ফুটপাত ত্র্যাভেনিউ, বিপনী-বিতান, অলিগলি- কিছুই পড়ে না বাদ। কোন অলৌকিক বনস্থলী দিয়েছিলো গূঢ় ডাক… Read more ক এখন

ক-এর আঙুল থেকে

ক-এর আঙুল থেকে একটি কী পথ বহুদূরে গ্যাছে বেঁকে চিত্রবৎ, বৃক্ষশ্রেণী যেন দেবদূত, পৃথিবীর নিসর্গের বন্দনায় কেমন নিখুঁত সৌন্দর্যে এসেছে… Read more ক-এর আঙুল থেকে

কত পদচ্ছাপ

হয়তো হবে না দেখা আমাদের কোনোদিন আর, কোনোদিন শুনবো না রাত্রিময় ঝর্নার মতন কণ্ঠস্বর তার রাখবো না হাতে হাত, শুধু… Read more কত পদচ্ছাপ

কবি

শহরে হৈ হল্লা দৈনন্দিন, যানবাহনের ঢল পথে পথে, দিকে দিকে ফুৎকার, চিৎকার, চলে স্মার্ট নাটক শিল্পিত স্টেজে, হোটেলে স্বপ্নিল কনসার্ট;… Read more কবি

কাল সারারাত

কাল সারারাত আমি কবিতার সঙ্গে অতিশয় লুত্‌কা লত্‌কা করে কাটিয়ে দিয়েছি। বাতি জ্বেলে দেখেছি উত্তুঙ্গ স্তন, নাভিমূল শ্রোণী; লজ্জা ফেলে… Read more কাল সারারাত

কী কঠিন কাজ

একজন মহিলাকে বহুদিন থেকে ভালোবেসে চলেছি, যেমন মাঝি নিয়মিত নৌকো বেয়ে যায় অনুকূল আবহাওয়া কিংবা ঝড়জলে। সে কোথায় কী রকমভাবে… Read more কী কঠিন কাজ

ক্ষেত

কী আমার দখলে রয়েছে? কোন্‌ জমি আজ ফসলসজ্জিতু বলা যায়, আমারই এলাকা? কোন্‌ নদীতীর, সাঁকো কিংবা বালুচর, তমালের বন আমার… Read more ক্ষেত

খরার দুপুরে

একটি দোতলা ফ্ল্যাটে লকলকে খরার দুপুরে কিঞ্চিৎ ছায়ার লোভে দেয় হানা। পয়লা বৈশাখে। ছিলাম আমরা বসে মুখোমুখি নতুনের ডাকে অনেকেই… Read more খরার দুপুরে

ঘুড়ি

ঘুড়ি বসবাস করে নিরিবিলি বিনীত দোকানে, গৃহকোণে, খাটের নিভৃত নিচে, কিংবা খোলা ছাদে চুপচাপ বালকের স্বপ্নের মতন নির্বিবাদে। খয়েরী, সবুজ,… Read more ঘুড়ি

জয়নূলী কাক

কখন মিটিঙ ভেঙে গ্যাছে, মিটে গ্যাছে বেচা-কেনা সকল দোকানপাটে, ফলের বাজার শূন্য; ঘরে ফিরি দীর্ঘ পথ হেঁটে একা-একা, বুকের ভেতরে… Read more জয়নূলী কাক

টেলিফোন

প্রত্যহ সকাল সন্ধ্যা বসে থাকি তীব্র প্রতীক্ষায়, বস্তুত অপেক্ষমাণ আমার নিজস্ব গৃহকোণ সারা দিনমান, কান পেতে থাকি, হয়তো টেলিফোন এখুনি… Read more টেলিফোন

তখনই হঠাৎ

তোমার সান্নিধ্যে কিছুকাল অলৌকিক সরোবরে কেটেছি সাঁতার, অকস্মাৎ শেষ হলো জলকেলি, যেমন কেবল আলাপেই সাঙ্গ করেন সঙ্গীত কোনো গুণী কী… Read more তখনই হঠাৎ

তারও মন

নদীর উর্মিল বেগ পেশীতে পেশীতে; প্রতিদিন, ছুটিছাটা বাদে, নিয়মমাফিক যায় কারখানায় এবং কলের পাকে স্বেদসিক্ত ঘুরপাক খায়- যেমন দেখেছি ফিল্ম-এ… Read more তারও মন

তিরিশ বছর

তোমার কথাই ভাবি রাত্রিদিন; পল, অনুপল তোমার মুখের রেখা, চক্ষুদ্বয়, অধর, চিবুক চুলের অসিত ঝর্না, স্বর্গের স্বপ্নের মতো বুক মনে… Read more তিরিশ বছর