বর্ষার কিচেন কেয়ার

বৃষ্টি বাদলার দিনে রসুইঘরের যত্ন সবচেয়ে জরুরী। কারণ এখানে এমনিতেই পানির ছিটেফোঁটা থেকে থাকে। তার উপর পরিবেশের স্যাঁতস্যাঁতে প্রভাব দ্রুতই রান্নাঘরকে অরক্ষিত করে তুলতে পারে। তাই জেনে নিন দ্রুত কি করে রান্নাঘরকে এই বর্ষায় ফিট রাখবেন।

গ্যাস বার্নার কিংবা ওভেন

০ প্রথমেই বার্নার কিংবা ওভেন এর আশপাশ খুব ভাল করে পরিষ্কার করে নিন। এই জায়গাগুলোতে প্রতিদিন রান্নার সময় মসলা-তেল-পানির ফোঁটা নোংরা করে ফেলে। আর তাই এই অংশটা প্রথমেই পরিষ্কার করে নিন। এরপর গ্যাস বার্নার/ওভেন বন্ধ করে নিন। গরম বার্নার মুছতে যাবেন না।

০ কোনো গভীর দাগ পড়ে গেলে বেকিং পাউডার দিয়ে পেস্ট তৈরি করে সেটা ১৫-২০ মিনিট দাগ যুক্ত অংশে লাগিয়ে রাখুন। এরপর ধুয়ে ফেলুন।

০ ধোয়ার পরে সব জায়গা শুকনো কাপড় দিয়ে মুছতে ভুলবেন না।

০ বার্নারের ভেতরে ছোট্ট ফুটাগুলোতে সরু কাঠি দিয়ে খুঁচিয়ে খুঁচিয়ে পরিষ্কার করে নিন। এতে বার্নার ভাল জাল দিবে।

০ প্রতিদিন অন্তত একবার হলেও বার্নার ও ওভেন মুছে রাখুন।

০ কিচেন কেবিনেটের গায়ে তেলকালি তুলতে প্রতিদিন রান্নার পর ডিশ ওয়াশিং লিকুইড বা মাইল্ড ডিটারজেন্ট গরম জলে গুলে ক্যাবিনেটের বাইরের অংশ মুছে ফেলুন। তারপরে শুকনো কাপড় দিয়ে মুছুন। না হলে কবজা এবং ছিটকিনিতে জং ধরে যেতে পারে।

০ তেলকালির দাগ বসে গেলে পুরানো টুথব্রাশে এস্ট্রিনজেন্ট লাগিয়ে একটু সময় নিয়ে ঘষুন, দেখবেন দাগ উঠে যাবে।

০ শক্ত ব্রেসেলের ব্রাশ ব্যবহার করবেন না। এতে কেবিনেটের ঝকঝকে ভাবটা চলে যাবে।

০ দাগ তুলতে বেকিং সোডা ও পানি মিশিয়ে পেস্ট তৈরি করে তা লাগিয়ে রাখুন দাগের জায়গাতে। কিছুক্ষণ পরে ধুয়ে ফেলুন এবং শুকনো কাপড় দিয়ে মুছে রাখুন।

০ বর্ষার মৌসুমে খেয়াল রাখুন সবগুলো পানি চলাচলের পাইপ যেন পরিষ্কার থাকে। কোথায় পানি আটকে যাওয়ার পরিস্থিতি হলে সাথে সাথে পদক্ষেপ নেবেন।

০ ঘরের মেঝে পরিষ্কার রাখতে মেঝে মুছে রাখুন সব সময়। সাথে ফ্লোর ক্লিনার ব্যবহার করুন। কিংবা এন্টিসেপটিক ও ব্যবহার করতে পারেন।

০ এসময় বাইরে পানির ছড়াছড়ি থাকায় পোকা মাকড়ের আবাস হয় আপনার রান্নাঘরে। তাই কিছুতেই ময়লা জমতে দিবেন না। কোথাও যেন ঘিঞ্জি তৈরি হতে না পারে। তাহলেই পোকামাকড় কম হবে।

০ রান্নাঘরের ডাস্টবিনে এসময় পলিব্যাগ ব্যবহার করতে চেষ্টা করুন।

০ কিটনাশক ছিটিয়ে রাখতে পারেন রান্নাঘরের কোণাগুলোতে। কিন্তু সাবধানে কিটনাশক ছিটাবেন। খাবার সব উপকরণ ও হাড়ি-পাতিলের উপর চাদর কিংবা কাগজ বিছিয়ে তারপর কীটনাশক স্প্রে করুন।

সূত্র: দৈনিক ইত্তেফাক, জুলাই ০৭, ২০০৯

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *