০৪৬. সূরা আহকাফ

সূরা আহ্‌কাফ বা ঘুর্ণায়মান বালুকাময় অঞ্চল - ৪৬ ৩৫ আয়াত, ৪ রুকু, মক্কী [ দয়াময়, পরম করুণাময় আল্লাহ্‌র নামে ] ভূমিকা : হা-মিম্‌ সিরিজের এটা হচ্ছে শেষ এবং সপ্তম সূরা। এর সময়কাল ও সাধারণ বিষয় বস্তুর জন্য দেখুন ৪০ নং সূরার ভূমিকা। ২১ নং আয়াতে আহ্‌কাফ [ Ahqaf ] শব্দটির উল্লেখ আছে। আহ্‌কাফ অর্থ হচ্ছে আকাঁবাকাঁ বিস্তীর্ণ বালিয়াড়ি বা বালির পাহাড় সমূহ। আ'দ জাতির আবাসস্থলের বৈশিষ্ট্য আহ্‌কাফ শব্দের সাহায্যে তুলে ধরা হয়েছে। স্থানটি হাদরামাউত এবং ইয়েমেনের সন্নিকটবর্তী : দেখুন [ ৭: ৬৫ ] আয়াত ও টিকা ১০৪০। তাদের দেশটি ছিলো উর্বর ভূমি। সম্ভবতঃ তা ছিলো তাদের উন্নত সেচপ্রণালীর ফল। কিন্তু কালের পরিক্রমায় তারা পাপে লিপ্ত হয়ে পড়ে ফলে তাদের উপরে প্রাকৃতিক দুর্যোগ পতিত হয় যার উল্লেখ আছে [ ৪৬ : ২৪-২৫] আয়াতে। এই সূরার উপদেশ হচ্ছে যদি কেউ সত্যকে প্রতিদ্বন্দ্বিতায় আহ্বান করে তবে তার হঠকারীতার উপযুক্ত জবাব দেয়া হবে এবং সত্যের যর্থাততা প্রতিপন্ন হবে। সার সংক্ষেপ : সমগ্র সৃষ্টির পিছনে স্রষ্টার নির্দ্দিষ্ট উদ্দেশ্য বিদ্যমান। সত্য এবং আল্লাহ্‌র প্রত্যাদেশ পৃথিবীতে প্রতিষ্ঠিত হবেই। যারা তার বিরোধিতা করবে তারা তাদের কৃতকর্মের দরুনই ধ্বংস হয়ে যাবে। মোমেন বান্দার বৈশিষ্ট্য হবে তার ধৈর্য্য এবং দৃঢ়তার সাথে অপেক্ষা করা। [ ৪৬ : ১-৩৫ ]।

046.001

হা-মীম। Hâ­Mîm. [These letters are one of the miracles of the Qur’ân and none but Allâh (Alone) knows their meanings]. حم Ha-meem YUSUFALI: Ha-Mim. PICKTHAL: Ha. Mim. SHAKIR: Ha Mim. KHALIFA: H. M. ০১। হা – মীম। ০২। এই কিতাবের প্রত্যাদেশ মহাপরাক্রমশালী,...

046.002

এই কিতাব পরাক্রমশালী, প্রজ্ঞাময় আল্লাহর পক্ষ থেকে অবতীর্ণ। The revelation of the Book (this Qur’ân) is from Allâh, the All-Mighty, the All-Wise. تَنْزِيلُ الْكِتَابِ مِنَ اللَّهِ الْعَزِيزِ الْحَكِيمِ Tanzeelu alkitabi mina Allahi alAAazeezi alhakeemi YUSUFALI: The...

046.003

নভোমন্ডল, ভূ-মন্ডল ও এতদুভয়ের মধ্যবর্তী সবকিছু আমি যথাযথভাবেই এবং নির্দিষ্ট সময়ের জন্যেই সৃষ্টি করেছি। আর কাফেররা যে বিষয়ে তাদেরকে সতর্ক করা হয়েছে, তা থেকে মুখ ফিরিয়ে নেয়। We created not the heavens and the earth and all that is between them except with truth, and...

046.004

বলুন, তোমরা আল্লাহ ব্যতীত যাদের পূজা কর, তাদের বিষয়ে ভেবে দেখেছ কি? দেখাও আমাকে তারা পৃথিবীতে কি সৃষ্টি করেছে? অথবা নভোমন্ডল সৃজনে তাদের কি কোন অংশ আছে? এর পূর্ববর্তী কোন কিতাব অথবা পরস্পরাগত কোন জ্ঞান আমার কাছে উপস্থিত কর, যদি তোমরা সত্যবাদী হও। Say (O Muhammad...

046.005

যে ব্যক্তি আল্লাহর পরিবর্তে এমন বস্তুর পূজা করে, যে কেয়ামত পর্যন্তও তার ডাকে সাড়া দেবে না, তার চেয়ে অধিক পথভ্রষ্ট আর কে? তারা তো তাদের পুজা সম্পর্কেও বেখবর। And who is more astray than one who calls (invokes) besides Allâh, such as will not answer him till the Day of...

046.006

যখন মানুষকে হাশরে একত্রিত করা হবে, তখন তারা তাদের শত্রু হবে এবং তাদের এবাদত অস্বীকার করবে। And when mankind are gathered (on the Day of Resurrection), they (false deities) will become enemies for them and will deny their worshipping. وَإِذَا حُشِرَ النَّاسُ كَانُوا...

046.007

যখন তাদেরকে আমার সুস্পষ্ট আয়াতসমূহ পাঠ করে শুনানো হয়, তখন সত্য আগমন করার পর কাফেররা বলে, এ তো প্রকাশ্য জাদু। And when Our Clear Verses are recited to them, the disbelievers say of the truth (this Qur’ân), when it reaches them: ”This is plain magic!” وَإِذَا تُتْلَى...

046.008

তারা কি বলে যে, রসূল একে রচনা করেছে? বলুন, যদি আমি রচনা করে থাকি, তবে তোমরা আল্লাহর শাস্তি থেকে আমাকে রক্ষা করার অধিকারী নও। তোমরা এ সম্পর্কে যা আলোচনা কর, সে বিষয়ে আল্লাহ সম্যক অবগত। আমার ও তোমাদের মধ্যে তিনি সাক্ষী হিসাবে যথেষ্ট। তিনি ক্ষমাশীল, দয়াময়। Or say...

046.009

বলুন, আমি তো কোন নতুন রসূল নই। আমি জানি না, আমার ও তোমাদের সাথে কি ব্যবহার করা হবে। আমি কেবল তারই অনুসরণ করি, যা আমার প্রতি ওহী করা হয়। আমি স্পষ্ট সতর্ক কারী বৈ নই। Say (O Muhammad SAW):”I am not a new thing among the Messengers (of Allâh) (i.e. I am not the first...

046.010

বলুন, তোমরা ভেবে দেখেছ কি, যদি এটা আল্লাহর পক্ষ থেকে হয় এবং তোমরা একে অমান্য কর এবং বনী ইসরাঈলের একজন সাক্ষী এর পক্ষে সাক্ষ্য দিয়ে এতে বিশ্বাস স্থাপন করে; আর তোমরা অহংকার কর, তবে তোমাদের চেয়ে অবিবেচক আর কে হবে? নিশ্চয় আল্লাহ অবিবেচকদেরকে পথ দেখান না। Say: ”Tell...

046.011

আর কাফেররা মুমিনদের বলতে লাগল যে, যদি এ দ্বীন ভাল হত তবে এরা আমাদেরকে পেছনে ফেলে এগিয়ে যেতে পারত না। তারা যখন এর মাধ্যমে সুপথ পায়নি, তখন শীঘ্রই বলবে, এ তো এক পুরাতন মিথ্যা। And those who disbelieve (strong and wealthy) say of those who believe (weak and poor): ”Had...

046.012

এর আগে মূসার কিতাব ছিল পথপ্রদর্শক ও রহমতস্বরূপ। আর এই কিতাব তার সমর্থক আরবী ভাষায়, যাতে যালেমদেরকে সতর্ক করে এবং সৎকর্মপরায়ণদেরকে সুসংবাদ দেয়। And before this was the Scripture of Mûsa (Moses) as a guide and a mercy. And this is a confirming Book (the Qur’ân) in the...

046.013

নিশ্চয় যারা বলে, আমাদের পালনকর্তা আল্লাহ অতঃপর অবিচল থাকে, তাদের কোন ভয় নেই এবং তারা চিন্তিত হবে না। Verily, those who say: ”Our Lord is (only) Allâh,” and thereafter Istaqâmû (i.e. stood firm and straight on the Islâmic Faith of Monotheism by abstaining from all...

046.014

তারাই জান্নাতের অধিকারী! তারা তথায় চিরকাল থাকবে। তারা যে কর্ম করত, এটা তারই প্রতিফল। Such shall be the dwellers of Paradise, abiding therein (forever), a reward for what they used to do. أُوْلَئِكَ أَصْحَابُ الْجَنَّةِ خَالِدِينَ فِيهَا جَزَاء بِمَا كَانُوا...

046.015

আমি মানুষকে তার পিতা-মাতার সাথে সদ্ব্যবহারের আদেশ দিয়েছি। তার জননী তাকে কষ্টসহকারে গর্ভে ধারণ করেছে এবং কষ্টসহকারে প্রসব করেছে। তাকে গর্ভে ধারণ করতে ও তার স্তন্য ছাড়তে লেগেছে ত্রিশ মাস। অবশেষে সে যখন শক্তি-সামর্থেøর বয়সে ও চল্লিশ বছরে পৌছেছে, তখন বলতে লাগল, হে আমার...

046.016

আমি এমন লোকদের সুকর্মগুলো কবুল করি এবং মন্দকর্মগুলো মার্জনা করি। তারা জান্নাতীদের তালিকাভুক্ত সেই সত্য ওয়াদার কারণে যা তাদেরকে দেওয়া হত। They are those from whom We shall accept the best of their deeds and overlook their evil deeds. (They shall be) among the...

046.017

আর যে ব্যক্তি তার পিতা-মাতাকে বলে, ধিক তোমাদেরকে, তোমরা কি আমাকে খবর দাও যে, আমি পুনরুত্থিত হব, অথচ আমার পূর্বে বহু লোক গত হয়ে গেছে? আর পিতা-মাতা আল্লাহর কাছে ফরিযাদ করে বলে, দুর্ভোগ তোমার তুমি বিশ্বাস স্থাপন কর। নিশ্চয় আল্লাহর ওয়াদা সত্য। তখন সে বলে, এটা তো...

046.018

তাদের পূর্বে যে সব জ্বিন ও মানুষ গত হয়েছে, তাদের মধ্যে এ ধরনের লোকদের প্রতিও শাস্তিবানী অবধারিত হয়ে গেছে। নিশ্চয় তারা ছিল ক্ষতিগ্রস্থ। They are those against whom the Word (of torment) is justified among the previous generations of jinns and mankind that have passed...

046.019

প্রত্যেকের জন্যে তাদের কৃতকর্ম অনুযায়ী বিভিন্ন স্তর রয়েছে, যাতে আল্লাহ তাদের কর্মের পূর্ণ প্রতিফল দেন। বস্তুতঃ তাদের প্রতি যুলুম করা হবে না। And for all, there will be degrees according to that which they did, that He (Allâh) may recompense them in full for their...

046.020

যেদিন কাফেরদেরকে জাহান্নামের কাছে উপস্থিত করা হবে সেদিন বলা হবে, তোমরা তোমাদের সুখ পার্থিব জীবনেই নিঃশেষ করেছ এবং সেগুলো ভোগ করেছ সুতরাং আজ তোমাদেরকে অপমানকর আযাবের শাস্তি দেয়া হবে; কারণ, তোমরা পৃথিবীতে অন্যায় ভাবে অহংকার করতে এবং তোমরা পাপাচার করতে। On the Day...