০৪১. সূরা হা-মীম সেজদাহ

সূরা হা- মীম বা সংক্ষিপ্ত অক্ষর অথবা আস্‌ - সাজ্‌দা অথবা ফুসিলত -৪১
৫৪ আয়াত , ৬ রুকু
[ দয়াময় , পরম করুণাময় আল্লাহ্‌র নামে ]
ভূমিকা : " হা-মিম " দিয়ে শুরু হয়েছে যে সব সূরা সেই শ্রেণীর সাতটি সূরার এটি দ্বিতীয় সূরা। এ সূরার শিরোনাম হা-মিম্‌। এই শিরোনাম যাতে হা-মিম শ্রেণীর সূরাগুলির নামকরণের সাথে বিভ্রান্তি না ঘটায় সে জন্য সূরাটির নাম হা-মিমের সাথে আস্‌ সাজদা যোগ করা হয়েছে। সম্পূর্ণ সূরাটির নাম হয়েছে হা-মিম ,আস্‌ সাজদা। দুটো নামকে এক সাথে সংযুক্ত করা হয়েছে কারণ সাজ্‌দা নামে আর একটি সূরা আছে [ সূরা নং ৩২ ]। দুটি শিরোনামের অসুবিধা দূর করণের জন্য অনেক সময়ে এই সূরার তিন নম্বর আয়াতে দ্রষ্টব্য "ফুসিলত" শব্দটি অনুযায়ী "ফুসিলত" নামকরণ করা হয়।
সুরা ৪০ নং এর ভূমিকায় হা-মিম শ্রেণীর সময় কাল সম্বন্ধে বলা হয়েছে। এই সূরার বিষয়বস্তু হচ্ছেঃ বিশ্বাসের এবং প্রত্যাদেশের ভিত্তি হচ্ছে আল্লাহ্‌র ক্ষমতা ও করুণা , যার ফল হচ্ছে মুত্তাকী অর্জন ও আধ্যাত্মিক শান্তি।
সার সংক্ষেপ : প্রত্যাদেশ ও বিশ্বাস কি ? এই দুয়ের প্রতি মানুষের মনোভাব কি ? এবং এই মনোভাবের পরিণতি কি ? [ ৪১ : ১ - ৩২ ]।
বিশ্বাস ও অবিশ্বাসের এবং সত্য ও মিথ্যার ফলাফল কি ? [ ৪১ : ৩৩ - ৫৪ ]।

041.001

হা-মীম। Hâ­Mîm. [These letters are one of the miracles of the Qur’ân, and none but Allâh (Alone) knows their meanings.] حم Ha-meem YUSUFALI: Ha Mim: PICKTHAL: Ha. Mim. SHAKIR: Ha Mim! KHALIFA: H. M. ০১। হা – মীম ০২। দয়াময় পরম করুণাময় আল্লাহ্‌র নিকট থেকে ৪৪৬৩,...

041.002

এটা অবতীর্ণ পরম করুণাময়, দয়ালুর পক্ষ থেকে। A revelation from Allâh, the Most Beneficent, the Most Merciful. تَنزِيلٌ مِّنَ الرَّحْمَنِ الرَّحِيمِ Tanzeelun mina alrrahmani alrraheemi YUSUFALI: A Revelation from (Allah), Most Gracious, Most Merciful;- PICKTHAL: A...

041.003

এটা কিতাব, এর আয়াতসমূহ বিশদভাবে বিবৃত আরবী কোরআনরূপে জ্ঞানী লোকদের জন্য। A Book whereof the Verses are explained in detail; A Qur’ân in Arabic for people who know. كِتَابٌ فُصِّلَتْ آيَاتُهُ قُرْآنًا عَرَبِيًّا لِّقَوْمٍ يَعْلَمُونَ Kitabun fussilat ayatuhu qur-anan...

041.004

সুসংবাদদাতা ও সতর্ককারীরূপে, অতঃপর তাদের অধিকাংশই মুখ ফিরিয়ে নিয়েছে, তারা শুনে না। Giving glad tidings [of Paradise to the one who believes in the Oneness of Allâh (i.e. Islâmic Monotheism) and fears Allâh much (abstains from all kinds of sins and evil deeds) and...

041.005

তারা বলে আপনি যে বিষয়ের দিকে আমাদের কে দাওয়াত দেন, সে বিষয়ে আমাদের অন্তর আবরণে আবৃত, আমাদের কর্ণে আছে বোঝা এবং আমাদের ও আপনার মাঝখানে আছে অন্তরাল। অতএব, আপনি আপনার কাজ করুন এবং আমরা আমাদের কাজ করি। And they say: ”Our hearts are under coverings (screened) from that to...

041.006

বলুন, আমিও তোমাদের মতই মানুষ, আমার প্রতি ওহী আসে যে, তোমাদের মাবুদ একমাত্র মাবুদ, অতএব তাঁর দিকেই সোজা হয়ে থাক এবং তাঁর কাছে ক্ষমা প্রার্থনা কর। আর মুশরিকদের জন্যে রয়েছে দুর্ভোগ, Say (O Muhammad SAW): ”I am only a human being like you. It is inspired in me that...

041.007

যারা যাকাত দেয় না এবং পরকালকে অস্বীকার করে। Those who give not the Zakât and they are disbelievers in the Hereafter. الَّذِينَ لَا يُؤْتُونَ الزَّكَاةَ وَهُم بِالْآخِرَةِ هُمْ كَافِرُونَ Allatheena la yu/toona alzzakata wahum bial-akhirati hum kafiroona YUSUFALI:...

041.008

নিশ্চয় যারা বিশ্বাস স্থাপন করে ও সৎকর্ম করে, তাদের জন্যে রয়েছে অফুরন্ত পুরস্কার। Truly, those who believe (in the Oneness of Allâh Islâmic Monotheism, and in His Messenger Muhammad SAW) and do righteous good deeds, for them will be an endless reward that will never...

041.009

বলুন, তোমরা কি সে সত্তাকে অস্বীকার কর যিনি পৃথিবী সৃষ্টি করেছেন দু’দিনে এবং তোমরা কি তাঁর সমকক্ষ স্থীর কর? তিনি তো সমগ্র বিশ্বের পালনকর্তা। Say (O Muhammad SAW): ”Do you verily disbelieve in Him Who created the earth in two Days and you set up rivals (in worship)...

041.010

তিনি পৃথিবীতে উপরিভাগে অটল পর্বতমালা স্থাপন করেছেন, তাতে কল্যাণ নিহিত রেখেছেন এবং চার দিনের মধ্যে তাতে তার খাদ্যের ব্যবস্থা করেছেন-পূর্ণ হল জিজ্ঞাসুদের জন্যে। He placed therein (i.e. the earth) firm mountains from above it, and He blessed it, and measured therein its...

041.011

অতঃপর তিনি আকাশের দিকে মনোযোগ দিলেন যা ছিল ধুম্রকুঞ্জ, অতঃপর তিনি তাকে ও পৃথিবীকে বললেন, তোমরা উভয়ে আস ইচ্ছায় অথবা অনিচ্ছায়। তারা বলল, আমরা স্বেচ্ছায় আসলাম। Then He Istawâ (rose over) towards the heaven when it was smoke, and said to it and to the earth: ”Come both...

041.012

অতঃপর তিনি আকাশমন্ডলীকে দু’দিনে সপ্ত আকাশ করে দিলেন এবং প্রত্যেক আকাশে তার আদেশ প্রেরণ করলেন। আমি নিকটবর্তী আকাশকে প্রদীপমালা দ্বারা সুশোভিত ও সংরক্ষিত করেছি। এটা পরাক্রমশালী সর্বজ্ঞ আল্লাহর ব্যবস্থাপনা। Then He completed and finished from their creation (as) seven...

041.013

অতঃপর যদি তারা মুখ ফিরিয়ে নেয়, তবে বলুন, আমি তোমাদেরকে সতর্ক করলাম এক কঠোর আযাব সম্পর্কে আদ ও সামুদের আযাবের মত। But if they turn away, then say (O Muhammad SAW): ”I have warned you of a Sâ’iqah (a destructive awful cry, torment, hit, a thunderbolt) like the Sâ’iqah...

041.014

যখন তাদের কাছে রসূলগণ এসেছিলেন সম্মুখ দিক থেকে এবং পিছন দিক থেকে এ কথা বলতে যে, তোমরা আল্লাহ ব্যতীত কারও পূজা করো না। তারা বলেছিল, আমাদের পালনকর্তা ইচ্ছা করলে অবশ্যই ফেরেশতা প্রেরণ করতেন, অতএব, আমরা তোমাদের আনীত বিষয় অমান্য করলাম। When the Messengers came to them,...

041.015

যারা ছিল আদ, তারা পৃথিবীতে অযথা অহংকার করল এবং বলল, আমাদের অপেক্ষা অধিক শক্তিধর কে? তারা কি লক্ষ্য করেনি যে, যে আল্লাহ তাদেরকে সৃষ্টি করেছেন, তিনি তাদের অপেক্ষা অধিক শক্তিধর ? বস্তুতঃ তারা আমার নিদর্শনাবলী অস্বীকার করত। As for ’Ad, they were arrogant in the land...

041.016

অতঃপর আমি তাদেরকে পার্থিব জীবনে লাঞ্ছনার আযাব আস্বাদন করানোর জন্যে তাদের উপর প্রেরণ করলাম ঝঞ্ঝাবায়ু বেশ কতিপয় অশুভ দিনে। আর পরকালের আযাব তো আরও লাঞ্ছনাকর এমতাবস্থায় যে, তারা সাহায্যপ্রাপ্ত হবে না। So We sent upon them furious wind in days of evil omen (for them)...

041.017

আর যারা সামূদ, আমি তাদেরকে প্রদর্শন করেছিলাম, অতঃপর তারা সৎপথের পরিবর্তে অন্ধ থাকাই পছন্দ করল। অতঃপর তাদের কৃতকর্মের কারণে তাদেরকে অবমাননাকর আযাবের বিপদ এসে ধৃত করল। And as for Thamûd, We showed and made clear to them the Path of Truth (Islâmic Monotheism) through Our...

041.018

যারা বিশ্বাস স্থাপন করেছিল ও সাবধানে চলত, আমি তাদেরকে উদ্ধার করলাম। And We saved those who believed and used to fear Allâh, keep their duty to Him and avoid evil. وَنَجَّيْنَا الَّذِينَ آمَنُوا وَكَانُوا يَتَّقُونَ Wanajjayna allatheena amanoo wakanoo yattaqoona...

041.019

যেদিন আল্লাহর শত্রুদেরকে অগ্নিকুন্ডের দিকে ঠেলে নেওয়া হবে। এবং ওদের বিন্যস্ত করা হবে বিভিন্ন দলে। And (remember) the Day that the enemies of Allâh will be gathered to the Fire, so they will be collected there (the first and the last). وَيَوْمَ يُحْشَرُ أَعْدَاء...

041.020

তারা যখন জাহান্নামের কাছে পৌঁছাবে, তখন তাদের কান, চক্ষু ও ত্বক তাদের কর্ম সম্পর্কে সাক্ষ্য দেবে। Till, when they reach it (Hell-fire), their hearing (ears) and their eyes, and their skins will testify against them as to what they used to do. حَتَّى إِذَا مَا جَاؤُوهَا...