০২৯. সূরা আনকাবুত

সূরা আনকাবুত বা মাকড়সা - ২৯
৬৯ আয়াত, ৭ রুকু, মক্কী
[ দয়াময়, পরম করুণাময় আল্লাহ্‌র নামে ]
ভূমিকা : সূরা নং ১৭ থেকে সূরার যে শ্রেণী বিভাগ শুরু হয়েছে এই সূরাটি শ্রেণীর সর্বশেষ সূরা। এই শ্রেণী বিভাগে আলোচনা করা হয়েছে প্রতিটি মানুষের আত্মিক ক্রমোন্নতিকে স্বতন্ত্রভাবে , বিশেষ ভাবে উদাহরণ স্থাপন করা হয়েছে মহান নবী রসুলদের, যাদের আল্লাহ্‌ এই বিরাট কাজের জন্য প্রস্তুত করে নেন। তাদের প্রতি অর্পিত দায়িত্ব এবং প্রত্যাদেশ ছিলো যুগোপযোগী [ দেখুন সূরা ১৭ এর ভূমিকা ]। সূরা ২৬ থেকে যে উপশ্রেণী শুরু হয়েছে এই সূরাটি সেই উপশ্রেণীরও শেষ সূরা , যেখানে ধর্মীয় ইতিহাসে আধ্যাত্মিক আলোর প্রভাব সম্বন্ধে আলোচনা করা হয়েছে [ দেখুন সূরা ২৬ এর ভূমিকা ]।
পূর্বের সূরাটি শেষ করা 'Ma'ad' মতবাদ বা মানুষের চূড়ান্ত প্রত্যাবর্তন আল্লাহ্‌র নিকট এই মতবাদের উল্লেখের মাধ্যমে। এই মতবাদের আরও সম্প্রসারণ করা হয়েছে এই সূরাতে এবং পরবর্তী তিনটি সূরাতে। এই সূরাটি বর্তমান শ্রেণীভূক্ত সূরাগুলি ও পরবর্তী তিনটি সূরার মধ্যে সংযোগ স্থাপন করেছে।
আল্লাহ্‌র প্রত্যাদেশ ও অনুগ্রহ লাভের পূর্বশর্ত হচ্ছে চরিত্রের গুণাবলী অর্জন করা এই বিশেষ বিষয়বস্তুর উপরে গুরুত্ব আরোপ করা হয়েছে। গুরুত্ব্‌ আরোপ করার জন্য পুণরায় নবীদের মধ্যে হযরত নূহ্‌, ইব্রাহীম এবং লূত এর প্রসঙ্গ উল্লেখ করা হয়েছে। সেই সাথে উল্লেখ করা হয়েছে মিদিয়ান, আ'দ, সামুদ এবং ফেরাউনের কাহিনী যারা আল্লাহ্‌র প্রত্যাদেশকে প্রত্যাখান করেছিলো। পার্থিব জীবনকে পরলোকের জীবনের সাথে তুলনা করা হয়েছে।
মূল সূরাটি অবর্তীর্ণ হয় হিজরতের পূর্বে মক্কাতে অবস্থানের মধ্যবর্তী সময়ে। সময়ের এই ক্রমপঞ্জি এ কারণেই উল্লেখযোগ্য যে হিজরতের বহু পূর্বেই ভবিষ্যত সংগ্রামী মুসলিম ভাতৃত্বের সম্বন্ধে বলা হয়।
সার-সংক্ষেপ : ঈমানের বা বিশ্বাসের পরীক্ষা নেয়া হয় পৃথিবীর জীবনে দুঃখ, কষ্টের সংগ্রামে, চরিত্রের গুণাবলীর মাধ্যমে। যদিও নূহ্‌ ৯৫০ বৎসর বেঁচে ছিলেন , কিন্তু তার সম্প্রদায় সত্যকে গ্রহণে অস্বীকৃতি জ্ঞাপন করে। হযরত ইব্রাহীমের সম্প্রদায় তাঁকে পুড়িয়ে মারার চেষ্টা করে [ ২৯ : ১-২৭ ]।
লূতের সম্প্রদায় শুধু যে আল্লাহ্‌র প্রত্যাদেশকে প্রত্যাখান করেছিলো তাই-ই নয়, তারা লূতকে দ্বন্দে আহ্বান করেছিলো। আ'দ ও সামুদ জাতি ছিলো বুদ্ধিমান, কিন্তু তারা তাদের বুদ্ধিমত্তার অপব্যবহার করে। কারূণ, ফেরাউন ,এবং হামান ধ্বংস হয়ে যায় তাদের দাম্ভিকতা ও উদ্ধতপনার জন্য। শেষ পর্যন্ত তারা বুঝতে পারে যে, তাদের পার্থিব জীবনের ক্ষমতা খুবই ভঙ্গুর , ঠিক যেনো মাকড়সার জাল [ ২৯: ২৮ -৪৪ ]।
কোরাণ তার নিজস্ব বৈশিষ্ট্যে ভাস্বর। কোরাণ আমাদের শিক্ষা দেয় পাপ ও পূণ্যের মধ্যে পার্থক্য এবং পরলোকের উৎকর্ষ লাভের জন্য গুরুত্ব আরোপ করে [ ২৯ : ৪৫ - ৬৯ ]

029.001

আলিফ-লাম-মীম। Alif­Lâm­Mîm. [These letters are one of the miracles of the Qur’ân, and none but Allâh (Alone) knows their meanings.] الم Alif-lam-meem YUSUFALI: A.L.M. PICKTHAL: Alif. Lam. Mim. SHAKIR: Alif Lam Mim. KHALIFA: A. L. M. ০১। আলিফ-লাম-মীম ৩৪২২। ৩৪২২। বাইরের...

029.002

মানুষ কি মনে করে যে, তারা একথা বলেই অব্যাহতি পেয়ে যাবে যে, আমরা বিশ্বাস করি এবং তাদেরকে পরীক্ষা করা হবে না? Do people think that they will be left alone because they say: ”We believe,” and will not be tested. أَحَسِبَ النَّاسُ أَن يُتْرَكُوا أَن يَقُولُوا آمَنَّا...

029.003

আমি তাদেরকেও পরীক্ষা করেছি, যারা তাদের পূর্বে ছিল। আল্লাহ অবশ্যই জেনে নেবেন যারা সত্যবাদী এবং নিশ্চয়ই জেনে নেবেন মিথ্যুকদেরকে। And We indeed tested those who were before them. And Allâh will certainly make (it) known (the truth of) those who are true, and will...

029.004

যারা মন্দ কাজ করে, তারা কি মনে করে যে, তারা আমার হাত থেকে বেঁচে যাবে? তাদের ফয়সালা খুবই মন্দ। Or those who do evil deeds think that they can outstrip Us (i.e. escape Our Punishment)? Evil is that which they judge! أَمْ حَسِبَ الَّذِينَ يَعْمَلُونَ السَّيِّئَاتِ أَن...

029.005

যে আল্লাহর সাক্ষাত কামনা করে, আল্লাহর সেই নির্ধারিত কাল অবশ্যই আসবে। তিনি সর্বশ্রোতা, সর্বজ্ঞানী। Whoever hopes for the Meeting with Allâh, then Allâh’s Term is surely coming. and He is the All-Hearer, the All-Knower. مَن كَانَ يَرْجُو لِقَاء اللَّهِ فَإِنَّ أَجَلَ...

029.006

যে কষ্ট স্বীকার করে, সে তো নিজের জন্যেই কষ্ট স্বীকার করে। আল্লাহ বিশ্ববাসী থেকে বে-পরওয়া। And whosoever strives, he strives only for himself. Verily, Allâh is free of all wants from the ’Alamîn (mankind, jinns, and all that exists). وَمَن جَاهَدَ فَإِنَّمَا يُجَاهِدُ...

029.007

আর যারা বিশ্বাস স্থাপন করে ও সৎকর্ম করে, আমি অবশ্যই তাদের মন্দ কাজ গুলো মিটিয়ে দেব এবং তাদেরকে কর্মের উৎকৃষ্টতর প্রতিদান দেব। Those who believe [in the Oneness of Allâh (Monotheism) and in Messenger Muhammad SAW , and do not apostate because of the harm they receive...

029.008

আমি মানুষকে পিতা-মাতার সাথে সদ্ব্যবহার করার জোর নির্দেশ দিয়েছি। যদি তারা তোমাকে আমার সাথে এমন কিছু শরীক করার জোর প্রচেষ্টা চালায়, যার সম্পর্কে তোমার কোন জ্ঞান নেই, তবে তাদের আনুগত্য করো না। আমারই দিকে তোমাদের প্রত্যাবর্তন। অতঃপর আমি তোমাদেরকে বলে দেব যা কিছু...

029.009

যারা বিশ্বাস স্থাপন করে ও সৎকাজ করে, আমি অবশ্যই তাদেরকে সৎকর্মীদের অন্তর্ভুক্ত করব। And for those who believe (in the Oneness of Allâh and other items of Faith) and do righteous good deeds, surely, We shall make them enter in (the enterance of) the righteous (i.e. in...

029.010

কতক লোক বলে, আমরা আল্লাহর উপর বিশ্বাস স্থাপন করেছি; কিন্তু আল্লাহর পথে যখন তারা নির্যাতিত হয়, তখন তারা মানুষের নির্যাতনকে আল্লাহর আযাবের মত মনে করে। যখন আপনার পালনকর্তার কাছ থেকে কোন সাহায্য আসে তখন তারা বলতে থাকে, আমরা তো তোমাদের সাথেই ছিলাম। বিশ্ববাসীর অন্তরে যা...

029.011

আল্লাহ অবশ্যই জেনে নেবেন যারা বিশ্বাস স্থাপন করেছে এবং নিশ্চয় জেনে নেবেন যারা মুনাফেক। Verily, Allâh knows those who believe, and verily, He knows the hypocrites [i.e. Allâh will test the people with good and hard days to discriminate the good from the wicked...

029.012

কাফেররা মুমিনদেরকে বলে, আমাদের পথ অনুসরণ কর। আমরা তোমাদের পাপভার বহন করব। অথচ তারা পাপভার কিছুতেই বহন করবে না। নিশ্চয় তারা মিথ্যাবাদী। And those who disbelieve say to those who believe: ”Follow our way and we will verily bear your sins,” never will they bear anything...

029.013

তারা নিজেদের পাপভার এবং তার সাথে আরও কিছু পাপভার বহন করবে। অবশ্য তারা যে সব মিথ্যা কথা উদ্ভাবন করে, সে সম্পর্কে কেয়ামতের দিন জিজ্ঞাসিত হবে। And verily, they shall bear their own loads, and other loads besides their own, and verily, they shall be questioned on the Day...

029.014

আমি নূহ (আঃ) কে তাঁর সম্প্রদায়ের কাছে প্রেরণ করেছিলাম। তিনি তাদের মধ্যে পঞ্চাশ কম এক হাজার বছর অবস্থান করেছিলেন। অতঃপর তাদেরকে মহাপ্লাবণ গ্রাস করেছিল। তারা ছিল পাপী। And indeed We sent Nûh (Noah) to his people, and he stayed among them a thousand years less fifty...

029.015

অতঃপর আমি তাঁকে ও নৌকারোহীগণকে রক্ষা করলাম এবং নৌকাকে নিদর্শন করলাম বিশ্ববাসীর জন্যে। Then We saved him and those with him in the ship, and made it (the ship) as an Ayâh (a lesson, a warning, etc.) for the ’Alamîn (mankind, jinns and all that exists)....

029.016

স্মরণ কর ইব্রাহীমকে। যখন তিনি তাঁর সম্প্রদায়কে বললেন; তোমরা আল্লাহর এবাদত কর এবং তাঁকে ভয় কর। এটাই তোমাদের জন্যে উত্তম যদি তোমরা বোঝ। And (remember) Ibrâhim (Abraham) when he said to his people: ”Worship Allâh (Alone), and fear Him, that is better for you if you...

029.017

তোমরা তো আল্লাহর পরিবর্তে কেবল প্রতিমারই পূজা করছ এবং মিথ্যা উদ্ভাবন করছ। তোমরা আল্লাহর পরিবর্তে যাদের এবাদত করছ, তারা তোমাদের রিযিকের মালিক নয়। কাজেই আল্লাহর কাছে রিযিক তালাশ কর, তাঁর এবাদত কর এবং তাঁর কৃতজ্ঞতা প্রকাশ কর। তাঁরই কাছে তোমরা প্রত্যাবর্তিত হবে। ”You...

029.018

তোমরা যদি মিথ্যাবাদী বল, তবে তোমাদের পূর্ববর্তীরাও তো মিথ্যাবাদী বলেছে। স্পষ্টভাবে পয়গাম পৌছে দেয়াই তো রসূলের দায়িত্ব। ”And if you deny, then nations before you have denied (their Messengers). And the duty of the Messenger is only to convey (the Message)...

029.019

তারা কি দেখে না যে, আল্লাহ কিভাবে সৃষ্টিকর্ম শুরু করেন অতঃপর তাকে পুনরায় সৃষ্টি করবেন? এটা আল্লাহর জন্যে সহজ। See they not how Allâh originates creation, then repeats it. Verily, that is easy for Allâh. أَوَلَمْ يَرَوْا كَيْفَ يُبْدِئُ اللَّهُ الْخَلْقَ ثُمَّ...

029.020

বলুন, তোমরা পৃথিবীতে ভ্রমণ কর এবং দেখ, কিভাবে তিনি সৃষ্টিকর্ম শুরু করেছেন। অতঃপর আল্লাহ পুর্নবার সৃষ্টি করবেন। নিশ্চয় আল্লাহ সবকিছু করতে সক্ষম। Say: ”Travel in the land and see how (Allâh) originated creation, and then Allâh will bring forth (resurrect) the creation...