০০৫. সূরা আল মায়েদা

সূরা আল-মায়েদা - ৫
"বা The Table spread বা খাবার টেবিল"
আয়াত ১২০, রুকু ১৬, মাদানী
[দয়াময়, পরম করুণাময় আল্লাহ্‌র নামে]
ভূমিকাঃ এই সূরাতে আলোচনা করা হয়েছে ইহুদী ও খৃষ্টানদের সম্বন্ধে যারা ধর্ম পালনের ক্ষেত্রে সৎপথ পরিত্যাগ করে অসৎ পথ অবলম্বন করে। এ সবই ইসলাম ধর্মকে পুনঃ প্রতিষ্ঠার ক্ষেত্র বা ভিত্তি স্থাপন করে। এই সূরাতে খৃষ্টানদের সম্পর্কে বিশেষ ভাবে বলা হয়েছে, যারা ধর্মীয় অনুষ্ঠানকে জাঁকজমকপূর্ণ করার মাধ্যমে যীশু খৃষ্টের শেষ নৈশভোজের (Last supper) যে অর্থ প্রদান করে, প্রকৃত সত্য তা থেকে বহু দূরে। অর্থাৎ ধর্মীয় বিধি বিধান সম্বন্ধে এই দুইটি প্রাচীন ধর্ম যা প্রচার করে তা সত্যের অপলাপ মাত্র। এরই প্রেক্ষিতে ইসলামের আগমন। যুক্তিসঙ্গত ভাবেই খাদ্য, পচ্ছিন্নতা, ন্যায়নীতি, বিশ্বস্ততা প্রভৃতি জীবনের প্রতিটি ক্ষেত্রে ধর্মীয় অনুশাসনগুলি ইসলামের মাধ্যমে পুনঃর্জীবিত করা হয়।
এই সূরার তৃতীয় আয়াতটি সর্বকালের জন্য স্মরণযোগ্য। এখানে ঘোষণা করা হয়েছে যে, "আজ তোমাদের জন্য তোমাদের দ্বীনকে পূর্ণাংগ করলাম।" ১০ম হিজরীতে আমাদের নবীর বিদায় হজ্বের প্রাক্কালে এই আয়াতটি নাজেল হয়।
সারসংক্ষেপঃ এই সূরা শুরু হয়েছে আল্লাহ্‌র সাথে অঙ্গীকার পূরণের নির্দেশ নামার মাধ্যমে। এই অঙ্গীকার সামাজিক, মানবিক বা ঐশ্বরিক উভয়ই হতে পারে। এই অঙ্গীকার পূরণের মাধ্যমে ব্যক্তি লাভ করে সৎ ও সুখী জীবনের ঠিকানা। খাদ্য সম্পর্কীয় নীতিমালা, কুসংস্কার মুক্ত জীবনবোধ এবং ঘৃণা ও পক্ষপাতিত্বহীন ন্যায়নীতি, সৎ, সুখী ও শান্তিময় জীবনের ঠিকানায় পৌঁছে দেয় [৫ : ১-৫]।
শারীরিক পরিচ্ছন্নতা ও পরস্পরের ব্যবহারের ক্ষেত্রে ন্যায় নীতির অনুসরণ করাই হচ্ছে ধর্মীয় মূল্যবোধের সবচেয়ে নিকটবর্তী অবস্থা বা ধর্মানুরাগ [৫ : ৬-১১]।
যদি ইহুদী ও খৃষ্টানেরা আল্লাহ্‌র সাথে তাদের কৃত চুক্তি ভঙ্গ করে এবং সত্য বিশ্বাস থেকে বিমুখ হয়, তাহলে তাদের জন্য রয়েছে সাবধান বাণী [৫ : ১২-২৬]।
কাবিল দ্বারা হাবিলের হত্যা হচ্ছে প্রতীক স্বরূপ, যুগে যুগে হাবিলের মত ন্যায়বান ব্যক্তিরা কাবিলের ন্যায় হিংসুকদের দ্বারা অত্যাচারিত হয়। অত্যাচারী ব্যক্তির শাস্তি দান করবেন স্বয়ং আল্লাহ্‌। ন্যায়বান ব্যক্তির জন্য দুঃখ বোধ করার কারণ নাই। [৫ : ২৭-৪৩]
মুসলমান সর্বদা ন্যায়ের পক্ষে থাকবে। এ ব্যাপারে যদিও সে হবে পক্ষপাতিত্ববিহীন তবুও সে হবে সর্বদা মুসলিম ভাতৃত্বের প্রতি নিবেদিত প্রাণ এবং ধর্মকে অবজ্ঞা ও আক্রমণ থেকে রক্ষার জন্য নিঃস্বার্থ ভাবে কাজ করবে। খৃষ্টানদের প্রকৃত ধর্মানুরাগ, বিনয় এবং অন্যান্য গুণাবলীকে মুসলমানদের প্রশংসা ও উপলব্ধি করতে বলা হয়েছে। [৫ : ৪৪-৮৬]
আল্লাহ্‌ মুসলমানদের জন্য যা কিছু হালাল করেছেন তা কৃতজ্ঞতার সাথে উপভোগ করবে। তবে কোনও কিছুতেই তারা বাড়াবাড়ি করবে না। শপথ করা, জুয়া খেলা, পবিত্র স্থানের পবিত্রতা নষ্ট করা, সব রকম কুসংস্কার এবং মিথ্যা সাক্ষীকে নিন্দা করা হয়েছে। [৫ : ৮৭-১০৮]
হযরত ঈসার অলৌকিকত্ব এবং তার অনুসারীরা কিভাবে তার অপব্যবহার করে তার বর্ণনা করা হয়েছে। [৫ : ১০৯-১২০]

005.001

মুমিনগণ, তোমরা অঙ্গীকারসমূহ পূর্ন কর। তোমাদের জন্য চতুষ্পদ জন্তু হালাল করা হয়েছে, যা তোমাদের কাছে বিবৃত হবে তা ব্যতীত। কিন্তু এহরাম বাধাঁ অবস্থায় শিকারকে হালাল মনে করো না! নিশ্চয় আল্লাহ তা’আলা যা ইচ্ছা করেন, নির্দেশ দেন। O you who believe! Fulfill (your)...

005.002

হে মুমিনগণ! হালাল মনে করো না আল্লাহর নিদর্শনসমূহ এবং সম্মানিত মাসসমূহকে এবং হরমে কুরবানীর জন্যে নির্দিষ্ট জন্তুকে এবং ঐসব জন্তুকে, যাদের গলায় কন্ঠাভরণ রয়েছে এবং ঐসব লোককে যারা সম্মানিত গৃহ অভিমুখে যাচ্ছে, যারা স্বীয় পালনকর্তার অনুগ্রহ ও সন্তুষ্টি কামনা করে। যখন...

005.003

তোমাদের জন্যে হারাম করা হয়েছে মৃত জীব, রক্ত, শুকরের মাংস, যেসব জন্তু আল্লাহ ছাড়া অন্যের নামে উৎসর্গকৃত হয়, যা কন্ঠরোধে মারা যায়, যা আঘাত লেগে মারা যায়, যা উচ্চ স্থান থেকে পতনের ফলে মারা যা, যা শিং এর আঘাতে মারা যায় এবং যাকে হিংস্র জন্তু ভক্ষণ করেছে, কিন্তু যাকে...

005.004

তারা আপনাকে জিজ্ঞেস করে যে, কি বস্তু তাদের জন্যে হালাল? বলে দিন, তোমাদের জন্যে পবিত্র বস্তুসমূহ হালাল করা হয়েছে। যেসব শিকারী জন্তুকে তোমরা প্রশিক্ষণ দান কর শিকারের প্রতি প্রেরণের জন্যে এবং ওদেরকে ঐ পদ্ধতিতে প্রশিক্ষণ দাও, যা আল্লাহ তোমাদেরকে শিক্ষা দিয়েছেন। এমন...

005.005

আজ তোমাদের জন্য পবিত্র বস্তুসমূহ হালাল করা হল। আহলে কিতাবদের খাদ্য তোমাদের জন্যে হালাল এবং তোমাদের খাদ্য তাদের জন্য হালাল। তোমাদের জন্যে হালাল সতী-সাধ্বী মুসলমান নারী এবং তাদের সতী-সাধ্বী নারী, যাদেরকে কিতাব দেয়া হয়েছে তোমাদের পূর্বে, যখন তোমরা তাদেরকে মোহরানা...

005.006

হে মুমিনগণ, যখন তোমরা নামাযের জন্যে উঠ, তখন স্বীয় মুখমন্ডল ও হস্তসমূহ কনুই পর্যন্ত ধৌত কর এবং পদযুগল গিটসহ। যদি তোমরা অপবিত্র হও তবে সারা দেহ পবিত্র করে নাও এবং যদি তোমরা রুগ্ন হও, অথবা প্রবাসে থাক অথবা তোমাদের কেউ প্রসাব-পায়খানা সেরে আসে অথবা তোমরা স্ত্রীদের...

005.007

তোমরা আল্লাহর নেয়ামতের কথা স্মরণ কর, যা তোমাদের প্রতি অবতীর্ণ হয়েছে এবং ঐ অঙ্গীকারকেও যা তোমাদের কাছ থেকে নিয়েছেন, যখন তোমরা বলেছিলেঃ আমরা শুনলাম এবং মেনে নিলাম। আল্লাহকে ভয় কর। নিশ্চয়ই আল্লাহ অন্তরের বিষয় সম্পর্কে পুরোপুরি খবর রাখেন। And remember Allâh’s Favour...

005.008

হে মুমিনগণ, তোমরা আল্লাহর উদ্দেশে ন্যায় সাক্ষ্যদানের ব্যাপারে অবিচল থাকবে এবং কোন সম্প্রদায়ের শত্রুতার কারণে কখনও ন্যায়বিচার পরিত্যাগ করো না। সুবিচার কর এটাই খোদাভীতির অধিক নিকটবর্তী। আল্লাহকে ভয় কর। তোমরা যা কর, নিশ্চয় আল্লাহ সে বিষয়ে খুব জ্ঞাত। O you who...

005.009

যারা বিশ্বাস স্থাপন করে, এবং সৎকর্ম সম্পাদন করে, আল্লাহ তাËেদরকে ক্ষমা ও মহান প্রতিদানের প্রতিশ্রুতি দিয়েছেন। Allâh has promised those who believe (in the Oneness of Allâh – Islâmic Monotheism) and do deeds of righteousness, that for them there is forgiveness...

005.010

যারা অবিশ্বাস করে এবং আমার নিদর্শনাবলীকে মিথ্যা বলে, তার দোযখী। They who disbelieve and deny our Ayât (proofs, evidences, verses, lessons, signs, revelations, etc.) are those who will be the dwellers of the Hell­fire. وَالَّذِينَ كَفَرُواْ وَكَذَّبُواْ بِآيَاتِنَا...

005.011

হে মুমিনগণ, তোমাদের প্রতি আল্লাহর অনুগ্রহ স্মরণ কর, যখন এক সম্প্রদায় তোমাদের দিকে স্বীয় হস্ত প্রসারিত করতে সচেষ্ট হয়েছিল, তখন তিনি তাদের হস্ত তোমাদের থেকে প্রতিহত করে দিলেন। আল্লাহকে ভয় কর এবং মুমিনদের আল্লাহর উপরই ভরসা করা উচিত। O you who believe! Remember the...

005.012

আল্লাহ বনী-ইসরাঈলের কাছ থেকে অঙ্গীকার নিয়েছিলেন এবং আমি তাদের মধ্য থেকে বার জন সর্দার নিযুক্ত করেছিলাম। আল্লাহ বলে দিলেনঃ আমি তোমাদের সঙ্গে আছি। যদি তোমরা নামায প্রতিষ্ঠিত কর, যাকাত দিতে থাক, আমার পয়গম্বরদের প্রতি বিশ্বাস রাখ, তাঁদের সাহায্য কর এবং আল্লাহকে উত্তম...

005.013

অতএব, তাদের অঙ্গীকার ভঙ্গের দরুন আমি তাদের উপর অভিসম্পাত করেছি এবং তাদের অন্তরকে কঠোর করে দিয়েছি। তারা কালামকে তার স্থান থেকে বিচ্যুত করে দেয় এবং তাদেরকে যে উপদেশ দেয়া হয়েছিল, তারা তা থেকে উপকার লাভ করার বিষয়টি বিস্মৃত হয়েছে। আপনি সর্বদা তাদের কোন না কোন প্রতারণা...

005.014

যারা বলেঃ আমরা নাছারা, আমি তাদের কাছ থেকেও তাদের অঙ্গীকার নিয়েছিলাম। অতঃপর তারাও যে উপদেশ প্রাপ্ত হয়েছিল, তা থেকে উপকার লাভ করা ভুলে গেল। অতঃপর আমি কেয়ামত পর্যন্ত তাদের মধ্যে পারস্পরিক শত্রুতা ও বিদ্বেষ সঞ্চারিত করে দিয়েছি। অবশেষে আল্লাহ তাদেরকে তাদের কৃতকর্ম সম্পর্কে...

005.015

হে আহলে-কিতাবগণ! তোমাদের কাছে আমার রাসূল আগমন করেছেন! কিতাবের যেসব বিষয় তোমরা গোপন করতে, তিনি তার মধ্য থেকে অনেক বিষয় প্রকাশ করেন এবং অনেক বিষয় মার্জনা করেন। তোমাদের কাছে একটি উজ্জল জ্যোতি এসেছে এবং একটি সমুজ্জল গ্রন্থ। O people of the Scripture (Jews and...

005.016

এর দ্বারা আল্লাহ যারা তাঁর সন্তুষ্টি কামনা করে, তাদেরকে নিরাপত্তার পথ প্রদর্শন করেন এবং তাদেরকে স্বীয় নির্দেশ দ্বারা অন্ধকার থেকে বের করে আলোর দিকে আনয়ন করেন এবং সরল পথে পরিচালনা করেন। Wherewith Allâh guides all those who seek His Good Pleasure to ways of peace, and...

005.017

নিশ্চয় তারা কাফের, যারা বলে, মসীহ ইবনে মরিয়মই আল্লাহ। আপনি জিজ্ঞেস করুন, যদি তাই হয়, তবে বল যদি আল্লাহ মসীহ ইবনে মরিয়ম, তাঁর জননী এবং ভূমন্ডলে যারা আছে, তাদের সবাইকে ধ্বংস করতে চান, তবে এমন কারও সাধ্য আছে কি যে আল্লাহর কাছ থেকে তাদেরকে বিন্দুমাত্রও বাঁচাতে পারে?...

005.018

ইহুদী ও খ্রীষ্টানরা বলে, আমরা আল্লাহর সন্তান ও তাঁর প্রিয়জন। আপনি বলুন, তবে তিনি তোমাদেরকে পাপের বিনিময়ে কেন শাস্তি দান করবেন? বরং তোমারও অন্যান্য সৃষ্ট মানবের অন্তর্ভুক্ত সাধারণ মানুষ। তিনি যাকে ইচ্ছা ক্ষমা করেন এবং যাকে ইচ্ছা শাস্তি প্রদান করেন। নভোমন্ডল, ভুমন্ডল...

005.019

হে আহলে-কিতাবগণ! তোমাদের কাছে আমার রসূল আগমণ করেছেন, যিনি পয়গম্বরদের বিরতির পর তোমাদের কাছে পুঙ্খানুপুঙ্খ বর্ণনা করেন-যাতে তোমরা একথা বলতে না পার যে, আমাদের কাছে কোন সুসংবাদদাতা ও ভীতিপ্রদর্শক আগমন করে নি। অতএব, তোমাদের কাছে সুসংবাদদাতা ও ভীতি প্রদর্শক আগমন...

005.020

যখন মূসা স্বীয় সম্প্রদায়কে বললেনঃ হে আমার সম্প্রদায়, তোমাদের প্রতি আল্লাহর নেয়ামত স্মরণ কর, যখন তিনি তোমাদের মধ্যে পয়গম্বর সৃষ্টি করেছেন, তোমাদেরকে রাজ্যাধিপতি করেছেন এবং তোমাদেরকে এমন জিনিস দিয়েছেন, যা বিশ্বজগতের কাউকে দেননি। And (remember) when Mûsa (Moses) said...