০২৬.২১৬ সূরা শুয়ারা : আয়াত – ২১৬

যদি তারা আপনার অবাধ্য করে, তবে বলে দিন, তোমরা যা কর, তা থেকে আমি মুক্ত।
Then if they disobey thee, say: “I am free (of responsibility) for what ye do!”

فَإِنْ عَصَوْكَ فَقُلْ إِنِّي بَرِيءٌ مِّمَّا تَعْمَلُونَ
Fa-in AAasawka faqul innee baree-on mimma taAAmaloona

YUSUFALI: Then if they disobey thee, say: “I am free (of responsibility) for what ye do!”
PICKTHAL: And if they (thy kinsfolk) disobey thee, say: Lo! I am innocent of what they do.
SHAKIR: But if they disobey you, then say: Surely I am clear of what you do.
KHALIFA: If they disobey you, then say, “I disown what you do.”

২১৬। তারপরেও যদি তারা অবিশ্বাস করে, তাহলে বলো, ” তোমরা যা কর আমি তা থেকে দায়মুক্ত।” ৩২৩৪

৩২৩৪। “তারা অবিশ্বাস করে ” বাক্যটি দ্বারা এ কথাই বোঝানো হয়েছে যে, অবিশ্বাসী কাফেররা এমন কিছু করেছিলো রসুলের [ সা ] প্রতি যা অবাধ্যতার সামিল। ঘটনাটি ছিলো : রসুল [ সা ] তাদের ন্যায়ের পথে সত্যের পতে চলতে আদেশ দিতেন এবং অন্যায় ও পাপকে পরিহার করতে বলতেন , যা তাদের জন্য ছিলো অরুচীকর। রসুলের [ সা ] প্রচার ও প্রচেষ্টা সত্বেও যদি কেউ অন্যায় ও পাপকে পরিহার না করে। তবে সে দায়িত্ব রসুলের [সা] নয়। কারণ ভালো ও দায়িত্ববান মেষপালকেরা যেমন তার মেষের পালকে সঠিক রাস্তায় রাখতে চেষ্টা করে ও তার মেষ সমূহের রক্ষণাবেক্ষণে যত্নবান হয় রসুলও [ সা ] ঠিক সেরূপে তাঁর অনুসারীদের প্রতি সমভাবে যত্নশীল ও দায়িত্ব বান। এরপরেও কেউ তাঁকে অস্বীকার করলে বা অবাধ্যতা করলে সে দায়িত্ব তাঁর নয়। তিনি এর পরে কি করতে পারেন ? তিনি তাঁর প্রতি আল্লাহ্‌ প্রদত্ত দায়িত্ব পালন করবেন , মানুষকে হেদায়েত করবেন। কিন্তু কেউ যদি অস্বীকার করে, অবাধ্যতা করে তাদের মহান শিক্ষককে , নেতাকে , পথ প্রদর্শককে ,তবে সে জন্য রসুল কে [ সা ] দায়ী করা হবে না। তাঁর বিশ্বাস ও নির্ভরশীলতা শুধুমাত্র এক আল্লাহ্‌র উপরে। আল্লাহ্‌ সকলের কৃত কর্মের সম্বন্ধে ওয়াকিবহাল এবং তিনি প্রত্যেকের কর্মের যথাযথ মূল্যায়ন করেন।

উপদেশ : প্রত্যেকেই নিজ নিজ কৃত কর্মের জন্য দায়ী। কারও পাপের ভার অন্য কেউ গ্রহণ করবে না।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *