084.016

আমি শপথ করি সন্ধ্যাকালীন লাল আভার
So I swear by the afterglow of sunset;

فَلَا أُقْسِمُ بِالشَّفَقِ
Fala oqsimu bialshshafaqi

YUSUFALI: So I do call to witness the ruddy glow of Sunset;
PICKTHAL: Oh, I swear by the afterglow of sunset,
SHAKIR: But nay! I swear by the sunset redness,
KHALIFA: I solemnly swear by the rosy dusk.

১৬। সুতারাং আমি শপথ করি ৬০৪৩, সূর্যাস্তের গোলাপী আভার ; ৬০৪৪

৬০৪৩। এখানে যে শপথগুলি করা হয়েছে তাদের শেষ উদ্দেশ্যকে বর্ণনা করা হয়েছে ১৯ নং আয়াতে যেখানে বলা হয়েছে, ” নিশ্চয় তোমরা ধাপে ধাপে আরোহণ করবে।” এ জীবনের কোনও কিছুই স্থায়ী নয়। জীবনের এই অস্থায়ীশীলতাকে বুঝানো হয়েছে তিনটি দৃশ্যের উল্লেখের মাধ্যমে, যাদের শপথ করা হয়েছে। এই দৃশ্যগুলি মানুষ অনাদি অনন্তকাল থেকে পর্যবেক্ষণ করে আসছে,তবুও তারা ক্ষণস্থায়ী। স্বল্পকালীন তাদের অবস্থান, যেনো চোখের পলকে তারা অন্তর্হিত হয়ে যায়। দেখুন পরবর্তী টিকা সমূহ। পৃথিবীতে মানুষের জীবনও ঠিক তদ্রূপ ক্ষণস্থায়ী, দ্রুত ধাবমান দৃশ্যের ন্যায়। এ জীবন পরিপূর্ণতা ও স্থিতি লাভ করবে কবির ভাষায়, ” হেথা নয়, হেথা নয়,অন্য কোন খানে।”

৬০৪৪। ১) সূর্যের অবস্থান হচ্ছে জীবনের এক বাস্তব সত্য। সূর্য জীবনের সাথে এতটাই ওতপ্রেতভাবে জড়িত থাকে যে, মানুষ সূর্যকে দেবতারূপে পূঁজা করার প্রয়াস পায়। প্রভাতের সূর্য, মধ্যাহ্নের সূর্য, সন্ধ্যাকাশের দিগন্তের শেষ সূর্য প্রতিটির প্রেক্ষাপট ভিন্ন। দিক্‌চক্রবালে যখন দিবসের সূর্য অস্ত যায় তখন পশ্চিম আকাশ রংএর আলপনায় ভরে যায়, তবে তার স্থায়ীত্ব খুবই স্বল্প। প্রভাতে সূর্যদয় থেকে সন্ধ্যায় সূর্যাস্ত পর্যন্ত প্রতি মূহুর্তে সূর্যের রূপ পরিবর্তিত হয়ে থাকে। এর দ্বারা সূর্যের ন্যায় শক্তিশালী বাস্তব সত্যের রূপের ক্ষণস্থায়ীত্বকে তুলে ধরা হয়েছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *