061.005

স্মরণ কর, যখন মূসা (আঃ) তাঁর সম্প্রদায়কে বললঃ হে আমার সম্প্রদায়, তোমরা কেন আমাকে কষ্ট দাও, অথচ তোমরা জান যে, আমি তোমাদের কাছে আল্লাহর রসূল। অতঃপর তারা যখন বক্রতা অবলম্বন করল, তখন আল্লাহ তাদের অন্তরকে বক্র করে দিলেন। আল্লাহ পাপাচারী সম্প্রদায়কে পথপ্রদর্শন করেন না।
And (remember) when Mûsa (Moses) said to his people: ”O my people! Why do you hurt me while you know certainly that I am the Messenger of Allâh to you? So when they turned away (from the Path of Allâh), Allâh turned their hearts away (from the Right Path). And Allâh guides not the people who are Fâsiqûn (rebellious, disobedient to Allâh).

وَإِذْ قَالَ مُوسَى لِقَوْمِهِ يَا قَوْمِ لِمَ تُؤْذُونَنِي وَقَد تَّعْلَمُونَ أَنِّي رَسُولُ اللَّهِ إِلَيْكُمْ فَلَمَّا زَاغُوا أَزَاغَ اللَّهُ قُلُوبَهُمْ وَاللَّهُ لَا يَهْدِي الْقَوْمَ الْفَاسِقِينَ
Wa-ith qala moosa liqawmihi ya qawmi lima tu/thoonanee waqad taAAlamoona annee rasoolu Allahi ilaykum falamma zaghoo azagha Allahu quloobahum waAllahu la yahdee alqawma alfasiqeena

YUSUFALI: And remember, Moses said to his people: “O my people! why do ye vex and insult me, though ye know that I am the messenger of Allah (sent) to you?” Then when they went wrong, Allah let their hearts go wrong. For Allah guides not those who are rebellious transgressors.
PICKTHAL: And (remember) when Moses said unto his people: O my people! Why persecute ye me, when ye well know that I am Allah’s messenger unto you? So when they went astray Allah sent their hearts astray. And Allah guideth not the evil-living folk.
SHAKIR: And when Musa said to his people: O my people! why do you give me trouble? And you know indeed that I am Allah’s messenger to you; but when they turned aside, Allah made their hearts turn aside, and Allah does not guide the transgressing people.
KHALIFA: Recall that Moses said to his people, “O my people, why do you hurt me, even though you know that I am GOD’s messenger to you?” When they deviated, GOD diverted their hearts. For GOD does not guide the wicked people

৫। এবং স্মরণ কর, মুসা তার সম্প্রদায়কে বলেছিলো, ৫৪৩৪, ” হে আমার সম্প্রদায় ! কেন তোমরা আমাকে বিরক্ত ও অপমান করছো ? অথচ তোমরা জান, আমি তোমাদের নিকট আল্লাহ্‌ [ প্রেরিত ] রসুল।” অতঃপর যখন তারা বিপথগামী হলো, আল্লাহ্‌ তাদের অন্তরকে আরও পথভ্রষ্ট করে দিলেন ৫৪৩৫; কেন না যারা বিদ্রোহী সীমালংঘনকারী আল্লাহ্‌ তাদের পথ প্রদর্শন করেন না।

৫৪৩৪। মুসার সম্প্রদায় প্রায়ই হযরত মুসার অবাধ্য হতো এবং তাঁর বিরক্তির কারণ ঘটাতো এবং তাঁকে অপমানিত করতে দ্বিধাবোধ করতো না। দেখুন ওল্ড টেস্টামেন্টের [ Num xii – 1 – 13]। তাঁরা এ সব বুঝে শুনেই করতো। তারা যে অজ্ঞ ছিলো তা নয়, তারা ছিলো স্বার্থপর, অবাধ্য, বিকৃত মানসিকতা সম্পন্ন, যে কারণে তারা আল্লাহ্‌র নিকট থেকে শাস্তি লাভ করে। এদের এই উদাহরণের মাধ্যমে আল্লাহ্‌ মুসলিম উম্মাকে সাবধান করেছেন, এবং তাদের এর থেকে শিক্ষা গ্রহণ করতে বলেছেন। সাবধান করা হয়েছে আল্লাহ্‌র আইন বা বিধান থেকে বিচ্যুত হয়ে কেউ যেনো বক্র পথ না ধরে। কারণ বক্রপথ বা বিপথ মানুষের মন, মানসিকতা ও চিন্তাধারাকেও বক্র বা বিপথে চালিত করবে। এই হচ্ছে আল্লাহ্‌র হুকুম বা আইন বা বিধান।

৫৪৩৫। আল্লাহ্‌র বিধান বা আইন থেকে বিচ্যুত হওয়া পাপ। যারা এই পাপে নিজেকে সম্পৃক্ত করে, অর্থাৎ প্রতি মূহুর্তে আল্লাহ্‌র হুকুমকে অমান্য করে তাদের চিন্তাধারা অসুস্থ হয়ে পড়ে। ফলে তারা গভীর থেকে গভীরতর পাপের পঙ্কে নিমজ্জিত হতে থাকে। এর অর্থ হচ্ছে তারা আল্লাহ্‌র অনুগ্রহ বঞ্চিত হয়। অনুগ্রহ বঞ্চিত হওয়ার ফলেই তারা সত্য পথ ত্যাগ করে মিথ্যা পথকে গ্রহণ করে বিভ্রান্ত হয়। তাদের আত্মায় আল্লাহ্‌র হেদায়েতের আলো অনুপ্রবেশের পথ রুদ্ধ হয়ে পড়ে। ” আল্লাহ্‌ উহাদের হৃদয়কে পথভ্রষ্ট করে দেন” পুনঃ পুনঃ পাপ ও অবাধ্যতার ফলে আল্লাহ্‌র নিরাপত্তা লাভেও তারা অক্ষম হয়। আল্লাহ্‌র করুণা, দয়া, মহানুভবতা, অনুগ্রহ লাভের সকল অর্গল তাদের হৃদয়ের জন্য বন্ধ হয়ে যায়। ” তাদের অন্তরে ব্যাধি। ” [ ২ : ১০ ]। এই অন্তরই হচ্ছে সকল কিছুর মহৎ,ভালো বা মন্দের উৎপত্তিস্থল। পুনঃপুনঃ অবাধ্যতার ফলে তাদের আধ্যাত্মিক জগতের এই কেন্দ্রস্থল ধ্বংস হয়ে যায়। ভাঙ্গা আয়না যেরূপ আর কোন কিছুর সঠিক প্রতিবিম্বকে ধারণ করতে অক্ষম হয়, ঠিক সেরূপ হচ্ছে আত্মিক দিক থেকে ধ্বংসপ্রাপ্ত লোকদের অবস্থা। তারা আল্লাহ্‌র হেদায়েতকে অন্তরে ধারণ করতে অক্ষম। একেই বলা হয়েছে ”যারা বিদ্রোহী সীমা লংঘনকারী আল্লাহ তাদের পথ প্রদর্শণ করেন না।”

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *