026.014

আমার বিরুদ্ধে তাদের অভিযোগ আছে। অতএব আমি আশংকা করি যে, তারা আমাকে হত্যা করবে।
“And (further), they have a charge of crime against me; and I fear they may slay me.”

وَلَهُمْ عَلَيَّ ذَنبٌ فَأَخَافُ أَن يَقْتُلُونِ
Walahum AAalayya thanbun faakhafu an yaqtulooni

YUSUFALI: “And (further), they have a charge of crime against me; and I fear they may slay me.”
PICKTHAL: And they have a crime against me, so I fear that they will kill me.
SHAKIR: And they have a crime against me, therefore I fear that they may slay me.
KHALIFA: “Also, they consider me a fugitive; I fear lest they kill me.”

১৪। ” [ উপরন্তু ] আমার বিরুদ্ধে তাদের নিকট [ মানুষ হত্যার ] অপরাধের এক অভিযোগ আছে। এবং আমি ভয় পাচ্ছি যে, তারা আমাকে হত্যা করতে পারে।” ৩১৪৬

৩১৪৬। হযরত মুসার প্রতিপালন ও শৈশব সর্ম্পকে উল্লেখ করা হয়েছে আয়াত [ ২০ : ৩৯ – ৪০ ] এবং টিকা ২৫৬৩ এ। তিনি ফেরাউনের প্রাসাদে প্রতিপালিত হতে থাকেন এবং মিশরবাসীদের সকল জ্ঞান বিজ্ঞানের অধিকারী হন। তিনি যখন পূর্ণ যুবক তখন একদিন দেখলেন যে অন্যায়ভাবে একজন মিশরবাসী একজন ইসরাঈলীকে আঘাত করছে, তিনি মিশরবাসীটিকে আঘাত হানেন ফলে মিশরীয়টি মৃত্যুবরণ করে [ ২৮ : ১৫ ] এই অপরাধের শাস্তির ভয়ে তিনি মিশর ত্যাগ করেন ও সিনাই উপত্যকায় অবস্থিত মাদিয়ানে আশ্রয় গ্রহণ করেন। এখানেই তিনি আল্লাহ্‌ কর্তৃক ঐশ্বরিক দায়িত্ব প্রাপ্ত হন। অপরপক্ষে মিশরে তাঁর বিরুদ্ধে মানুষ হত্যার অভিযোগ ছিলো। এ ছাড়াও হযরত মুসা ছিলেন বদরাগী স্বভাবের। কিন্তু আল্লাহ্‌র করুণা তার এই রাগী স্বভাবকে দূর করে দেয় এবং তাঁকে আল্লাহ্‌ জ্ঞানী সম্প্রদায়ের অর্ন্তভুক্ত করেন। তাঁর জিহ্বার জড়তা দূর হয়ে যায় এবং তিনি দৃঢ়ভাবে ফেরাউনের সম্মুখে তাঁর বক্তব্য পেশ করেন। তিনি সাহস ও দৃঢ়তার সাথে আল্লাহ্‌র নিদর্শন দ্বারা মিশরবাসী যাদুকরদের মোকাবেলা করেন। শেষ পর্যন্ত এসব যাদুকরেরা আল্লাহ্‌র নিদর্শন দর্শনে ভীত হয়ে পড়ে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *