Bangla Lyrics । বাংলা লিরিক

বাংলা লিরিক, বাংলা গানের কথা, বাংলা লিরিক্স

সীতা ওউর গীতা

সীতা একা বসেছিলেন অশোক কাননে আমি গেলাম হনু সেজে তোমরা জাননে আমার বুকে ছবি লেজে ভর্তি কেরোসিন সীতা গেলেন মূর্ছা দেখে অগ্নিকাণ্ড সিন, তারপর যা হয়েছিল তোমরা জাননে জানলে পরেও দাঁত দেখিয়ে তোমরা মাননে বলছি শোনো দেখতে পেলাম অশোক গাছের ফাঁকে মুকুট পরা একখানা মাল আটকে মধুর...

আমি সেই হরিণটার কথা বলছিলাম

আমি সেই হরিণটার কথা বলছিলাম হরিণটা দৌড়চ্ছিল আমিও--- পেছন পেছন---- কচি ঘাস মাড়িয়ে শাল শিমূল ফার্ন গাছের ফাঁক ফোকর দিয়ে জংলা কাদা জলে ক্ষুর চুবিয়ে ছিটকে ছিটকে দৌড়চ্ছিল হরিণটা আমিও---- পেছন পেছন শিং—এর মধ্যে অজানা অতেনা গুল্মলতা পিঠের মধ্যে অর্জুন গাছের ঘষটানি অসম্ভব...

স্যার আমি পারব (হন্টারভিউ)

স্যার আমি পারব স্যার আমি টাইয়ের নট্ বাঁধতে পারি না কিন্তু কোন বাস ছিদাম মুদি লেনে দাঁড়ায় এক্ষুনি বলে দিতে পারি এক্ষুনি বলে দিতে পারি গুমঘর লেনটা ঠিক কোথায় আমি শিমুল গাছের পাতা চিনি আমার বন্ধুরা বলে আমি হেভি কথা বলতে পারি রাধা স্টোর্সের মালিকের কাছ থেকে পঁচিশ টাকা...

ইতিহাস ওভাবে হয় না

ইতিহাস ওভাবে হয় না ইতিহাস এমনি এমনি হয় আমার শিরদাঁড়াতে খেজুর গাছের মিল খুঁজে পেতেই আমার দিকে সে বার বার তাকিয়েছিল | খেজুর গাছের সঙ্গে সুপুরি গাছের মিল কিন্তু আমার চোখে পড়ে গেছেবহুকাল আগে--- দু-তিনশো বছর আগে আমি... তোমাকে বলেছিলাম সে কথা— তোমার মনে নেই ভুলে যাওয়াটা...

কিছু নেই পুরো ফাঁকা (ডিম নেই)

কিছু নেই পুরো ফাঁকা শুধু দুটো ডিম ছিল গোটা ফ্রিজে ওকেই যদি দুটো দিয়ে দিই কী খাব আমি নিজে রাত্রি মধ্য গদ্য পদ্য কাব্য নিশুতি তারা সব ঢুকে গেছে ডিমের মধ্যে ভাবি কী লক্ষ্মীছাড়া নিরীহ দু’ চেতন অচেতনে অন্ধকারের মধ্যে দাঁড়িয়ে দুটো ডিম কটা হাত ? বাইরে এখন শিশিরের সাথে...

এবার যখন কালবৈশাখী হবে (বেরোতে গেলে কালবৈশাখী লাগে )

এবার যখন কালবৈশাখী হবে তোদের বাড়ি যাব | লাগোয়া বাগানের কালো পুরোনো পাঁচিল তার ওপর বসতে পারে একটা দুটো কাক ঘাসের ওপর লাল পিঁপড়েগুলোকে লক্ষ রেখে বসে পড়ব | ততক্ষণে আম গাছের প্রত্যেকটা পাতা ধুলোর খোলস ছেড়ে বেরিয়ে এসে লুটিয়ে পড়েছে ভিজে বাতাসের বুকে | উতালপাতাল আদরে...

হে আমার পরম পিতঃ

হে আমার পরম পিতঃ যদি ভুলেও আবার জন্ম নিই তো তুমি যেন ভুল কোরো না আমাকে আর স্কুলে পাঠিয়ো না | স্কুলের এ শিক্ষা ভীষণ, ভুগোল ইতিহাস তারিখ বা সন ভর, ভার, পরিমিতি বা ত্রিকোন মেপেও কোনো লাভ হল না পাঠাবার আর জায়গা পেলে না গোল কৃমির জনন অঙ্গ অনিচ্ছাতেও বঙ্গভঙ্গ কুনো ব্যাঙের...

শোনো হে শোনো, শোনো হে শোনো (চাপান উতোর)

শোনো হে শোনো, শোনো হে শোনো শোনো সুধীজন, গেয়ো না গান না শিখে ব্যাকরণ যতই থাকুক গান টগবগে প্রাণে অনুচিত গান গাওয়া যে না গান জানে ভোর হলে গলা খুলে শেখো সারেগামা ভাঙলে ভাঙুক প্রতিবেশীদের ঘুম ভাঙুক গলা অতিরিক্ত রেওয়াজে দেখো যেন শেখার এ নিয়ম না ভাঙে চাপান উতোর দুর দুত্তোর...

নেই সংশয় নেই বিস্ময় (কেউ হিন্দু কেউ মুসলমান)

নেই সংশয় নেই বিস্ময়, একই খুনের ধারা সব দেহে বয় মিষ্টি মধুর হোক ভেদাভেদ দুর সবার প্রাণেতে বেজে যাক সুর মোদের সুরে বাঁধা হোক বেদ ও কোরান কেউ হিন্দু কেউ মুসলমান ( ২ ) কেউ পড়ে মন্ত্র কেউ আজান ( ২ ) কেই করে মুশকিল আসান কেউ ধরে যজমান কেউ হিন্দু কেউ মুসলমান একই বৃন্তে দুইটি...

চলো মামা পালিয়ে

কী হবে নিখোঁজ শান্তিতে খুঁজে তার চেয়ে নিজেই যাই হারিয়ে অলি গলি ঘর গেরস্থালি ফেলে সব সীমা ছাড়িয়ে এ Concrete জঙ্গলে শিকার না হয়ে চলো যাই জঙ্গলে চলো চলে যাই সেখানে যেখানে নিভৃতে সব নিঝুম সবুজে সবুজে শালের দঙ্গলে ফুল ফোটার যেথা ধুম চলো মামা পালিয়ে ( ৩ ) ও মামা রে ( ২ )...

জানি না এ পথ কবে হল ঠিক শুরু

জানি না এ পথ কবে হল ঠিক শুরু জানি না এ পথ কবে হবে ঠিক শেষ জানি না কবে যে ফুরোবে বেচাকেনা জানি না কবে যে ফুরোবে স্বপ্নরেশ জানি আমি জানি শুধু জানি আমি জানি তুমি ছিলে তাই সবই ছিল এলোমেলো তবুও তো কেটে গেল দিনগুলো জানি আমি জানি শুধু জানি আমি জানি তুমি ছিলে তাই সবই ছিল...

ওগো ঝুমুর গায়েন তোমার দিন কাটে না

ওগো ঝুমুর গায়েন তোমার দিন কাটে না তোমার রাত কাটে না তবু ঢোল কাটে নেংটি ইদুঁরে ভুখা পেটে তুই মাদল বাজা ( ৩ ) ও লাল পলাশের বনে বনে মাতল রে প্রাণ কী আগুনে মন জ্বলে সে আগুনে আখা জ্বলে না ওগো ঝুমুর গায়েন তোমার দিন কাটে না তোমার রাত কাটে না তবু ঢোল কাটে নেংটি ইদুঁরে গানে...

বেতাল বেচাল এ দিনকাল

বেতাল বেচাল এ দিনকাল ভেবে ভেবে নাজেহাল তবুও না ছেড়ে হাল ভাবনা ভুলতে পারছি না ক্লান্ত বিকেল ব্যস্ত সকাল নিয়ম করে হচ্ছি নাকাল সু-সময়টা সত্যি পাঁকাল পিছল নাগাল পাচ্ছি না বেতাল বেচাল এ দিনকাল || V . I . P Road যত্নে মোড়া আমার গলির রাস্তা খোঁড়া V. I. P Road যত্নে মোড়া...

তুমি যা জিনিস গুরু আমি জানি আর কেউ জানে না

সুগন্ধি ধূপ ----চুপ চুপ কেন ? রেগে যাবে মও কা পেলে শাপ দেবে বয়ে গেল গা তবে--- সুগন্ধি ধূপ দিল চাল দিল কলা দিল প্রসাদের থালা দিল চেটে পুটে খেলে গুরু কিছু পেলো না তুমি যা জিনিস গুরু আমি জানি আর কেউ জানে না | ছুপে ছুপে কত রূপে তুমি এসে ধরা দাও সে রূপের বাহার আমি জানি কেউ...

ঘুম পেয়েছে বাড়ি যা

ঢুলু ঢুলু চোখ শালা দেখি কত লোক দিয়ে তাকিয়াতে ঠেস বলে আহা বেশ বেশ বেশ বেশ বেশ বলে আর শুধু যায় ঢুলে ঢুলে চোখ হল লাল লাল লাল সে সকাল আর কবে লাল হবে আর কবে লাল হবে আর কবে লাল হবে তোদের ঘুম পেয়েছে বাড়ি যা স্বপ্ন দেখ ঘুমের ফাঁকে যাবি যাবি করলি তবু কেন গেলি না রে বাড়ি চলে...

হে শোনো খবর আজ কবর খোঁড়া বন্ধ আছে

হে শোনো খবর আজ কবর খোঁড়া বন্ধ আছে তাই মরছি ভাই মরব না লাশ হয়ে আর পচবো না হে শোনো খবর আজ কবর খোড়া বন্ধ আছে | হিমঘরে থরে থরে পড়ে থেকে লাভ নেই লোকশান তার চেয়ে সজীব রোদেতে শানিয়ে ধারালো কর এ জান সেই ধারে কাটি ধান কাটি পাপ কাটি জিভ সব বিষধর সর্পদের সব বিষধর সর্পদের এ...

বহুদিন আগে নাকি ছিল ভগবান

বহুদিন আগে নাকি ছিল ভগবান ধনুকেতে টান দিয়ে ছুঁড়ে দিত বান কথা নাকি শুনে তার সব হনুমান যুদ্ধের ক্ষেত্রে দিয়ে দিত প্রাণ দাতা ছিল ত্রাতা ছিল করে দিত দান প্রজারা তাকে কত করে সম্মান তাই সীতা সতী কিনা করতে প্রমাণ প্রজাদের অনুরোধে আগুন জ্বালান এ বেচারা, এ বেচারা ভাবে বসে বসে...

শোনো ঠিক শুরুর আগে (ভূমিকা)

শোনো ঠিক শুরুর আগে ভূমিকাটা ছোট্ট করে জমিয়ে বলি যদিও অনেক বলার তবুও খানেক কমিয়ে বলি চারিদিকে চলছে যা তা--- চারিদিকে চলছে যা তা বুঝলে পরে বুঝবে এসব সবাইকে তুষ্ট করা স্পষ্ট কথায় নয় সম্ভব ভালোবেসে কেউ বা ঘাসে খালি পায়ে পথ চলতে কেউ আবার সাবাড় করে পথের কাঁটা অনেকেই জ্বলতে...

নিরালা দুপুর

এই নিরালা দুপুর টিপ টিপ টাপুর টুপুর যেন প্রেমিকা নূপুর পরে হঠাৎ এসেছে মোর গাঁয় থাকে না বেশিক্ষণ, ক্ষণিকের শিহরণ যেন রনন লাগিয়ে চলে যায় এই নিরালা দুপুর ছাদের ওপর বৃষ্টি পড়ে অদ্ভুত সোদা গন্ধ ছড়ায় মন চলে যায় চোখকে ফেলে দূরে ( দূরে ) মাকে খুঁজছে দুষ্টু বাছুর টিপটিপটিপ...

মাঝে মাঝে হাত দুটো নিশপিশ করে (আমরাও বেঁচে আছি)

মাঝে মাঝে হাত দুটো নিশপিশ করে ( ২ ) সাধ হয় এ দুহাতে চকচকে চোখ থেকে স্বপ্ন ছিনিয়ে এনে ছড়িয়ে ছিটিয়ে দিই এখানে সেখানে এখানে সেখানে ভায়া এখানে সেখানে শ্মশানে কফিনে বা মুদির দোকানে যেখানে স্বপ্ন দেখা লাগাতার বন্ ধ সুর নেই তাল নেই শুধু হরতাল সোনালী সকালটাকে অকালে ভেজাবে...