বিবিধ

অরুণকান্তি কেগো যোগী ভিখারী

অরুণকান্তি কেগো যোগী ভিখারী। নীরবে হেসে দাঁড়াইলে এসে প্রখর তেজ তব নেহারিতে নারি।। রাস-বিলাসিনী আমি আহিরিণী শ্যামল-কিশোর-রূপ শুধু চিনি অম্বরে হেরি আজ একি জ্যোতি-পুঞ্জ? হে গিরিজাপতি! কোথা গিরিধারী।। সম্বর সম্বর মহিমা তব হে ব্রজেশ ভৈরব! আমি ব্রজবালা, হে শিব সুন্দর!...

আজো কাঁদে কাননে কোয়েলিয়া

হাস্বৗর-ত্রিতাল ——————– আজো কাঁদে কাননে কোয়েলিয়া। চম্পা কুঞ্জে আজি গুঞ্জে ভ্রমরা-কুহরিছে পাপিয়া।। প্রেম-কুসুম শুকাইয়া গেল হায়! প্রাণ-প্রদীপ মোর হের গো নিভিয়া যায়, বিরহী এসে ফিরিয়া।। তোমারি পথ চাহি হে প্রিয় নিশিদিন মালার ফুল...

আমার গানের মালা

আমার গানের মালা আমি করব কারে দান। মালার ফুলে জড়িয়ে আছে করুণ অভিমান। মালা করব কারে দান।। চোখে মলিন কাজল রেখা কন্ঠে কাঁদে কুহু কেকা। কপোলে যার অশ্রু রেখা একা যাহার প্রাণ।। শাঁখায় ছিল কাঁটার বেদন মালায় শুচির জ্বালা। কন্ঠে দিতে সাহস না পাই অভিশাপের মালা। বিরহে যার...

আমি চিরতরে দূরে চলে যাব

আমি চিরতরে দূরে চলে যাব, তবু আমারে দেবনা ভুলিতে। (আমি) বাতাস হইয়া জড়াইব কেশে, বেণী যাবে যবে খুলিতে।। তোমার সুরের নেশায় যখন/ ঝিমাবে আকাশ কাঁদিবে পবন, রোদন হইয়া আসিব তখন তোমার বক্ষে দুলিতে।। আসিবে তোমার পরমোৎসবে কত প্রিয়জন কে জানে, মনে প’ড়ে যাবে–কোন্‌ সে...

আমি পথ-মঞ্জুরী ফুটেছি আঁধার রাতে

আমি পথ-মঞ্জুরী ফুটেছি আঁধার রাতে, গোপন অশ্রু-সম রাতের নয়ন-পাতে। দেবতা চাহেনা মোরে, গাঁথে না মালার ডোরে, অভিমানে তাই ভোরে শুকাই শিশির-সাথে।। মধুর সুরভি ছিল আমার পরাণ ভরা, আমার কামনা ছিল মালা হ’য়ে ঝ’রে পড়া। ভালবাসা পেয়ে যদি কাঁদিতাম নিরবধি, সে বেদনা ছিল ভাল সুখ ছিল সে...

এই শিকল পরা ছল

মোদের এই শিকল পরা ছল এই শিকল পরেই শিকল তোদের করবো রে বিকল।। তোদের বন্ধ কারায় আসা মোদের বন্দী হতে নয় ওরে ক্ষয় করতে আসা মোদের সবার বাঁধন ভয় এই বাঁধন পরেই বাঁধন ভয়কে করব মোরা জয় এই শিকল বাঁধা পা নয় এ শিকল ভাঙ্গা কল।। ওরে ক্রন্দন নয় বন্ধন এই শিকল ঝন ঝনা এ যে মুক্তি পথের...

এল বনান্তে পাগল বসন্ত

এল বনান্তে পাগল বসন্ত। বনে বনে মনে মনে রং সে ছড়ায় রে, চঞ্চল তরুণ দুরন্ত। বাঁশীতে বাজায় সে বিধুর পরজ বসন্তের সুর, পান্ডু-কপোলে জাগে রং নব অনুরাগে রাঙা হল ধূসর দিগন্ত।। কিশলয়ে-পর্ণে অশান্ত ওড়ে তা’র অঞ্চল প্রাস্ত। পলাশ-কলিতে তা’র ফুল-ধনু লঘু-ভার, ফুলে ফুলে হাসি অফুরন্ত।...

ওর নিশীথ সমাধি ভাঙিও না

ওর নিশীথ সমাধি ভাঙিও না। মরা-ফুলের সাথে ঝরিল যে ধুলিপথে সে আর জাগিবে না, তারে ডাকিও না।। তাপসিনী-সম তোমারি ধ্যানে সে চেয়েছিল তব পথের পানে, জীবনে যাহার মুছিলে না আঁখি ধার – আজি তাহার পাশে কাঁদিও না।। মরণের কোলে সে গভীর শান্তিতে পড়েছে ঘুমায়ে, তোমারি তরে গাঁথা...

কারার ঐ লৌহকপাট

কারার ঐ লৌহকপাট, ভেঙ্গে ফেল কর রে লোপাট, রক্ত-জমাট শিকল পূজার পাষাণ-বেদী। ওরে ও তরুণ ঈশান, বাজা তোর প্রলয় বিষাণ ধ্বংস নিশান উড়ুক প্রাচীর প্রাচীর ভেদি। গাজনের বাজনা বাজা, কে মালিক, কে সে রাজা, কে দেয় সাজা মুক্ত স্বাধীন সত্যকে রে? হা হা হা পায় যে হাসি, ভগবান পরবে ফাঁসি,...

কুহু কুহু কুহু কুহু কোয়েলিয়া

কুহু কুহু কুহু কুহু কোয়েলিয়া কুহরিল মহুয়া বনে। চমকি’ জাগিনু নিশীথ শয়নে।। শূন্য-ভবনে মৃদুল সমীরে প্রদীপের শিখা কাঁপে ধীরে ধীরে। চরণ-চিহ্ন রাখি’ দলিত কুসুমে চলিয়া গেছ তুমি দূরে বিজনে।। বাহিরে ঝরে ফুল আমি বুঝি ঘরে বেণু-বনে সমীরণ হাহাকার করে, ব’লে যাও কেন গেলে এমন ক’রে...

গানগুলি মোর আহত পাখির সম

গানগুলি মোর আহত পাখির সম লুটাইয়া পড়ে তব পায় প্রিয়তম।। বাণ বেধা মোর গানের পাখিরে তু’লে নিও প্রিয় তব বুকে ধীরে, লভিবে মরণ চরণে তোমার সুন্দর অনুপম।। তারা সুখের পাখায় উড়িতেছিল গো নভে, তব নয়ন শায়কে বিঁধিলে তাহাদের কবে। মৃত্যু আহত কন্ঠে তাহার একি এ গানের জাগিল জোয়ান, মরণ...

দক্ষিণ সমীরণ সাথে বাজো বেণুকা

দক্ষিণ সমীরণ সাথে বাজো বেণুকা।        মধুমাধবী সুরে চৈত্র পূর্নিমা রাতে বাজো বেণুকা।।            বাজো শীর্ণা-স্রোত নদী-তীরে,                            বাজো ঘুম যবে নামে বন ঘিরে,                যবে, ঝরে এলোমেলো বায়ে ধীরে,                       বাজো বেণুকা।।...

ধুলি-পিঙ্গল জটাজুট মেলে

ধুলি-পিঙ্গল জটাজুট মেলে- আমার প্রলয়-সুন্দর এলে।। পথে পথে ঝরা- কুসুম ছড়ায়ে, রিক্ত শাখায় কিশলয় জড়ায়ে, গৈরিক উত্তরী গগনে উড়ায়ে- রুদ্ধ-ভবনের দুয়ার ঠেলে।। বৈশাখী পূর্নিমা চাঁদের তিলক তোমারে পরাব, মোর অঞ্চল দিয়া তব জটা নিঙাড়িয়া সুরধুনি ঝরাব। যে মালা নিলেনা আমার ফাগুনে,...

নিশি নিঝুম ঘুম নাহি আসে

নিশি নিঝুম ঘুম নাহি আসে, হে প্রিয়, কোথা তুমি দূর প্রবাসে।। বিহগী ঘুমায় বিহগ-কোলে, শুকায়েছে ফুল-মালা শ্রান্ত আঁচলে। ঢুলিছে রাতের তারা চাঁদের পাশে।। ফুরায় দিনের কাজ ফুরায় না রাতি, শিয়রের দীপ হায়, অভিমানে নিভে যায় নিভিতে চাহে না নয়নের বাতি। কহিতে নারি কথা তুলিয়া আঁখি...

পরদেশী মেঘ যাওরে ফিরে

পরদেশী মেঘ যাও রে ফিরে। বলিও আমার পরদেশী রে।। সে দেশে যবে বাদল ঝরে কাঁদে না কি প্রাণ একেলা ঘরে, বিরহ-ব্যাথা নাহি কি সেথা বাজে না বাঁশী নদীর তীরে।। বাদল রাতে ডাকিলে “পিয়া পিয়া পাপিয়া” বেদনায় ভ’রে ওঠে না কি রে কাহারো হিয়া? ফোটে যবে ফুল ওঠে যবে চাঁদ জাগে না...

প্রজাপতি প্রজাপতি

প্রজাপতি প্রজাপতি কোথায় পেলে ভাই এমন রঙ্গীন পাখা টুকটুকে লাল নীল ঝিলিমিলি আঁকাবাঁকা।।    তুমি টুলটুলে বন-ফুলে মধু খাও    মোর বন্ধু হয়ে সেই মধু দাও, ওই পাখা দাও সোনালী-রূপালী পরাগ মাখা।।    মোর মন যেতে চায় না পাঠশালাতে প্রজাপতি, তুমি নিয়ে যাও সাথী করে তোমার সাথে।...

ফুলের জলসায় নীরব কেন কবি

ফুলের জলসায় নীরব কেন কবি ভোরের হাওয়ায় কান্না পাওয়ায় তব ম্লান ছবি নীরব কেন কবি।। যে বীণা তোমার পায়ের কাছে বুক ভরা সুর লয়ে জাগিয়া আছে তোমার পরশে ছড়াক হরষে আকাশে বাতাসে তার সুরের সুরভি নীরব কেন কবি।। তোমার যে প্রিয়া গেল বিদায় নিয়া অভিমানে রাতে গোলাপ হয়ে ফুটুক তাহারই...

বসন্ত মুখর আজি

বসন্ত মুখারী / ত্রিতাল —————— বসন্ত মুখর আজি দক্ষিণ সমীরণে মর্মর গুঞ্জনে বনে বনে বিহ্বল বাণী ওঠে বাজি’।। অকারণ ভাষা তা’র ঝর ঝর ঝরে মুহু মুহু কুহু কুহু পিয়া পিয়া স্বরে, পলাশ বকুলে অশোক শিমুলে সাজানো তাহার কল-কথার সাজি।। দোয়েল, মধুপ...

ভোরে ঝিলের জলে শালুক পদ্ম তোলে

ভোরে ঝিলের জলে শালুক পদ্ম তোলে কে ভ্রমর-কুন্তলা কিশোরী। ফুল দেখে বেভুল সিনান্‌ বিসরি।। একি নূতন লীলা আঁখিতে দেখি ভুল কমল ফুল যেন তোলে কমল ফুল ভাসায়ে আকাশ গাঙে অরুণ-গাগরি।। ঝিলের নিথর জলে আবেশে ঢল ঢল গ’লে পড়ে শত সে তরঙ্গে, শারদ আকাশে দলে দলে আসে মেঘ, বলাকার খেলিতে...

মেঘ-বিহীন খর বৈশাখে

মেঘ-বিহীন খর বৈশাখে তৃষায় কাতর চাতকী ডাকে।। সমাধি-মগ্না উমা তপতী রৌদ্র যেন তার তেজ জ্যোতিঃ ছায়া মাগে ভীতা ক্লান্ত কপোতী কপোত-পাখায় শুষ্ক শাখে।। শীর্ণা তটিনী বালুচর জড়ায়ে তীর্থে চলে যেন শ্রান্ত পায়ে। দগ্ধ ধরণী যুক্তপাণি চাহে আষাঢ়ের আশীষ-বাণী, যাপিয়া নির্জ্জলা একাদশীর...
পাতা 1/212