বাউল গান

গাড়ি চলে না চলে না

গাড়ি চলে না চলে না, চলে না রে, গাড়ি চলে না। চড়িয়া মানব গাড়ি যাইতেছিলাম বন্ধুর বাড়ি মধ্য পথে ঠেকলো গাড়ি উপায়-বুদ্ধি মেলে না।। মহাজনে যতন করে তেল দিয়াছে টাংকি ভরে গাড়ি চালায় মন ড্রাইভারে ভালো-মন্দ বোঝে না।। ইঞ্জিনে ময়লা জমেছে পার্টসগুলো ক্ষয় হয়েছে ডাইনামো বিকল হয়েছে...

গৌর এলো ছেঁউড়িয়াতে লালন-অবতার

গৌর এলো ছেঁউড়িয়াতে লালন-অবতার॥ এলো মহা-ভাবের ভাব লইয়া ভাবে ভাবে সব একাকার মানুষ-রূপে পাক মালেক সাঁই নাইকো কোন জেতের বালাই মানুষ ভজবি মানুষ হবি মানুষ-গুরু নিষ্ঠা হয় যার॥ সুখ-বসন্ত মধুমাসে রসের মানুষ রসে ভাসে রস-আস্বাদন করবি যে জন কুল-কলঙ্কের বড়াই ছাড়।। মূল ছাড়িয়া...

গৌর কি আইন আনিলেন নদীয়ায়

গৌর কি আইন আনিলেন নদীয়ায় এ তো জীবের সম্ভব নয় আন্‌কা আচার আন্‌কা বিচার দেখে শুনে লাগে ভয়।। ধর্মাধৰ্ম বলিতে কিছুমাত্র নাইক তাতে প্রেমের পূর্ণ গায় জেতের বোল রাখিল না সে তো করল একাকারাময়।। শুদ্ধ অশুদ্ধ নাই জ্ঞান সাতবার খেয়ে একবার স্নান করে সদায় অসাধ্যকে সাধ্য করে জীবে যা...

ঘুরে ভুবন পায়না সে ধন, জ্ঞান নয়ন না ফুটিলে

ঘুরে ভুবন পায়না সে ধন, জ্ঞান নয়ন না ফুটিলে জ্ঞান নয়ন না ফুটিলে, জ্ঞানের বাতি না জ্বালিয়ে।। সে যে আহাদে আহম্মদ ছিল, দ্বিতীয় তবরকের ফুলে তৃতীয়তে ময়নার গলার হার, চৌঠায় সেতারার কূলে।। পঞ্চমম হয় ময়ুরিনী, দরক্ত একিনের ডালে কলির জীব তরাবে বলে, উঠলেন দোলে মায়ের কোলে।। দিয়ে সে...

চল মিনি আসাম যাবো

চল মিনি আসাম যাবো দেসে বড় দুখ রে আসাম দেসে রে মিনি চা বাগান ভরিয়া এক পয়সার পোটিমাছ আর গায়াগুনার ত্যাল গো মিনির বাপে মাঙে যদি আরৈ দিব ঝোল গো৷ সরদার বুলে কাম কাম আর বাবু বুলে ধইরা আন আর সাহিব বুলে লিব পিঠের চাম রে যদুরাম ফাঁকি দিয়া পঠাইলি...

জনম আমার গেল বিফলে

কোন দেশেতে যাব গুরু যাব আমি তোমার সন্ধানে জনম আমার গেল বিফলে আমায় মানবকুঞ্জে কনে বা পাঠালে বহুজনম করিয়ে এমন তবুও হলনা স্মরণ শুধু মায়ারই কারণ আমার এ জনম বিফলে গেল কৃষ্ণ সেবায় না লাগিল আমার এ দুঃখ কি যাবে মরিলে ভাই-বন্ধু-পুত্র পরিজন তারা ভাবে না কখন আমি ভাবি সর্বক্ষণ...
জলে গিয়াছিলাম সই

জলে গিয়াছিলাম সই

জলে গিয়াছিলাম সই কালা কাজলের পাখি দেইখা আইলাম কই।। সোনার ও পিঞ্জরা সই গো, রুপার ও টানগুনি আবের চান্দুয়া দিয়া পিঞ্জরা ঢাকুনি।। পালিতে পালিসলাম পাখি দুধ কলা দিয়া।। এগো যাইবার কালে বেঈমান পাখি না চাইল ফিরিয়া।। ভাইবে রাধারমণ বলে পাখি রইলো কই।। এগো আইনা দে মোর প্রাণ পাখি...

জলে না যাইও ওহে কলঙ্কিনী রাধা কদম গাছে উঠিয়াছে কানু হারামজাদা

মা তুই জলে না যাইও ও হে কলঙ্কিনী রাধা কদম গাছে উঠিয়াছে কানু হারামজাদা মা তুই জলে না যাইও… না যাইও না যাইও রাধে কদমতলা দিয়া কানাই পাতিছে ফান্দো রাধিকা লাগিয়া হাটত না যাও বাটত না যাও ঘাটত না যাও লাজে আইলো তায় রাকিছে এ নাম কলঙ্কিনি রাধে না যাইও না যাইও রাধে যমুনা...
জলে যাইও না গো রাই

জলে যাইও না গো রাই

জলে যাইও না গো রাই জলে যাইও না গো রাই আইজ রাধার জলে যাওয়ার জাতের বিচার নাই মায়ে পিন্দইন যেমন তেমন ভইনে পিন্দইন শাড়ি শ্রীমতি রাধিকার পিন্দইন কৃষ্ণানীলাম্বরী। ভাইবে রাধারমণ বলে শোন গো ধনী রাই কালার লাগি হইছইন পাগল, কমলিনী রাই।। বিকৃত রূপ :- জলে যাইও না গো রাই আজ কালিয়ার...
জলের ঘাটে দেইখা আইলাম

জলের ঘাটে দেইখা আইলাম

জলের ঘাটে দেইখা আইলাম কি সুন্দর শাম রাই শাম রাই, ভোমরায় ঘুইরা ঘুইরা মধু খায় ।। নিত্তি নিত্তি ফুল বাগানে ভ্রমর আইসা মধু খায় আয় গো ললিতা সখি আবার দেখি পুনরায়।। মুখে হাসি হাতে বাশিঁ বাজায় বা বন্ধুয়ায় চাদ বদনে প্রেমের রেখা কি বা শোভা দেখা যায় ।। ভাইবে রাধারমণ বলে পাইলাম...

জাত বিজাতি যে বাছে

জাত বিজাতি যে বাছে তার চেয়ে আর বোকা কে আছে? আর ব্রহ্মাণ্ডময় একই খোদা– এই মানুষ ছাড়া নয়কো জুদা এক চিজেতে সবাই পয়দা, ধাঁধায় পড়ে ঘুরতেছে। বামুন কায়েত হাড়ি মুড়ি একই জলে হলেন শুচি সেখানে নাই বাছাবাছি সকলে শুচি হচ্ছে। আর চন্দ্র সূর্য নক্ষত্রগণ এই মাটির উপরে...

জাতি বলতে কি বুঝলে পণ্ডিত মশাই

জাতি বলতে কি বুঝলে পণ্ডিত মশাই দেখি জগতে এক মানব জাতি দুই ভাগে বিভক্ত তাই।। ব্ৰাহ্মণ ক্ষৈত্র বৈশ্য শুদ্ৰ কেহ বৃহৎ কেহ ক্ষুদ্র আবরণে ইতর ভদ্র গুন কর্ম অনুযায়ী কেহ ওঠে বহু উচে কেহ পড়ে অনেক নীচে গুনের মাত্ৰ জাতি আছে গুনীর কোন জাতি নাই।। আৰ্য সন্তানের জাতিভেদ সমাজে আনিলো...

জাতির নামে বজ্জাতি সব জাতি কি নিবা সঙ্গে করে

জাতির নামে বজ্জাতি সব জাতি কি নিবা সঙ্গে করে।। সাদা কিবা কালো বরণ, জাত দেখছো কি এক নজরে।। হুকোর জল আর ভাতের হাঁড়ি এই জেনেছে জাতির জান, লম্বা কি সে গোল আকৃতি কি করেছ তার প্রমাণ, অদৃশ্য যা যায় না দেখা, কিসে হয় তার লেখাজোখা, জাতি-জুয়াড়ি খেলছে। যারা কি প্রমাণ করিল তারে।।...

জাতির বড়াই কি ইহকাল জাতি করে কি

জাতির বড়াই কি ইহকাল জাতি করে কি, আমার মনে বলে অগ্নি জ্বেলে দিই জাতের মুখি। এক জাতের বোঝা লয়ে, চিরকাল কাটালাম মানী মানুষ হয়ে, মানের গৌরব কুলের গৌরব, ধন্ধবাজী সব দেখি।। লোকে পেটের দায়ে দেশান্তরী হয়, হিন্দু-মুসলমানের বোঝা মাথায় করে রয়, কার বা জাতি কেবা দেখে ঘরে এলে চিহ্ন...

ঝিলমিল ঝিলমিল করে রে ময়ূরপঙ্খী নায় (কোন মেস্তরি নাও বানাইলো)

কোন মেস্তরি নাও বানাইলো এমন দেখা যায় ঝিলমিল ঝিলমিল করে রে ময়ূরপঙ্খী নায় ।। চন্দ্র-সূর্য বান্ধা আছে নাওয়েরই আগায় দূরবীনে দেখিয়া পথ মাঝি-মাল্লায় বায় ঝিলমিল ঝিলমিল করে রে ময়ূরপঙ্খী নায় ।। রঙ-বেরঙের যতো নৌকা ভবের তলায় আয় রঙ-বেরঙের সারি গাইয়া ভাটি বাইয়া যায়...

তুই যতই জ্বালা দিসরে কালা

ও তুই যতই জ্বালা দিসরে কালা ততই বাড়ে প্রেম স্বাধ তোর লাইগা বেহায়া মনটা করে যে উৎপাত, শোন বলি গো প্রাণনাথ তোর লাইগা বেহায়া মনটা করে যে উৎপাত তুই যতই ব্যাথা দিয়েছিস নিঠুর ব্যাথার পরিবর্তে আমার লেগেছে মধুর যেমন প্রভুর দাড় ছাড়েনা কুকুর যতই করুক বেত্রাঘাত তোর লাইগা বেহায়া...

তুমি কোনবা দেশে রইলারে দয়াল চান

তুমি কোনবা দেশে রইলারে দয়াল চান তোমায় না দেখলে বাচেনা আমার প্রাণ।। দয়াল তোমার লাগিয়া যোগিনী সাজিবো আমি সঁইপা দিব আমার মন প্ৰাণ।। দয়াল তোমার লাগিয়া দেশে না বৈদেশে আমি পাইতাছি পিরিতে ফাঁদ।। যেমন শিমুইলের বাতাসে উড়েরে দয়াল সেই রকম উড়াইলা আমার প্রাণ।।...

তুমি জানো নারে প্রিয় তুমি মোর জীবনের সাধনা

তুমি জানো নারে প্রিয় তুমি মোর জীবনের সাধনা তোমায় প্রথম যেদিন দেখেছি মনে আপন মেনেছি তুমি বন্ধু আমার বেদন বুঝো না ফাল্গুন দোল পূর্ণিমায় মৃদু মৃদু বায়ু বয় ফুলবনে পুলকের আল্পনা মাধুয়া মাধুবী রাতে বঁধুয়া তোমারি সাথে করেছিনু যামিনী যাপনা (তুমি) আমায় ফেলে চলে গেলে কি আগুন...

তুমি তো মকসুদ আমার সকলি কামেতে

তুমি তো মকসুদ আমার, সকলি কামেতে। সকলি কাম পুরা কর,তোমার ফজলেতে। মন যেতে চায় কু -কাজেতে, সৎ জ্ঞান তুমি দাও তাতে। এই মোনাজাত হয় যে কবুল, তোমারি দরগাতে। তুমি তো মকসুদ……….. কামেতে নিও আমার এই মোনাজাত, দেখি যেন কোরানের আয়াত সর্বদাই যেন তোমার নাম জাগে...

তুমি দয়া কর দয়াময়

তুমি দয়া কর দয়াময় দীনহীনে ডাকে যে তোমায় তোমার আশায় চিরদিন এ যৌবন বয়ে যায় দিনে দিনে ফুরাল দিন, আমার ভাবতে ভাবতে তনু যে ক্ষীণ আমায় কী ভাবেতে ভেবছ ভিন আমি কী তোর কেহ নয় কত সহে জীবনে, আমি পুড়ে মলাম আশকৎআগুনে দেবা পার কত দিনে — দীনহীন নসরে কয়।...