বাউল গান

উদ্ধারিয়া লাও প্ৰাণনাথ, ঠেকিয়াছি বিষম দায়

উদ্ধারিয়া লাও প্ৰাণনাথ, ঠেকিয়াছি বিষম দায় ঘোর বাতাসে অকুল নদীতে নাও ধরা না যায়।। মহাজনের বেসাত ভরা পাল নাই গেরাবি ছাড়া পাতালের ফানুস টুঠা ভাঙা দাড় কুড়া ওরে, আগা পিছা মারে ঢেউয়ে মুই অভাগীর কি উপায়।। প্রেমের বেপারি যারা, দিবানিশি বাইছে তারা ওকি বাদাম তুলিয়া দিছে...

এ দেশের মুসলমানে বড়াই করে

এ দেশের মুসলমানে বড়াই করে, আমরা বাদশাই জাতির খান্দান রে। সহস্ৰ বৎসর পূর্বে ভাই মুসলমানের গন্ধ দেখি নাই, যত অনার্য শূদ্ৰ ওরাই, ধৰ্ম ভারত হয় রে।। তারাই ছৈয়দ খোনকার বলিয়া কওলয় এবার, দুঃখে মরি রে বারবার, দশা এদের হেরি রে। করে চৌকিদারী পেয়াদাগিরী দ্বারে দ্বারে ফেরে ঘুরি,...

এই পৃথিবী যেমন আছে তেমনি ঠিক রবে

এই পৃথিবী যেমন আছে তেমনি ঠিক রবে সুন্দর এই পৃথিবী ছেড়ে একদিন চলে যেতে হবে যখন নগদ তলব তাকিত পত্র নেবে আসবে যবে মোহ ঘুমে যে দিন আমার মুদিরে দুই চোখ পাড়াপড়শী প্রতিবেশী পাবে কিছু শোক তখন আমি যে এই পৃথিবীর লোক ভুলে যাবে সবে যতো বড় হউকনা কেন রাজা জমিদার পাকা বাড়ি জুড়ি গাড়ি...

এই মানব জীবন ভাই

এই মানব জীবন ভাই এই আছে আর–এই নাই যেমন পদ্মপত্রে জল টলে সদাই তেমনি দেখিতে দেখিতে নাই। আজ গেল আমার পরে যাবে কেহ অনিত্য এই মানবদেহ তবে কেন অহংকারে বল মত্ত সদাই যদি যেতে হবে জান নিশ্চয় তবে বৃথা কেন হারাও সময় বিত্ত অন্তের উপায় কর এখন সত্য আশ্রয় সময় যা যাবার, তা গেছে...
এই মিনতি করি তোমায় ছেড়ে যাইও না

এই মিনতি করি তোমায় ছেড়ে যাইও না

এই মিনতি করি তোমায় ছেড়ে যাইও না আমি তো জানি রে বন্ধু তুমি আপনা আমি তোমায় ভালোবাসি মন্দ বলে পাড়াপড়শি বলে বলুক যার যা খুশি আমি শুনবো না ছাড়িয়া সকলের আশা করেছি তোমার ভরসা মিটাও আমার প্রেম-পিপাসা নিরাশ করিও না তোমায় না পাইলে যৌবনে কী কাজ আমার কুল-মানে তুমি বিনে পাগল মনে...

এক বাপের দুই বেটা তাজা মরা কেহ

এক বাপের দুই বেটা তাজা মরা কেহ সকলেরি এক রক্ত এক ঘরে আশ্রয় এক মায়ের দুধ খেয়ে এক দরিয়ায় যায়। কারো গায়ে শালের কোর্তা কারো গায়ে ছিট দুই ভাইরে দেখতে ফিট। কেবল জবানীতে ছোট বড় বোবা বাচাল চেনা যায় কেউ বলে দুৰ্গা হরি, কেউ বলে বিসমিল্লা আখেরি তবু পানি খেতে যায় এক দরিয়ায় মালা...

একটা চিঠি লিখি তোমার কাছে

একটা চিঠি লিখি তোমার কাছে ব্যাথার কাজলে আশা করি পরান বন্ধু আছো কুশলে আগে নিও ভালোবাসা অবলার না বলা ভাষা আমার যত গোপন আশা ভিজাইয়া দেই নয়ন জলে প্রথম যেদিন এসে তুমি মিলাইলে হাত ফুটিল মনের বনে প্রেম পারিজাত সেই বাসরে শুণ্যহিয়া আমি থাকি তবু পথ চাহিয়া কান্দে আমার মন পাপিয়া...

একে তো বাঁশবাড়ির মশা

একে তো বাঁশবাড়ির মশা কামড়াইলে পড়ে পোষা প্যাটকোনা তোর নাল ডিমাডিম করে মশার কামড়ে টাঙানু মশারী মশা ফাঁক দিয়ে ভিতরি সিন্ধাইসে৷ মশার কামড়ে গেনু বাপের বাড়ি আরে (–?) চ্যাংড়া মশা বেড়ায় চারিধারি রে মশা প্যাটখোনা তোর নালডিমাডিম করে৷ মশার কামড়ে গায়ে দিনু...

এগো মইলা তোমার লাগিয়ে হাছন রাজা বাউলা

এগো মইলা, তোমার লাগিয়ে হাছন রাজা বাউলা | ভাবতে ভাবতে হাছন রাজা হইল এমন আউলা || দিনে রাইতে উঠে মনে, প্রেমানলের শওলা | আর কত সহিব প্রাণে, তুই বন্ধের জ্বালা || সোনার রং অঙ্গ আমার, হইয়াছে রে কালা | অন্তরে বাহিরে আমার জ্বলিয়ে রহিল কয়লা || লোকে বলে হাছন রাজা হইল রে আজুলা |...
এমন মায়ার কান্দন আর কাইন্দোনা রাই বিনোদিনী

এমন মায়ার কান্দন আর কাইন্দোনা রাই বিনোদিনী

এমন মায়ার কান্দন আর কাইন্দোনা রাই বিনোদিনী, রাই বিনোদিনী এগো কান্দিলে না আর আসিবে শ্যামচাঁন গুণমণি, শ্যামচাঁন গুণমণি তুমি না ছিলায় গো রাধে আয়ানের ঘরণী, আয়ানের ঘরণী কেনো ভাগিনার প্রেমে মন মজাইয়া হইলা কলঙ্কিনী, রাই বিনোদিনী তুমি কার লাগিয়া কাইন্দা কাইন্দা কাটাইলা রজনী...

এসে এক রসিক পাগল, বাধালে গোল ন'দের মাঝে দ্যাখ্‌ সে তোরা

এসে এক রসিক পাগল, বাধালে গোল ন’দের মাঝে দ্যাখ্‌ সে তোরা। পাগলের সঙ্গে যাব, পাগল হব, হেরবো রসের নব গোরা।। ব্রহ্মা পাগল, বিষ্ণু পাগল, আর এক পাগল না দেয় ধরা, কৈলাসের শিব পাগল খেয়ে পাগল, ওরে সার করেছে ভাঙ্‌-ধুতুরা।। নিতাই পাগল, গৌর পাগল; চৈতন্য পাগলের গোড়া। অদ্বৈত...

এসো ব্যথার ব্যথিত ওগো তুমি আমার সাঁই

এসো ব্যথার ব্যথিত ওগো তুমি আমার সাঁই তোমার মতো ব্যথার ব্যথি ব্ৰহ্মাণ্ডে কেহ নাই। দয়ার দরদী হয়ে লুকাইলে কোন শহরে অধম রাহা পানে চেয়ে বঞ্চিত সদাই।। তুমি মুছরে দয়া করিলে নূর তাজেলা দেখাইলে। দেখা দিয়ে লুকাইলে এই কি তোমার দয়া হয়।। দীনবন্ধু জগৎ কর্তা ভুলনা এই অধমের কথা দরবেশ...

ঐ ঘাটে মানুষ ডুবে ভেসে যাচ্ছে রে

ঐ ঘাটে মানুষ ডুবে ভেসে যাচ্ছে রে। কত সাধু মহাজন যাচ্ছে মারা, ত্রিপিনীর ক্রিরোধারে। মদন রাজার ঘাট ভাল নয়, খেওয়া দিচ্ছে দিন দয়াময়।। গুরু এসে পার করে নেয়, মুর্শিদ এসে হাইল ধরে।। সেই ঘাটে লোনা পানি, কুমীরের কানাকানি ডেঙ্গায় মানুষ খায় ধরে।। বালুচরে কুম্ভীরের ঘিস, সমজায়ে...

ওমা কালী কালী গো এতনি ভঙ্গিমা জান

ওমা কালী ! কালী গো ! এতনি ভঙ্গিমা জান | কত রঙ্গ ঢঙ্গ কর যা ইচ্ছা হয় মন || মাগো স্বামীর বুকে পা দেও মা ক্রোধ হইলে রণ | কৃষ্ণরূপে প্রেমভাবে, মামীর বসন টান || আদ্যাশক্তি হইয়া মাগো ! পুত্রে রইলায় বর | শতবার মারিয়া মাগো ; কর পুত্রের ঘর || কখন কালী, কখন রাধা, কখন গো তারিণী...

ওয়াজেবল অজুদের মাঝি — রহমানি নফস আছে

ওয়াজেবল অজুদের মাঝি — রহমানি নফস আছে ওয়াহেদল অজুদের বিচে — মাতাইন্না নফস রয় আর মমকেনল অজুদের ধারা — বাস করে নফস আম্মারা মমতেনাল অজুদে পোরা, লওমা সেই নফস কয় মলহেমা বলে যারে, আরফেল অজুদে ফিরে পাঁচ অজুদকে চিনতে পারলে নসর কয়, অধর ধরা যায়।...

ওরে নিশি তুমি কেন নিষ্ঠুর সাজিলে

ওরে নিশি তুমি কেন নিষ্ঠুর সাজিলে এ বিশ্ব রাখিয়ে ঘুমে কোথায় চলিলে।। তুমি ছিলে কোথায়, যাবে কোথায়, কোথায় হতে এলে হেথায় যাও কি তুমি সেই মদিনায়, যেথায় রাসুল। যাও কি তুমি নবীর দেশে, সারা বিশ্ব যার উদ্দেশ্যে মোর ছালাম কইও তাঁর কাছে, অভাগা বলে।। শোন ওগো সুখের নিশি, তোমায় বড়...

কই, কই, কই, কই সে জনে

কই, কই, কই, কই সে জনে। কে জানে সে জানে।। খুঁজি তারে স্থানে স্থানে, বনে-উপবনে মসজিদ ও মন্দিরে আমি তারে খুঁজে পাইনে কেহই বলে না কোথায় সে জনে যদি জান কেউ বলে দেও যাই তার অন্বেষণে। বায়ু কি অনলে, জলে কিংবা স্থলে থাক সে কি আকাশে-কিংবা সে পাতালে তারে দেখিতে মন ব্যাকুল, অকুল...

কতদিন আর খেলবে হাছন ভবেরই খেলা

কতদিন আর খেলবে হাছন, ভবেরই খেলা | খেলতে খেলতে হাছন রাজার না লাগে ভালা || এই যে দেখ ভবের বাজার, কেবল এক জ্বালা | স্ত্রী পুত্র কেহ নয় তোর, যাইতে একলা || হাছন জানে, হাছন রাজায় মাইল এক ঠেলা | চল চল শিঘ্র করিয়ে, চল শালার শালা...

করবে কি হে জাইতের বিচার এসব ফেলে যেতে হবে

করবে কি হে জাইতের বিচার এসব ফেলে যেতে হবে তোমার সকলি যে থাকবে পড়ে, ‘হু’ হক নামটি সঙ্গে যাবে৷। দেখ ভাই হিন্দু-মুসলমান ভাবিছ সবে ভিন্ন ভিন্ন এসব ঘুচিবে সে দিন তোমায় যে দিন দীন ইসলাম তলব দিবে। গড়েছে এক কারিগরে স্ত্রী আর পুরুষেরে দুনিয়ার কারবারের তরে শেষে আদিতে আদি...

কলি বলে কেন কলিকালকে দোষা হয়

কলি বলে কেন কলিকালকে দোষা হয়। জ্ঞান-বিজ্ঞানের দ্বারা মনুষ্যত্ব উপজয়।। সেকালে আদমগণ, জানতো না কোথায় কোন জন, তাইতে তো এতো অমিলন, ধর্ম, শাস্ত্ৰ, সমাজে হয়।। কোন দেশে কাহার বাস, কোথা ধর্ম কোথায় প্রকাশ, এ কালে জেনে এসব, মনুষ্যজাতি জ্ঞানবুদ্ধি পায়।। বেদ বাইবেল কোরান...