চোখ জলে ভেজা স্যাঁতস্যাঁতে (গীতিকবিতা ২)

[ইতিহাস তুমি কেঁদোনা, পরিবর্তন আসে
চির ক্লান্তির ভাবনা, তোমাকেই ভালবাসে
বন্ধু তুমি কেঁদোনা, আমারও কান্না আছে
কাঁদিনা তোমারি জন্য, তুমি ভেসে যাও পাছে…]

চোখ জলে ভেজা স্যাঁতস্যাঁতে,
বালিশের উপর শুয়ে কাটছে অনেক রাত,
ধন্যবাদ হে ভালোবাসা, ধন্যবাদ এই দুঃখ দেয়া।
সুখে থেকো তুমি বলেছিলে, সুখে আছি সবাই বলে,
ঠোঁট-মুখে হাসি লেগে আছে, অন্তর কাঁদে কেউ না জানে।

পুরোনো চিঠি পড়তে বসে, আজো মনে সন্দেহ জাগে,
আদৌ কি ভালোবেসে ছিলে,
নাকি ছিলো এ ছলনা অবলীলাক্রমে,
চলে গেলে অশান্ত সাগরে,
জীর্ন ভেলায় যাও তুমি অনিশ্চিতে,
ভেসে যাও নেই কোনো আশ্রয়,
ভেসে যাও নেই কোনো পিছুটানের সংশয়,
আমি স্বর্গহীন পৃথিবী আঁকড়ে রবো,
ভরাডুবির আশংকাতে।

নিথর রাতে মিটমিটে জোনাকির আলো দেখে,
জ্বলছে নিভছে মনের আশা,
ধন্যবাদ হে ভালোবাসা, ধন্যবাদ হে রসিকতা।
বিদায় বিহনে বলেছিলে,
কষ্ট পেলে তুমি দুঃখ পাবে,
পরাজয়ের এ জীবন আমার,
এতটুকুতো মেনেই নেবে।
প্রেমের প্রলাপে প্রলেপ মেখে,
বিলীন করলে মিথ্যাচারে,
ধন্যবাদ হে ভালোবাসা, ধন্যবাদ হে মনভাঙা।

ঘৃনার কথা বলেছিলে, ঘৃনায় আমার জীবন চলে,
ঘৃনাতে ভালোবাসা লাগে, এই সত্য কথা কেউ না মানে
ভেসে যাও নেই কোনো প্রাপ্তি,
ভেসে যাও নেই কোনো অকারণে শাস্তি,
আমি সত্যহীন পৃথিবী আঁকড়ে রবো,
চোরা বালির নিমজ্জনে।

যাওগো তুমি স্বপ্ন কূলে,
স্বপ্ন ভাঙার স্বপ্ন দেখে,
দুঃস্বপ্ন না হয় আমি ভেবে,
শান্তনা দেবো অবুঝ মনে,
চোখ জলে ভেজা স্যাঁতস্যাঁতে,
বালিশের উপর শুয়ে কাটছে অনেক রাত,
ধন্যবাদ হে ভালোবাসা, স্বাগতম হে নিঃসঙ্গতা।

============
কথা ও কণ্ঠ : মাকসুদুল হক
সংগীত : ফিডব্যাক
এ্যালবাম : বঙ্গাব্দ ১৪০০ (১৯৯৪)

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *