ক্ষ্যাপারে পাগলরে ভাব না জেনে পীরিত করো না

ক্ষ্যাপারে পাগলরে ভাব না জেনে পীরিত করো না,
এবার সুহৃদ চিনে করো পীরিত কোন অভাব রবে না।।
মানুষ চিনবি রয়ে সয়ে শাহ স্নিগ্ধ স্বভাব লয়ে
দুগ্ধ হোসেন মুগ্ধ হয়ে দুগ্ধে দিয়ে গোচনা।।

মধু হয় না বল্লার চাকে, ইলিশ মাছ কি বিলে থাকে
কিলাইলে কি কাঁঠাল পাকে, সব লোকের জানা
সুজন সাথে না করলে পীরিত, হিতে ফল ফলবে বিপরীত
নষ্ট হবে মানব চরিত চোখ থাকতে হবে কানা।।

প্রেম গাছে চড়িস না শখে ঝাঁকমারি করিস না ঝোকে
কামড়াবে শুধু মৌপোকে, মধু মিলবে না,
ডাল ভাঙিয়া তলায় পলে জনম তোর যাবে বিফলে
যেমন চিনিত ভরা ডুবলে জলে কোন কাজে লাগে না।।

পীরিত করে লাইলী মজনু, বিষাম প্রেমে ভরা তনু
তবুতে নাই অতনু প্রেমের দেওয়ানা
চণ্ডিদাস পীরিত করে এক মরণে দুইজন মরে
এমন পীরিত যেজন করে মরলেও প্রেম ছোটে না।।

গুণে কর্মে সমান দু’জন মিলবে সু-জনে সুজন
প্রেম নদীতে ধরবি উজান তীরে ফিরবি না
বেঁধে রাখবি কাল কৌশলে মাওঙ্গ মাকড়সার জালে
পাগল বিজয় বলে এই কপালে ঘটলো কই সে সাধনা।।

—————-
বিজয় সরকার

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *