মুরগিটার অপরাধ

নচ্ছার এক কাকাতুয়াকে নিয়ে ভারি বিপাকে পড়েছেন কাকাতুয়ার মালিক। একে তো কাকাতুয়াটা বাচাল, তার ওপর কাকাতুয়ার মুখে দিনরাত গালির ফুলকি ছোটে। ধরতে গেলেই ঠোকরাতে আসে। নানা রকম শাস্তি দেওয়া হলো তাকে। বাথরুমে বন্দী করে রাখা হলো, খাওয়া বন্ধ করে দেওয়া হলো—তবু সে ভদ্র হয় না। রেগেমেগে কাকাতুয়াটাকে ফ্রিজে ভরে রাখলেন মালিক।
কিছুক্ষণ পর ফ্রিজ খুলতেই হাতজোড় (পড়ুন পাখাজোড়) করল কাকাতুয়া। ‘ক্ষমা চাইছি মালিক, আর দুষ্টুমি করব না’। সন্তুষ্ট হলেন মালিক।
ফ্রিজ থেকে তাকে বের করতেই বিগলিত হাসি হেসে প্রশ্ন করল কাকাতুয়া, ‘যা হোক, ফ্রিজের ভেতরে রাখা মুরগিটা কী অপরাধ করেছিল, জানতে পারি?’

One thought on “মুরগিটার অপরাধ

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *