নাগরিক অধিকারের দেশ – আনাতোলি ত্রুশকিন

সন্ধ্যাবেলা রাস্তায় এক লোক এগিয়ে এল আমার কাছে। বলল, জ্যাকেটটা খুলুন।
আমি তাকে বললাম, আপনি কি জানেন যে অপরাধপ্রবণতা দমন করতে প্রেসিডেন্ট বিশেষ নির্দেশনামা জারি করেছেন?
সে বলল, জলদি খোল বদমাশ!
জ্যাকেটটা খুললাম। সে বলল, শার্টও খোল; জুতা, প্যান্ট, মোজা, আন্ডারওয়্যার—সব।
সব খুলে ফেলে বললাম, প্রেসিডেন্টের নির্দেশ এভাবে পালন করা হলে আমাদের সবাইকে ন্যাংটো হয়ে ঘুরতে হবে।
উত্তরে কিছু না বলে সে চলে গেল আমার কাপড়চোপড় নিয়ে।
ঝটপট বাড়ি ফিরে ভাবলাম, পুলিশকে ফোন করব। সেই সময় শুনি, রেডিওতে বলছে, আর কিছুক্ষণের মধ্যেই দুর্নীতির বিরুদ্ধে সর্বাঙ্গীণ যুদ্ধ ঘোষণা করতে প্রেসিডেন্ট একটি নির্দেশনামা জারি করবেন।
বুঝে গেলাম, এর অর্থ ঘুষ ছাড়া আর এক পা-ও এগোনো যাবে না।
ফোন আর করলাম না। কারণ নাগরিক অধিকারের দেশ আমাদের। আমার অধিকার আছে ফোন করার, অধিকার আছে ফোন না করার।

সূত্র: দৈনিক প্রথম আলো, মার্চ ০১, ২০১০

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *