প্ৰধান পণ্ডিত

স্বামী বিবেকানন্দ একদিন অধ্যাপক ম্যাকসমুলারের সঙ্গে দেখা করতে গিয়েছিলেন। সঙ্গে ছিলেন। সারদানন্দ স্বামী।

অধ্যাপক ম্যাকসমুলারের সঙ্গে তঁরা কী কথাবার্তা বলেছিলেন সে কথা কাউকে বলেননি ঠিকই, কিন্তু বিবেকানন্দ ম্যাকস্‌মুলারদের কণ্ঠস্বর নকল করে ঘনিষ্ট মানুষদের সামনে কথা বলতেন। অন্যের কথা, কণ্ঠস্বর খুব সহজে নকল করার ক্ষমতা ছিল বিবেকানন্দের। তিনি বলতেন, ম্যাকসমুলার ভালো ইংরেজি জানেন, কিন্তু তার উচ্চারণ জার্মানদের মতো খুব ভালো নয়। তবে তিনি ছিলেন ইউরোপের মধ্যে প্রধান পণ্ডিত।

বিবেকানন্দ মাঝে মাঝেই বলতেন নাইশ ম্যান। স্বামীজীর কঠে অন্যের নকল কথা ও কণ্ঠস্বর শুনতে তার ঘনিষ্ঠজনরা খুব পছন্দ করতেন ও মজা পেতেন।