ধামা ধরা

বাংলার বাঘ স্যার আশুতোষ মুখোপাধ্যায়। যেমন সন্দেশ খেতে ভালোবাসতেন, তেমনই ভালোবাসতেন অন্যদের সঙ্গে রসিকতায় মেতে উঠতে। ব্যক্তিত্বসম্পন্ন রসভারি মানুষটির আড়ালে এক রসিক মানুষকে মাঝেমাঝেই দেখতে পেতেন তাঁর ঘনিষ্ঠরা। গুচ্ছ গোঁফের আড়ালে তিনি ফিক ফিক করে মুচকি হাসতেন।

একবার কলকাতা বিশ্ববিদ্যালয়ের রেজিস্ট্রার বৃহ্লষ্ণলাল দত্তর কন্যার বিবাহে নিমন্ত্রিত হয়ে যান স্যার আশুতোষ সহ আরও কয়েকজন। প্রত্যেকেই উপহার তুলে দিয়েছেন। কৃষ্ণলালের কন্যার হাতে। তারপর অপেক্ষা, কখন খাবার ডাক আসে। এমন সম দ্য স্যার আশুতোষ বিশ্ববিদ্যালয়ের এক বিশিষ্ট কর্মচারীকে রসিকতা করে বললেন, কী হে, তোমরা কি এখানে শুধুমাত্র নিমন্ত্রণ খেতেই এসেছ? যাও কাজকর্ম করো গে এবং সত্যসত্যই ধামা ধরোগে। ।

আশুতোষের মুখে এই কথা শুনে প্রত্যেকে হেসে উঠলেন।